জনপ্রতিনিধিদের বরখাস্ত করা যায় না : এরশাদ

৮৭ বার পঠিত

ঢাকা ০৪ এপ্রিল ২০১৭ :

তিন মেয়রকে বরখাস্ত প্রসঙ্গে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেন, এক সাথে তিন মেয়র বরখাস্ত! এটা কেমন কথা। তারা জনপ্রতিনিধি। তাদের বরখাস্ত করা যায় না।
মঙ্গলবার দুপুরে জাপার বনানী কার্যালয়ে এক যোগদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

ইসলামী ছাত্র মজলিসের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের মহানগর নেতা মাওলানা এসএম আল জুবায়েরের নেতৃত্বে দুই শতাধিক নেতাকর্মী জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন।

অনুষ্ঠানে এরশাদ বলেন, বিশ্বে মুসলমানরা আজ নিগৃহীত। আমাদের দেশেও একই অবস্থা। প্রতিদিন অস্বাভাবিকভাবে সাত থেকে আটজন মানুষ মারা যাচ্ছে। সন্ত্রাসীরা মানুষ মারছে, আবার সন্ত্রাসীরাও মরছে। যাদের অধিকাংশেরই পরিচয় আমরা জানি না।

তিনি বলেন, আমি মানুষের ওপর আঘাত করিনি। বন্যার সময় বুক পানিতে নেমে মানুষকে খাবার দিয়েছি। মানুষের বিপদে ছুটে গিয়েছি। তাই মানুষ আমাকে স্মরণ করে।

সাবেক এ রাষ্ট্রপতি বলেন, উন্নয়নকে তৃণমূলে নিতে উপজেলা করেছিলাম। পরবর্তীতে বাতিল করা হলেও আবার তা বাস্তবায়ন করা হয়েছে। তবে শুধু কাগজে-কলমে। তাদের হাতে কোনো ক্ষমতা দেয়া হয়নি। কথায় কথায় তাদের বরখাস্ত করা হয়। তারা নির্বাচিত, তাদেরকে আপনারা (সরকার) বরখাস্ত করতে পারেন না। একদিনে তিন মেয়র বরখাস্ত! এটা কেমন কথা?

তিনি আরো বলেন, আমরা জনকল্যাণে কর্মসূচি দিতে চাই। আমরা হরতাল, বিশৃঙ্খলা ও জ্বালাও-পোড়াওয়ের রাজনীতি বিশ্বাস করি না। রাজনীতিবিদরা নিজের কল্যাণে নয়, জনগণের কল্যাণে। আমি সেই দিনের অপেক্ষায়। আজ থেকে স্লোগান হোক- নিজ বা দলের জন্য নয়, দেশের জন্য আমরা সবাই।

জাপা প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়ের সভাপতিত্বে কেন্দ্রীয় নেতা মুশফিকুর রহমানের সঞ্চালনায় যোগদান অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন দলের কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, সদ্য যোগদানকারী মাওলানা এস এম আল জুবায়ের এবং ডা. নুরুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে দলের কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেন, যারা মানুষকে বেশি করে বোকা বানাতে পারে তারাই আজ বড় রাজনীতিবিদ। এ থেকে আমাদের বের হতে হবে। সমাজকে এগিয়ে নিতে পারে রাজনীতিবিদরা। তারা যদি সঠিক রাজনীতি না দিতে পারে তাহলে সমাজের অধঃপতন ঘটে।

জাপা মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি বলেন, দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষ মুসলমান। হুজুর-মাওলানারা সম্মানিত ব্যাক্তি। দেশের অধিকাংশ হুজুর-মাওলানা হুসেইন মুহম্মদ এরশদের সাথে হাত মিলিয়ে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তাদের এই আগ্রহই আমাদেরকে আরো দ্রুত ক্ষমতায় প্রতিষ্ঠিত করতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে।

যোগদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য এমএ কাসেম, এসএম ফয়সল চিশতী, সোলাইমান আলম শেঠ, উপদেষ্টা সৈয়দ দিদার বখত, মোস্তফা জামান বেবী, ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নুরু, যুগ্ম মহাসচিব কাজী আশরাফ সিদ্দিকী, সাংগঠনিক সম্পাদক ইসহাক ভূঁইয়া, আমিরউদ্দিন ডালু, শাহজাহান মানসুর, এমএ রাজ্জাক খান, গোলাম মোস্তফা, সুমন আশরাফ, মাখন সরকার, রেজাউল করিম,

কেন্দ্রীয় নেতা জাহিদ বিপ্লব, আলহাজ্ব মোহাম্মদ মোহিবুল্লাহ, নাজিম চিশতী, আতাউর রহমান সরকার আতা, এ্যাড. আবু তৈয়ব, আব্দুস সাত্তার, বিডিয়ার মিলন, মোঃ মামুনুর রহিম, শেখ হুমায়ন কবির শাওন, রাশেদ মাজদার, মোঃ নুরুচ্ছাফা সরকার, মিজানুর রহমান দুলাল, খায়রুল আলম মামুন, মোস্তফা সেলিম বেঙ্গল, একেএম মোস্তফা প্রমুখ।

 

 

বার্তা প্রেরক
এম এ রাজ্জাক খান
যুগ্ম দফতর সম্পাদক
জাতীয় পার্টি, কেন্দ্রীয় কমিটি

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্টাফ রিপোর্টার

Bogra Offce

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com