সফিউল্লাহ আনসারী-এর একগুচ্ছ কবিতা

২৮ বার পঠিত

লতার মায়া

গতরাতে খোয়া গেছে লতার মায়া
সাথে গেছে স্বপ্নের রঙিন ঘুড়ি; সুতো ছেঁড়া
পড়ে আছে গুটি। আধাঁরেই শুধু হারায় ?
হারায় বহুত কিছু জ্বল জ্বলে সুর্যের আলোতেও!
নিয়মের দোহাইয়ে প্রতিদিন অনিয়মের দক্ষ জালিয়াত
চক্র চালায় সাম্রাজ্য।অসহায় রাজ্যের বেবাক বোকা-সোকা
মানুষগুলো রাতের পর দিন,দিনের পর রাত কাটায়।
আমি তাদেরই একজন।অধীকারের ঝুলা কাঁধে নিয়ে ঘুরি
সাহস পাইনা সোচ্চার হত; একা কিংবা মিছিলে-মিছিলে।

যায়না ভুলা

তোমার দেয়া বিষন্নতায় যাচ্ছি মরে
আমার এখন সময় কাটে অতীত স্মরে!

ভাবনগুলোও দিচ্ছে পীড়া বেজায়-বাজে
গভীর দহন করছে আঘাত বিষম লাজে!

উচ্চারণের ভাষাতে নেই আনন্দ আর হাসি
যায়না ভূলা তোকে;তাই বলছি ভালোবাসী!

যাচ্ছে যে দিন,বাড়তে ততোই ঘৃনা
কি লাভ হলো?আমায় ছেড়ে ‘তৃণা’!

দুর্ভোগ

জীবনের বাঁকে বাঁকে অসহনীয় দুর্ভোগ
নীতিহীন সময়ের কাছে ক্ষমতার বিস্তারে ভোগটাই
ছড়াচ্ছে কপটতা। নিস্তারহীনভাবনারা হতাসায়
আতুরঘরে মওে,পৃথীবির আলো দেখার আগেই।
আমিতো মানুষদের ভীড়ে মানুষ নামেই
বাঁচতে চাই;চাই নির্মল বায়ুতে নিতে
বাধাহীন নি:শ্বাস ।প্রভাবহীন সরল এবং
সারল্যে ভরপুর বাঁচতে !
কোন বিশেষনে বিশেষিত হয়ে থাকার দরকার কি?
মানুষ নামের চেয়ে বড় পরিচয় আরো আছে?
কোন মানুষের কাছে? আমার জানা নাই;
কিন্তু এই সমাজ ব্যাবস্থায় মনুষত্বের চেয়ে
মিথ্যে অহংবোধ ক্ষমতাকে করে মানবতার এক নম্বর
শত্রু ! মানুষের নিপিড়িত হওয়ার বড়
সমস্যা আজ ক্ষমতার দাপট! শান্তি খোঁজ মানুষ?
শান্তি? মিছে সব;বাহানার ছত্রছায়ায় কেবলী বাড়ে
জীবনের দেনা। যেখানে বেঁচে থাকাটাই
দু:সাধ্য;সেখানে মানুষ নামে দাবী
নিয়ে অবস্থান খুবই কঠিন;তবু
আমরা বাঁচি বিধির অতিশয়
কৃপায়;জীবনের দায় নিয়ে..!

তোমাকে

ঝিঝি পোকার শব্দের ছন্দময়তা
আবেগের ঢেউয়ে নতুন
মূর্ছনায় মনকে উতলা করে ।
যেমন রাত গভীরের তোমায় ছোঁয়া
মাতাল করে আমায়!
ভালোবাসী বলেই বুঝি হৃদয়ে আঙিনায়
তোলপার উঠে;তোমাকে ভাবলেই…..!

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com