আজ শুক্রবার, ৭ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং, ১লা মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী, শরৎকাল, সময়ঃ দুপুর ১২:২৩ মিনিট | Bangla Font Converter | লাইভ ক্রিকেট

বরিশাল বুলসকে ৭৮ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে টানা তৃতীয় জয় চিটাগং ভাইকিংসের

দাপুটে জয়ে চট্টগ্রাম পর্ব শেষ করলো তামিম ইকবালের চিটাগং ভাইকিংস। বরিশাল বুলসকে ৭৮ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে টানা তৃতীয় জয় তুলে নিল চিটাগং। ১৮৬ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে আট বল বাকি থাকতে ১০৭ রানেই গুটিয়ে যায় বরিশালের ইনিংস। দ্বিতীয় ওভারে দুই ওপেনার ডেভিড মালান (৫) ও নাদিফ চৌধুরীকে (৪) ফিরিয়ে জোড়া আঘাত হানেন আফগান অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নবী। পরের ওভারেই দুর্দান্ত ফর্মে থাকা শাহরিয়ার নাফিসের (১) উইকেট হারায় বরিশাল। তার স্ট্যাম্প ভাঙেন পেসার শুভাশিষ রায়।

চতুর্থ ওভারে এসে প্রথম বলেই জিভান মেন্ডিসকে (১) নিজের তৃতীয় শিকারে পরিণত করেন নবী। তাসকিন আহমেদের করা সপ্তম ওভারের শেষ বলে নবীর হাতেই ধরা পড়েন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম (১৯)। মুশফিকের পর থিসারা পেরেরাকে (০) বোল্ড করে ষষ্ঠ উইকেটের পতন ঘটান শোয়েব মালিক। নবম ওভারে রায়াদ এমরিতকে (৬) এলবিডব্লুর ফাঁদে ফেলেন তাসকিন। ৩৯ রানের মধ্যে সাত উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বরিশাল।

তবে অষ্টম উইকেট জুটিতে ৪২ রান যোগ করে দলীয় একশ’ পার করতে কার্যকরী ভূমিকা রাখেন এনামুল হক ও তাইজুল ইসলাম শোয়েব মালিক ও ডোয়াইন স্মিথের ঝড়ো ফিফটিতে পাঁচ উইকেট হারিয়ে চ্যালেঞ্জিং স্কোর দাঁড় করায় চিটাগং। রায়াদ এমরিতের করা শেষ ওভারের শেষ বলে আউট হওয়ার আগে ৩০ বলে ৬৩ রানের বিধ্বংসী ইনিংস উপহার দেন মালিক। ৯টি চারের পাশাপাশি ২টি ছক্কা হাঁকান অভিজ্ঞ পাকিস্তান অলরাউন্ডার। সাত রানে অপরাজিত থাকেন জহুরুল ইসলাম। দু’জনের পঞ্চম উইকেট জুটিতে আসে ১৬ বলে ৪৫।

বিপিএলে চট্টগ্রাম পর্বের শেষ ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন চিটাগং অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ওপেনিংয়ে ক্যারিবীয় তারকা স্মিথের সঙ্গে ৪৩ রানের পার্টনারশিপে দলকে ভালো শুরু এনে দেন তিনি। পাওয়ার প্লে’র শেষ ওভারে আউট হন তামিম (১৯)। পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বির করা ষষ্ঠ ওভারের চতুর্থ বলে আবু হায়দারের ক্যাচে পরিণত হন এ দেশসেরা ওপেনার।

তামিম ফিরলেও ঝড়ো ব্যাটিংয়ে রানের চাকা সচল রাখেন স্মিথ। ২৮ বলে ৬টি চার ও দুই ছক্কায় অর্ধশতক তুলে নেন। আনামুল হককে নিয়ে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে স্কোরবোর্ডে আরো ৩৯ রান তোলেন। ১১তম ওভারে আনামুলকে (১১) ডেভিড মালানের তালুবন্দি করেন লঙ্কান অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরা। দলকে চ্যালেঞ্জিং স্কোরের ভিত গড়ে দিয়ে ফেরেন স্মিথ। খেলেন ৪৯ বলে ৬৯ রানের দুর্দান্ত ইনিংস। তাতে ছিল ৬টি চার ও ৩টি ছক্কার মার। দলীয় ১২৯ রানের মাথায় পেরেরার ফুলটস বলে ডিপ মিডউইকেটে এনামুল ‍হকের হাতে ধরা পড়েন। ১৮তম ওভারে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা মোহাম্মদ নবীকে (৪) নিজের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত করেন রাব্বি।

এবারের আসরে দ্বিতীয়বারের মতো মুখোমুখি হলো দু’দল। ঘরের মাঠে চিটাগংয়ের প্রতিশোধ নেওয়ার চ্যালেঞ্জ। গত ১৪ নভেম্বরের ম্যাচটিতে ১৬৪ রানের লক্ষ্যটা সাত উইকেট ও দুই বল হাতে রেখে টপকে যায় বরিশাল। এদিকে, মঙ্গলবারের (২২ নভেম্বর) প্রথম ম্যাচটিতে খুলনা টাইটান্সকে সাত উইকেটে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করেছে রংপুর রাইডার্স। দুইয়ে নেমে গেছে মাহমুদউল্লাহর খুলনা।

স্কোরবোর্ড:
চিটাগং ভাইকিংস: ২০ ওভারে ১৮৫/৫ (তামিম ইকবাল ১৯), ডোয়াইন স্মিথ ৬৯, আনামুল হক ১১, শোয়েব মালিক ৬৩, মোহাম্মদ নবী ৪, জহুরুল ইসলাম ৭*; তাইজুল ০/৩৮, আবু হায়দার ০/৩৭, রাব্বি ২/২৯, রায়াদ এমরিত ১/৪১, থিসারা পেরেরা ২/৩৭)

বরিশাল বুলস: ডেভিড মালান ৫, নাদিফ চৌধুরী ৪, শাহরিয়ার নাফিস ১, মুশফিকুর রহিম ১৯, জিভান মেন্ডিস ১, রায়াদ এমরিত ৬, থিসারা পেরেরা ০, এনামুল হক ৪২*, তাইজুল ইসলাম ১২, আবু হায়দার ৯, কামরুল ইসলাম রাব্বি ৪; ‍সুভাশিষ রায় ২/১৬, মোহাম্মদ নবী ৩/১৬, সাকলাইন সজীব ০/১৬, তাসকিন আহমেদ ২/২০, শোয়েব মালিক ১/১৫, ইমরান খান ১/২৪)

ম্যাচের ফলাফল: চিটাগাং ভাইকিংস ৭৮ রানে জয়ী।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ: শোয়েব মালিক (চিটাগাং ভাইকিংস)।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com