আফ্রিদি ও সানির তাণ্ডবে শেষ টাইটান্স

৩১ বার পঠিত
আগের ম্যাচের মত কোন ক্লাইমেক্স ছিল না এ ম্যাচে। লাইম লাইটে ছিলেন করেও দেখালেন। বয়স ৩৭ ছুঁইছুঁই। আজ বা কাল ক্রিকেটকে বলে দিতে পারেন গুডবাই। এমন প্রান্তসীমায় এসেও বল হাতে থেমে নেই পাকিস্তানের তারকা অলরাউন্ডার শহিদ আফ্রিদির ঘূর্ণি জাদু। দেশের মাটিতে যেমন, বিদেশের মাটিতেও তেমন। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) এবার রংপুর রাইডার্সের হয়ে খেলছেন আফ্রিদি। প্রথম ম্যাচে ১ উইকেট নিলেও আজ খুলনা টাইটানসের বিপক্ষে স্বরূপে দেখা গেল তাঁকে।

একচেটিয়া খেলায় খুলনা টাইটান্সকে মাত্র ৪৪ রানে অলআউট করে ৯ উইকেটের দাপুটে জয়ে উড়ছে রংপুর রাইডার্স। টানা দুই ম্যাচ জিতে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থানটা আরো সুসংহত করলো তারা। ১২ ওভার হাতে রেখেই সহজ লক্ষ্যটা টপকে যায় রংপুর। সৌম্য সরকার ১৩ ও মোহাম্মদ মিথুন ১৫ রানে অপরাজিত থাকেন। দলীয় ১৬ রানের মাথায় আউট হন আগের ম্যাচে ৮০ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলা মোহাম্মদ শাহজাদ (১৩)। একমাত্র উইকেটটি নেন জুনাইদ খান। এর আগে টসে জিতে খুলনাকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানায় নাঈম ইসলাম।

বিপিএল ইতিহাসের সর্বনিম্ন স্কোরে অলআউট হওয়ার লজ্জায় ডোবে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের খুলনা টাইটান্স। আফ্রিদি-সানির স্পিন ঘূর্ণিতে ৯.২ ওভার বাকি থাকতেই গুটিয়ে যায় তাদের ইনিংস। গতবছর সিলেট সুপার স্টারসের বিপক্ষে ৫৮ রানে অলআউট হওয়ার অমর্যাকর রেকর্ড গড়েছিল বরিশাল বুলস।

খুলনার হয়ে সর্বোচ্চ ১২ রান আসে শুভাগত হোমের ব্যাট থেকে। বাকিদের রান অনেকটা মোবাইল ফোনের ডিজিটের ৬, ০, ৫, ২, ০, ৭, ৮, ০, ০, ০ । বাংলাদেশী স্পিনার আরাফাত সানি ও পাক তারকা শহিদ আফ্রিদির ঘূর্ণিতেই মূলত এদিন গুটিয়ে যায় মাহমুদউল্লাহ বাহিনী। আফ্রিদি ৩ ওভারে ১২ রান দিয়ে তুলে নেন ৪ টি উইকেট। পাকিস্তান আইকনকে ছাপিয়ে উঠে আসছে টাইগার স্পিনার সানির নাম।সানি ২.৪ ওভার বল করে কোন রান না দিয়েই তুলে নিয়েছেন ৩টি উইকেট। এর আগে বিপিএলের সর্বোনিম্ন স্কোরটি ছিল তৃতীয় আসরে বরিশাল বুলসের। ৫৮ রানের ওই স্কোরটি তারা করেছিল সিলেট সুপার স্টারসের বিপক্ষে ৬ ডিসেম্বর ২০১৫ সালে এই মিরপুরেই।

স্কোর কার্ড:
খুলনা টাইটান্স: ১০.৪ ওভারে ৪৪/১০ (আব্দুল মাজিদ ৬, নিকোলাস পুরান ০, রিকি ওয়েসেলস ৫, মাহমুদউল্লাহ ২, শুভাগত হোম ১২, অলক কাপালি ০, আরিফুল হক ৭, নুর আলম সাদ্দাম ৮, জুনায়েদ খান ০, মোহাম্মদ আসগর ০ শফিউল ইসলাম ০*; সোহাগ গাজী ১/৬, রুবেল হোসাইন ০/৮, আরাফাত সানি ৩/০, গ্লেসন ১/১৪, আফ্রিদি ৪/১২)

রংপুর রাইডার্স: ৮ ওভারে ৪৫/১ (মোহাম্মদ শেহজাদ ১৩, সৌম্য সরকার ১৩*, মোহাম্মদ মিথুন ১৫*; জুনায়েদ খান ১/১৪, মোহাম্মদ আসগর ০/৬, শুভাগত হোম ০/১০, নূর আলম সাদ্দাম ০/১৫)

ফল: রংপুর রাইডার্স ৯ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: শহিদ আফ্রিদি (রংপুর রাইডার্স)

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com