চতুর্থ দিন শেষে চালকের আসনে পাকিস্তান

১৫ বার পঠিত

দুবাই টেস্টে দ্বিতীয় ইনিংসকে দেবেন্দ্র বিশুর ৮ উইকেটের সুবাদে পাকিস্তানকে দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ১২৩ রানেই গুটিয়ে দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তা সত্ত্বেও চতুর্থ দিন শেষে চাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজই, কারণ প্রথম ইনিংসে যে তারা পিছিয়ে ছিল ২২২ রানে। রবিবার (১৬ অক্টোবর) দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে চতুর্থ দিনের খেলা শেষে ৩৪৬ রানের লক্ষ্য তাড়ায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৯৫ রান।

ড্যারেন ব্রাভো ২৬ ও মারলন স্যামুয়েলস ৪ রানে ব্যাট করছেন। জয়ের জন্য এখনো তাদের প্রয়োজন ২৫১ রার আর পাকিস্তানের দরকার ৮টি উইকেট। ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য কাজটা অবশ্য খুব কঠিন হবে। প্রথম তিন দিনে বোলাররা খুব একটা সহায়তা না পাওয়ায় সব মিলিয়ে পতন হয় ৯ উইকেট। কিন্তু চতুর্থ দিনে পিচে স্পিন ধরার পর তিন ইনিংস মিলিয়ে পড়েছে ১৬ উইকেট।

লেগ স্পিনার দেবেন্দ্র বিশুর ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে দুবাই টেস্টে তাড়ার করার মতোই লক্ষ্য পায় জেসন হোল্ডারের দল। তবে চতুর্থ দিনের শেষ বেলায় দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানকে বিদায় করে প্রতিপক্ষকে চাপে রেখেছেন পাকিস্তানের পেসার মোহাম্মদ আমির। এর আগে পাকিস্তানকে দ্বিতীয় ইনিংসে ১২৩ রানে গুটিয়ে দিতে ৪৯ রানে ৮ উইকেট নেন বিশু। টেস্টে কোনো ইনিংসে এটি তার সেরা বোলিং। দিনের শুরুতে ৬ উইকেটে ৩১৫ রান নিয়ে খেলতে নেমে ৩৫৭ রানে গুটিয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস।

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ফলোঅন না করানো পাকিস্তান দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই হারায় প্রথম ইনিংসে অপরাজিত ত্রি-শতক করা আজহার আলিকে। আসাদ শফিককে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে নিজের প্রথম ওভারেই আঘাত হানেন বিশু। সামি আসলাম শুরুর ধাক্কা সামলে দলকে ৩ উইকেটে ৯৩ রানে পৌঁছে দেন। ৬১ বলে চারটি চারে ৪৪ রান করে এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ফিরে গেলে দিক হারায় পাকিস্তান। প্রথম ইনিংসে সাদামাটা বোলিং করা বিশু দ্বিতীয় ইনিংসে পেয়েছেন বিশাল টার্ন। তার গুগলিগুলোও সমস্যা ফেলেছে পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানদের। থিতু হওয়া বাবর আজম, মিসবাহ-উল-হককে বোল্ড করেন এই বিশু।

বল ছেড়ে দিয়ে লেগ স্পিনারের বিশাল টার্নে বোল্ড হন মোহাম্মদ নওয়াজ। সীমানায় থাকা একমাত্র ফিল্ডারকে ক্যাচ দেন ওয়াহাব রিয়াজ। ৮ উইকেটে ১২১ রানে দ্বিতীয় দ্বিতীয় সেশন শেষ করে পাকিস্তান। তৃতীয় সেশনে মাত্র পাঁচ বল স্থায়ী হয় দলটির ইনিংস। বিশুর প্রথম বলে এগিয়ে এসে খেলতে গিয়ে স্টাম্পড হন ভরসা হয়ে টিকে থাকা সরফরাজ আহমেদ। আমিরকে বোল্ড করে ৩১.৫ ওভারে পাকিস্তানের ইনিংস গুটিয়ে দেন বিশু। ৩০ রানের মধ্যে শেষ ৭ উইকেট হারায় পাকিস্তান। বিশুর ৮ উইকেট ছাড়াও গ্যাব্রিয়েল এবং জেসন হোল্ডার একটি করে উইকেট দখল করেন।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com