বদলা নিতে পারবে মাশরাফিরা?

৭১ বার পঠিত

২০১৪ সালের মাঝামাঝি থেকে গত বছরের ডিসেম্বরে নিউজিল্যান্ড সফরের পুর্ব পর্যন্ত ক্রিকেটে ধারাবাহিক সাফল্য পেয়েছে বাংলাদেশ। বিশেষ করে ওয়ানডেতে। এ সময়ে দেশের মাটিতে একাধিক সিরিজ জিতেছে টাইগাররা। ব্যাতিক্রম শুধু নিউজিল্যান্ডের মাঠে ব্ল্যাক ক্যাপসদের কাছে ধবলধোলাই। তবে বদলা নেয়ার একটা সুযোগ এসেছে মাশরাফিদের সামনে। বুধবার (১৭ মে) ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে লাল সবুজের দলের প্রতিপক্ষ সেই নিউজিল্যান্ড। এদিন বাংলাদেশ সময় বিকেল পৌনে চারটায় ডাবলিনের ক্লোনটার্ফে শুরু হবে ম্যাচটি। টাইগাররা কি পারবে বদলা নিতে?

অবশ্য ঘরের মাঠে অন্তত দুইবার নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করেছে বাংলাদেশ। তবে সেটি এখন পুরানো খবর। কারণ, সর্বশেষ নিউজিল্যান্ড সফরে টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে ধবলধোলাইয়ের নোনা স্বাদ পেয়েছে টাইগাররা। কিন্তু নিউজিল্যান্ডে ঐ সফরে সহজেই হার মানেনি টাইগাররা। ঘাম ঝড়িয়েই জিততে হয়েছে গাপটিল-টেইলরদের।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ২৮ ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। এরমধ্যে ৮টিতে হার মেনেছে টাইগাররা। অপরদিকে ২০টিতে জিতেছে নিউজিল্যান্ড। তবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের স্মরনীয় জয়ও আছে। ২০১০ ও ২০১৩ সালে দু’টি ওয়ানডে সিরিজে নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা দিয়েছিলো টাইগাররা। দেশের মাটিতে ৪ ম্যাচ ও ৩ ম্যাচের সিরিজে কিউইদের নাকানি-চুবানি দেয় বাংলাদেশ। তবে সর্বশেষ তিন ম্যাচের সিরিজে বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা দেয় নিউজিল্যান্ড। গত ডিসেম্বরে দেশের মাটিতে বাংলাদেশকে ৩-০ ব্যবধানে হারায় নিউজিল্যান্ড।

এদিকে ত্রিদেশীয় সিরিজে স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচটি বৃষ্টিতে পরিত্যাক্ত হয়েছে। ফলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছে দু’দল। ঐ ম্যাচে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং করতে নামে ৩১ দশমিক ১ ওভার পর্যন্ত ব্যাটিং করে ৪ উইকেটে ১৫৭ রান সংগ্রহ করেছিল বাংলাদেশ। দলের পক্ষে ওপেনার তামিম ইকবাল অপরাজিত ৬৪ ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ অপরাজিত ৪৩ রান করেন। পরবর্তীতে বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়ে যায় খেলা। এতে ২ পয়েন্ট করে ভাগাভাগি করে দু’দল।

প্রথম ম্যাচে পয়েন্ট ভাগাভাগি করলেও, আত্মবিশ্বাসে ভরপুর হয়েই নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। কারণ ত্রিদেশীয় সিরিজের আগে তিনটি প্রস্ততি ম্যাচেই দারুন পারফরমেন্স করেছে টাইগাররা। বিশেষভাবে ব্যাটসম্যানরা। তিন ম্যাচে সর্বমোট ১০৫৩ রান করেছেন তারা। তাই তিনটির মধ্যে দু’টিতে জয় পায় বাংলাদেশ। অনুশীলন ম্যাচের অভিজ্ঞতা নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে কাজে লাগাতে চাইবে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ দল (সম্ভাব্য): মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, রুবেল হোসেন, ইমরুল কায়েস, নাসির হোসেন, শফিউল ইসলাম, সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, মোস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ, মোসাদ্দেক হেসেন, নুরুল হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ, শুভাশিষ রায় ও সানজামুল ইসলাম।

নিউজিল্যান্ড দল (সম্ভাব্য): টম লাথাম (অধিনায়ক), নিল ব্রুম, কলিন মুনরো, হেনরি নিকোলস, সেথ রেন্স, মিচেল স্যান্টনার, রস টেইলর, জর্জ ওয়াকার, হামিশ বেনেট, স্কট কুগিলজন, জেমস নিশাম, জিতেন প্যাটেল, লুক রঞ্চি (উইকেটরক্ষক), ইশ সোধি ও নিল ওয়াগনার।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com