মেসিরই হচ্ছে পিচিচি, গোল্ডেন বুট!

৮৭ বার পঠিত

এটা পরে মাঠ দাপিয়ে বেড়ানো যায় না। এ জুতা পায়ে গলানোর কথাও আসলে ভাবা সম্ভব নয়। তবু ইউরোপের ‘সোনার জুতা’ পেতে সর্বস্ব ঢেলে দেন নামীদামি সব ফরোয়ার্ড। তবে এবার ইউরোপিয়ান গোল্ডেন শু-র দৌড়টা একটু একপেশে হয়ে উঠেছে। নাটকীয় কিছু না হলে এবার এ পুরস্কার লিওনেল মেসির দখলে প্রায় চলেই গেছে!

এক মাস আগেও দৌড়টা জমেছিল বেশ। কিন্তু মৌসুমের শেষ দিকে সব আগ্রহে জল ঢেলে দিয়েছেন মেসি। শুক্রবার রাত পর্যন্ত লিগে ৩০ ম্যাচে ৩৩ গোল করে ফেলেছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। লা লিগায় তাঁর পরেই আছেন বার্সা সতীর্থ লুইস সুয়ারেজ। তবে মেসির চেয়ে ১০ গোল কম করেছেন উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার। সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর চেয়েও এগিয়ে আছেন ১৩ গোলে। তাই এ বছর পিচিচি ট্রফিটা (লা লিগার সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার) একরকম বগলদাবা করে নিয়েছেন মেসি। তিন বছর ধরে যে পুরস্কারটা রোনালদো আর সুয়ারেজই নিয়ে নিচ্ছিলেন বারবার। এবার জিতলেই রোনালদোকে (তিনবারের পিচিচি বিজয়ী) টপকে ফেরেঙ্ক পুসকাসকে (চারবার) ধরে ফেলবেন মেসি। তাঁর সামনে থাকবেন শুধু হুগো সানচেজ, কুইনি, আলফ্রেডো ডি স্টেফানো (পাঁচবার) ও তেলমো জারা (ছয়বার)।

সে তুলনায় ইউরোপের সেরা হতে একটু অপেক্ষায় থাকতে হবে মেসিকে। মাত্র এক মাস আগেও এ দৌড়ে অপ্রত্যাশিতভাবে এগিয়ে ছিলেন স্পোর্টিং ক্লাব ডি পর্তুগালের ডাচ স্ট্রাইকার বাস দস্ত। পর্তুগিজ লিগে ২৩ ম্যাচে ২৪ গোল করে ফেলেছিলেন দস্ত। ২৩ গোল নিয়ে পিছিয়ে ছিলেন মেসি। তাঁর সঙ্গে সমতায় ছিলেন পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াং। সে তুলনায় রোনালদো পিছিয়ে ছিলেন না খুব একটা, ১৯ গোল ছিল রিয়াল ফরোয়ার্ডের। কিন্তু গত ১২ মার্চ রিয়াল বেটিসের বিপক্ষে গোল করার পর অবশেষে কাল লা লিগায় গোল পেয়েছেন রোনালদো।

এরপর জোড়া গোলের পসরা সাজিয়ে পাঁচ ম্যাচে ১০ গোল করেছেন মেসি। পর্তুগিজ প্রিমেরা লিগায় দস্ত করেছেন শুধু ৪ গোল। ফলে মেসি এগিয়ে গেছেন ৫ গোল কিংবা ১০ রেটিংয়ে। দস্তের (২৮ গোল) পর আছেন বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের অবামেয়াং (২৭ গোল)। এডিনসন কাভানি ৩১ গোল করলেও যেহেতু ফরাসি লিগের রেটিং ১.৫, মেসির চেয়ে ১৯.৫ পয়েন্টে পিছিয়ে আছেন পিএসজি স্ট্রাইকার। তাই তিন বছর পর মেসির ইউরোপিয়ান শু জেতার সম্ভাবনাটা বেশ উজ্জ্বল। চতুর্থবারের মতো ইউরোপের সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়ে সে ক্ষেত্রে রোনালদোকে ছুঁয়ে ফেলবেন মেসি।

চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বার্সেলোনা ছিটকে গেলেও ব্যক্তিগত একটা অর্জন কিন্তু হাতছানি দিচ্ছে মেসিকে। এ মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে ১১ গোল করেছেন মেসি। আর কোয়ার্টার ফাইনালে হ্যাটট্রিকের পরও রোনালদোর গোল ৭। হাতে অন্তত দুই ম্যাচ পাচ্ছেন, তাতে রোনালদো ৪ গোল করতে না পারলে এবারের সর্বোচ্চ গোলদাতা মেসিই হচ্ছেন।

সূত্র: মার্কা।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com