হায়দরাবাদের বিপক্ষে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ৪ উইকেটে জয়

৬৯ বার পঠিত

কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান টিমে ফিরলেও জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে পারেনি সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। মুস্তাফিজের প্রথম ম্যাচে ৪ উইকেটে আইপিএলের ১০ম আসরের প্রথম হারের তিক্ত স্বাদ পেল হায়দরাবাদ। আর মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স পেল তাদের টানা দ্বিতীয় জয়। বুধরার (১২ এপ্রিল) রাতে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নামে হায়দারাবাদ। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৫৮ রান করতে সমর্থ হয় মোস্তাফিজের হায়দারাবাদ।

১৫৯ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ৬ উইকেট হারিয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারের ৮ বল বাকি রেখেই তাদের গন্তব্যে পৌঁছে যায়। প্রথম ২ ম্যাচে দাপট দেখিয়ে জয় পাওয়া হায়দরাবাদ ব্যাটিং করতে নামে। স্বাগতিক মুম্বাইয়ের বোলারদের বেশ ক্লান্ত করে তুলেছিলেন ২ ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও শিখর ধাওয়ান। ওয়ার্নার ৩৪ বলে ৭টি চার ২টি ছয়ে ৪৯ রানে হরভজন সিংয়ের শিকার হন পার্থিব প্যাটেলকে ক্যাচ দিয়ে। ধাওয়ানের ৪৩ বলে ৪৮ রানের ইনিংস থামে মিচেল ম্যাকক্লেনাঘানের কাছে বোল্ড হয়ে।

হরভজনের জোড়া আঘাতের পর যশপ্রীত বুমরার বলে ভেঙে পড়ে হায়দরাবাদের ব্যাটিং লাইন আপ। দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছানো ৩ ব্যাটসম্যানের মধ্যে অন্যজন হলেন বেন কাটিং (২০)। হায়দরাবাদকে ৮ উইকেটে ১৫৮ রানে বেধে দিতে মূল অবদান বুমরা ও হরভজনের। বুমরা নিয়েছেন ৩ উইকেট ও হরভজন নিয়েছেন ২ উইকেট।

প্যাটেলের ২৪ বলে ৩৯ রানের ঝোড়ো ইনিংসের পর নিতিশ রানা দলকে জয়ের ভিত্তি গড়ে দেন। কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে দুর্দান্ত ইনিংস খেলা এ ব্যাটসম্যান ৩৬ বলে ৩টি চার ও ২টি ছয়ে ৪৫ রান করেন। জয় থেকে ৪ রান দূরে থাকতে ভুবনেশ্বর কুমারের বলে বোল্ড হন তিনি। তার সঙ্গে ক্রুনাল পান্ডের ২০ বলে ৩৭ রানের ইনিংস ছিল উল্লেখযোগ্য। সবশেষে ১৮.৪ ওভারে ৬ উইকেটে ১৫৯ রান করে জয় নিশ্চিত করে মুম্বাই।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com