পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিয়ে এমার্জিং কাপে শ্রীলঙ্কা চ্যাম্পিয়ন

৮০ বার পঠিত

বল হাতেই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কাজটা আগেভাগে করে রেখেছিলেন শ্রীলঙ্কার বোলাররা। মঙ্গলবার চট্টগ্রামে এরপর ব্যাটসম্যানদের খুব কষ্ট হয়নি এমার্জিং কাপের শিরোপা জিতে উৎসবে মাততে। জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে পাকিস্তানকে ৫ উইকেটে উড়িয়ে দিয়ে শ্রীলঙ্কা হয়েছে চ্যাম্পিয়ন। উড়িয়ে দেয়া বলা হচ্ছে এই কারণে যে ফাইনালকে পুরোপুরি একপেশে খেলা বানিয়ে জিতেছে লঙ্কানরা। প্রথমে তাদের বোলিং তোপে ৪২.১ ওভারে ১৩৩ রানেই পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-২৩ দল অল আউট হয়। এরপর একটা পর্যায়ে সামান্য ধাক্কা খেলেও মাত্র ২৩.৫ ওভারে শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব-২৩ দল ‘চ্যাম্পিয়ন’!

হঠাৎ বাংলাদেশে চলে আসা এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের এই টুর্নামেন্টটা ৮ জাতির। চারটি টেস্ট জাতির অনূর্ধ্ব-২৩ দলের সাথে আইসিসির সহযোগী সদস্য দেশের চার দলের জাতীয় দলই প্রায়। সেখানে শ্রীলঙ্কার কাছে সেমিফাইনালে হেরে মুমিনুল-নাসিরদের বাংলাদেশ বিদায় নেয়। স্বাগতিকদের যেভাবে সহজে হারিয়েছিল লঙ্কানরা তার চেয়ে সহজে জিতে শিরোপা উৎসবে মাতার সুযোগ এখন তাদের সামনে।

টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমেই বুঝি ভুল করেছিল পাকিস্তান! পঞ্চম ওভার থেকে উইকেট হারাতে শুরু করে তারা। ৪২ রানেই নেই ৪ উইকেট। প্রতিপক্ষের শুরুর ক্ষতিটা করেছেন পেসার শামিকা করুনারত্নে। তবে এরপর থেকে উইকেট ভাগাভাগির প্রতিযোগিতা। ৪ উইকেট হারিয়েই ৭৪ রানে পৌঁছে কিছুটা ধাক্কা সামলেছিল পাকিস্তান।

কিন্তু এরপর ১১ রানেই ফিরে আসেন পাকিস্তানের তিন ব্যাটসম্যান। লঙ্কান বোলাররা যেভাবে চেপে ধরেছিলেন তাতে পাকিস্তানের স্কোর বড় করা নিয়েই সমস্যা তখন। জুটি হচ্ছে না। অষ্টম উইকেটে ইনিংস সর্বোচ্চ ৪৭ রানের জুটি এরপর। ৭ উইকেটে ১৩২ রানে গিয়ে আবার ১ রানের মধ্যে তিন উইকেট হারিয়ে শেষ পাকিস্তান! তাদের অধিনায়ক মোহাম্মদ রিজওয়ান (২৬), খুশদিল শাহ (২০), হাম্মাদ আযম (২৫) আর উসামা মির (২৬) কেবল কিছু রান করেছেন। শামিকা ২ উইকেট নিয়েছেন। তবে শিহানই সেরা বোলার। ৬ ওভারে ২২ রানে ৩ উইকেট তুলে নিয়ে পাকিস্তানকে তিনিই ঠেলে দিয়েছিলেন শেষের পথে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com