শততম টেস্টে টাইগারদের বিশেষ উপহার, শ্রীলঙ্কা সংগ্রহ : ১৯৮/৭

৮১ বার পঠিত

বাংলাদেশের শততম টেস্ট নিয়ে বিশেষ আয়োজন ছিল দুই বোর্ডের পক্ষ থেকেই। সেই লক্ষ্যে স্থানীয় সময় সকাল দশটায় টস হওয়ার পর দুই দলের অধিনায়ক নিজেদের মধ্যে পতাকা বদল করেছেন। এরপর মাঠের এক কর্নারে শততম টেস্ট উদযাপনে বিশেষ আয়োজন পর্বটি অনুষ্ঠিত হয়। প্রথমেই দুই দেশের জাতীয় সংগীত বাজানো হয়। এর সঙ্গে দুই দেশের পতাকা ও আইসিসিরি পতাকা উত্তোলন করা হয়। শ্রীলঙ্কায় অবস্থিত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ও বিসিবি সভাপতি বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করেন এসময়।এর কিছুক্ষণ বাদেই বাংলাদেশের শততম টেস্ট উপলক্ষে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের তরফ থেকে বাংলাদেশ ও লঙ্কান খেলোয়াড়দের মেডেল প্রদান করা হয়। বিসিবি সভাপতি ও শ্রীলঙ্কান সভাপতি থিলাঙ্গা সুমাথিপালা ক্রিকেটারদের মধ্যে এই মেডেল বিতরণ করেন। সোনালি রঙের স্মারক মেডেলটিতে লেখা রয়েছে, ‘Congratulation On The Century Test Match Played By Bangladesh.’ মেডেলগুলোতে ব্যবহার করা হয়েছে সবুজ রঙের রিবন।

এছাড়া লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকেও দিয়েছে বিশেষ উপহার। হাতির একটি মূর্তিকে রূপালি রঙের প্রলেপ দিয়ে সুন্দর করে সাজিয়ে কাঁচের বাক্সের ফ্রেম আকারে তুলে দেওয়া হয় বিসিবি সভাপতির হাতে। এদিকে টস শেষেই বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা তাদের জন্য বানানো বিশেষ ব্লেজার উপহার পেয়েছেন। ব্লেজারে লেখা রয়েছে,‘100th Test, Bangladesh Cricket Board’। সঙ্গে রয়েছে বিসিবির লোগো। সবশেষে বেলুন উড়িয়ে শততম টেস্ট উদযাপনের বিশেষ আয়োজন শেষ করা হয়।

২০০০ সালে প্রথম টেস্টে টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছিলেন নাঈমুর রহমান। ১৬ বছর ৪ মাস ৬ দিন পর শততম টেস্টে টস হেরে বল পেলেন মুশফিকুর রহিম। ঠিক আগের টেস্টটি হারতে হয়েছে টাইগারদের। তাই শততম টেস্টটি স্মরণীয় করে রাখতে বদ্ধ পরিকর মুশফিক বাহিনী। টেস্টের নবীনতম সদস্য দলটি দ্রততম সময়ে খেলছে শততম টেস্ট। এই রেকর্ডের সঙ্গে জয় শব্দটিও যোগ চায় বাংলাদেশ। আজ দলে চার পরিবর্তন নিয়ে মাঠে বাংলাদেশ।

আর শততম টেস্টে খেলতে নেমে টসে হেরে বোলিংয়ে নামে বাংলাদেশ। বোলিংয়ে আগুন ঝড়াচ্ছেন মুস্তাফিজ-মেহেদীরা। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৬৮ ওভারে ১৯৮/৭ রান। কাটার মাস্টার মুস্তাফিজের পর লঙ্কান দুর্গে জোড়া আঘাত হানলেন তরুণ স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ। তার ঘূর্ণি-বলে বিভ্রান্ত হয়ে স্টাম্পিংয়ের শিকার হলেন প্রথম টেস্টের ১৯৪ রান করা কুশল মেন্ডিস। পরের ওভারে এসে আবারও শিকার ধরলেন তিনি। এবার সৌম্য সরকারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন ওপেনার উপল থারাঙ্গা (১১)। ২৪ রানে দ্বিতীয় এবং ৩৫ রানে তৃতীয় উইকেটের পতন ঘটে শ্রীলঙ্কার।

মধ্যাহ্ন বিরতির আগে বোলিং পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেন দলের স্কিপার মুশফিকুর রহিম। আর এতেই কাজ দেয়। প্রথম সেশন শেষ হওয়ার আগে দলীয় ৭০ রানে গুনারত্নেকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন শুভাশিষ। এরআগে তিনি করেন ১৩ রান। এরপরেই শুুরু হয় মধ্যাহ্ন বিরতি। প্রথম ৩ ওভারে কোনো রান করতে পারেনি শ্রীলংকান ব্যাটসম্যানরা। চা বিরতির পর ষষ্ঠ ওভারে শ্রীলঙ্কান শিবিরে আঘাত হানেন সাকিব আল হাসান। বাঁহাতি স্পিনারের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন নিরোশান ডিকভেলা (৩৪)। এরপর কাটার মাস্টার মুস্তাফিজের শিকার হন পেরেরা ৯ রান। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৬৮ ওভারে ১৯৮/৭ রান।

এদিকে নেটে চোট পাওয়া লিটন দাস ছিটকে গিয়েছিলেন আগের দিনই। মাহমুদউল্লাহর বাইরে থাকার ঘোষণাও এসেছিল আগে। তবে এই দুটির সঙ্গে পরিবর্তন আরও দুটি। রাখা হয়নি মুমিনুল হক ও শুভাশীষ রায়কেও। দলে ফিরেছেন ইমরুল কায়েস, সাব্বির রহমান, তাইজুল ইসলাম। অভিষেক হচ্ছে মোসাদ্দেক হোসেনের। শ্রীলঙ্কা দলে পরিবর্তন একটি। পেসার লাহিরু কুমারার জায়গায় আরও একজন ব্যাটসম্যান বাড়িয়েছে তারা। দলে ফিরেছেন ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। মানে লঙ্কানরা খেলছে এক পেসার নিয়ে।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, মোসাদ্দেক হোসেন, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com