রাজধানীসহ সারাদেশে শ্মশানে চলছে দিপালী উৎসব

৩৪ বার পঠিত

রাজধানীসহ সারাদেশের শ্মশানে চলছে শ্মশান দিপালী উৎসব। প্রতি বছর ভূত চতুর্দশী পূণ্য তিথিতে অনুষ্ঠিত হয় এই উৎসব। সমাধিতে দীপ জ্বালিয়ে, কিংবা হারানো মানুষের পছন্দের খাবারের পসরা সাজিয়ে বসা হয় প্রার্থনায়। গভীরভাবে স্মরণ করা হয় প্রিয় মানুষটিকে। এদিকে, এই উৎসবকে ঘিরে রাজধানীর প্রতিটি শ্মশানে নিরাপত্তা রক্ষায় র‍্যাব, পুলিশ, আনসারসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের দায়িত্ব পালন করতে দেখা দেখ্ গেছে।

হারানো স্বজনদের স্মরণের অনুষ্ঠানকে ঘিরে শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে শুরু হয় এই আয়োজন। উৎসব চলবে শনিবার ভোর পর্যন্ত। সন্ধ্যায় প্রদীপের আলোতে আলোকময় হয় শ্মশানসহ পুরো এলাকা। মৃতদের স্বজনরা ছাড়াও আসেন হাজারো দর্শনার্থী। প্রিয়জনের স্মৃতির উদ্দেশ্যে দীপ জ্বেলে দেয়ার এই রেওয়াজ চলছে প্রায় দেড়শ’ বছর ধরে। এবারও এই উৎসবে যোগ দিতে এসেছেন দেশ-বিদেশ থেকে হাজারো মানুষ। পূর্ব পুরুষের সমাধিতে তার স্মৃতির উদ্দেশ্যে জ্বালিয়ে দিচ্ছেন আলোর রোশনাই। প্রিয়জনের স্মৃতিতে মোমের আলো জ্বালানো ছাড়াও সমাধিতে তার প্রিয় খাদ্যসহ নানা উপাচার ও ফুল দিয়ে সমাধি সাজিয়ে তোলা হয়। পূর্বপুরুষের স্মৃতিতে করা হয় প্রার্থনা।

রাজধানীর পোস্তগোলা শ্মশান, লালবাগ শ্মশান, ঠাঁটারীবাজার, শাঁখারীবাজার, তাঁতিবাজার, ফরাশগঞ্জ, লক্ষ্মীবাজার, বাংলাবাজার, সূত্রাপুর, দয়াগঞ্জ, শ্যামবাজার, কোতয়ালী, উত্তর মুশুণ্ডী, দক্ষিণ মুশুণ্ডী, নারিন্দা, যুগীনগর, নবাবপুর, রাজারবাগ, বাড্ডা, পান্নিটোলা, মতিঝিল, রমনা, গুলশান, মোহাম্মদপুর, মিরপুর ও শ্যামপুরসহ বিভিন্ন শ্মশান ঘুরে দেখা যায়, সমাধি সৌধে দীপ জ্বালিয়ে মৃত ব্যক্তির ছবি ফুল চন্দন দিয়ে সাজিয়ে রাখা হচ্ছে সমাধির ওপর। প্রিয়জনের উদ্দেশ্যে খাবার-দাবারও দেয়া হয়েছে অনেক সমাধিতে। সেই সঙ্গে জ্বালিয়ে দেয়া হয় ধুপ ও ধুপকাঠি। ডিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) মাসুদর রহমান জানান, দিপালী উৎসব নির্বিঘ্ন করতে নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com