আবুল হোসেনের মর্যাদা ফিরিয়ে দেয়া উচিত: বি চৌধুরী

১০৬ বার পঠিত

সাবেক যোগাযোগ মন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেনকে মন্ত্রিত্ব ফিরিয়ে দিয়ে তার মর্যাদা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করার দাবি জানিয়েছেন বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট ও সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ.কিউ.এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। এ ছাড়া সৈয়দ আবুল হোসেন এবং সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আবুল হাসান চৌধুরীকে দুদক যে হেনস্থা করেছে সেই ব্যাপারে দুদকের ভুল স্বীকার করে বক্তব্য দেয়াও উচিত বলে মনে করেন তিনি। কানাডার একটি আদালত পদ্মা সেতু নিয়ে বিশ্বব্যাংকের দুর্নীতির অভিযোগ খারিজ করে দেয়ার খবর জেনে বি. চৌধুরী মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির ভুয়া অভিযোগ তুলে ২০১৩ সালে এই প্রকল্পের অর্থায়ন থেকে ফিরে যায় বিশ্বব্যাংক। তৎকালীন যোগাযোগ মন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেনকেও কথিত এই দুর্নীতি ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জড়ানো হয়। অভিযোগ উঠার পর যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বের পাশাপাশি আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক সম্পাদকের পদটিও হারান সৈয়দ আবুল হোসেন। গত শুক্রবার কানাডার একটি আদালত বিশ্বব্যাংকের অভিযোগকে গালগপ্প এবং গুজব বলে উড়িয়ে দেয়। এই রায়টির বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য বাংলাদেশে প্রকাশ হয় শনিবার। এরপরই বিশ্বব্যাংককে জবাবদিহি করার পাশাপাশি এই মামলার কারণে ক্ষতিগ্রস্তদের কী হবে সে নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই। সৈয়দ আবুল হোসেন আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে ফিরছেন বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

বি চৌধুরী বলেন, ‘যেহেতু ভুল তথ্যের কারণে সৈয়দ আবুল হোসেন মন্ত্রিত্ব থেকে বঞ্চিত হয়েছিলেন সেহেতু পুনরায় মন্ত্রিত্ব দিয়ে তার মর্যাদা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করা উচিত বলে আমি মনে করি।’ বিবৃতিতে বি. চৌধুরী আরও বলেন, ‘দুদক যেভাবে সৈয়দ আবুল হোসেন এবং সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আবুল হাসান চৌধুরীকে একটি ভুল তথ্যের কারণে হেনস্থা করেছে সে জন্য দুদকের পক্ষ থেকে বক্তব্য দিয়ে ভুল স্বীকার করা উচিত বলে দেশবাসী মনে করে।’

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com