ভাসানীর জন্ম না হলে বাংলাদেশ হতো না : কাদের সিদ্দিকী

মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তব্য দিচ্ছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী। মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর জন্ম না হলে বাংলাদেশের সৃষ্টি হতো না বলে মন্তব্য করেছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে টাঙ্গাইল জেলার সন্তোষে মওলানা ভাসানীর ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় কাদের সিদ্দিকী এ কথা বলেন। এর আগে তাঁর নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা ভাসানীর মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের নেতা বলেন, ‘মওলানা ভাসানীর জন্ম না হলে বাংলাদেশ সৃষ্টি হতো না। আর দেশ না হলে আমরাও হতাম না। সেই ভাসানীকে জাতীয় ও সরকারি উদাসীনতায় ভুলিয়ে দেওয়ার পেছনে কায়েমি স্বার্থ কাজ করছে।’

কাদের সিদ্দিকী আরো বলেন, ‘মওলানা ভাসানী চিরকাল ছিলেন সাধারণ মানুষের। কিন্তু দেশ এখন আর সাধারণ মানুষদের নেই। দেশে গরিব ও সাধারণ মানুষের মর্যাদা-অধিকার নেই। দেশ এখন পুঁজিবাদী, অর্থশালী ও শিল্পপতিদের হয়ে গেছে।’ এ সময় তিনি আরো বলেন, ‘ভাসানীকে স্মরণ করলে সাধারণ মানুষ সম্মানিত ও উজ্জীবিত হবে। এটা করা গেলে যাঁরা এখন দেশ পরিচালনা করছেন, তাঁদের সবার অসুবিধা হবে। আর এ জন্যই ধীরে ধীরে তাঁরা ভাসানীকে ভুলিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন।’

সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ভাসানীর মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও ফাতেহা পাঠের মাধ্যমে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আলাউদ্দিন মৃত্যুবার্ষিকীর এ কর্মসূচি শুরু করেন। এরপর ভাসানী পরিবারের পক্ষ থেকে তাঁর সমাধিতে ফুল দেওয়া হয়। দিনের কর্মসূচির মধ্যে সমাধি প্রাঙ্গণে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আলোচনা সভা ছাড়াও জেলা বিএনপি ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

এ ছাড়া জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে জেলার সভাপতি ফজলুর রহমান খান ফারুকসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা ভাসানীর মাজারে ফুল দেন।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
১৯ বার পঠিত
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com