বিশ্ব দিবস ও ব্যাক্তি জীবনে এর প্রয়োগ । সফিউল্লাহ আনসারী

ব্যাক্তি জীবনে মিতব্যয়ি হওয়া সকলের জন্য সমানভাবে প্রযোজ্য। মিতব্যায়িতার প্রয়োগ পরিবার,সমাজ ও রাষ্ট্রের অর্থনৈতিক সুফল বয়ে আনতে পারে। পরিবার,সমাজ ও জাতির কল্যাণে মিতব্যয়ী হওয়ার কথা স্মরণ করিয়ে দিতে প্রতিবছর ৩১ অক্টোবর সারা বিশ্বে ‘বিশ্ব মিতব্যয়িতা দিবস’পালিত হয়।
“১৯২৪ সালে ‘মিলানে’ অনুষ্ঠিত বিশ্বের বিভিন্ন সঞ্চয় ব্যাংকের প্রতিনিধিদের প্রথম বিশ্ব কংগ্রেসে গৃহীত এক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দিবসটি পালন শুরু হয়। সেই থেকে সঞ্চয় ব্যাংকগুলো আন্তর্জাতিকভাবে দিবসটি পালন করে আসছে।”বাংলাদেশেও বিভিন্নভাবে দিবসটি একই দিনে পালিত হয় । জাতীয় সঞ্চয় পরিদপ্তর এ উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচিগ্রহণ পালন করে থাকে।

সমৃদ্ধি ও সপদের জন্য সঞ্চয়ের মনোভাব তৈরীতে দিবসটি গুরুত্ব বহন করে। একজন ব্যাক্তি তার পরিবার,সমাজ ও রাষ্ট্রকে অর্থনেতিক সমৃদ্ধ দিতে মিতব্যায়িতার কোন বিকল্প নেই।‘বিশ্ব মিতব্যয়ী দিবস’ সকল স্তরের লোকদের সচেতন করে তুলতে পালিত হয়। মানুষ সামাজিক জীব হিসেবে ঘরোয়া পরিবেশে সঞ্চয় থেকে বর্তমানে বিভিন্ন সমিতি,সংঘ,এনজিও ও আধুনিক ব্যাংকিং সুবিধায় নিজের অর্থ সঞ্চয় করে নিজেরা স্বাবলম্বি হচ্ছে পাশাপাশি দেশের উন্নয়নে অবদান রাখছে। অপব্যয় রোধ করে সঞ্চয়ের মাধ্যমে একজন ব্যক্তি,সমাজ জাতির জন্য কল্যাণ বয়ে আনছে,হয়তো কারো অগোচরেই। আর ব্যাক্তির এই সঞ্চিত অর্থ কাজে লাগিয়ে কৃষি,শিল্পসহ দেশের অনেক উন্নয়নমূলক কাজে ব্যাবহার হচ্ছে,আর এতে কমছে বেকারত্ব, বাড়ছে স্বনির্ভরতা। মানুষের এই সঞ্চয়ের অভ্যাসটি প্রাচীন কাল থেকেই চলে আসছে।

ধর্মীয়ভাবেও অপচয় রোধ ও সঞ্চয়ের প্রতি রয়েছে গুরুত্ব। প্রত্যেক কর্মক্ষম ব্যাক্তি তার উপার্জনের একটা অংশ জমা করে মোটা অংকের স¤পদশালি হচ্ছেন, অপরদিকে অপচয় একজন মানুষকে দেউলিয়া করে দিচ্ছে। মিতব্যায়িতার মাধ্যমে প্রত্যেক ব্যাক্তি নিজেকে স্বচ্ছল ও সুখী সমৃদ্ধ জীবনে পরিচালিত করে থাকে। তাই আমাদের মিতব্যায়ি হওয়া উচিত,সাথে সঞ্চয়ের প্রতি মনোযোগি হওয়া দরকার।
প্রতিটি মানুষ যেন মিতব্যয়ী হয় ও সঞ্চয় করে সেই দিকে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য ‘বিশ্ব মিতব্যয়ী দিবস’ ৩১ অক্টোবর পালন করা হয়। দিবস পালনে স্বার্থকতা নেই যদি সেখানে বাস্তবায়ন না থাকে। তাই আসুন আমরা সচেতন-মিতব্যায়ি হই,হই সঞ্চয়ের প্রতি আকৃষ্ট এবং ব্যাক্তি জীবনে প্রয়োগের মাধ্যমে এর প্রভাব প্রতিফলিত করি।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
৮৫ বার পঠিত

সুব্রত দেব নাথ

সিনিয়র নিউজরুম এডিটর

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com