ভুটান সফর শেষে ঢাকায় প্রধানমন্ত্রী

৭২ বার পঠিত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তিনদিনের রাষ্ট্রীয় সফর শেষে হিমালয়ান রাজ্য ভুটান থেকে দেশে ফিরেছেন। বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে তাকে বহনকারী ড্রুক এয়ারের কেবি ৩০২ ভিআইপি ফ্লাইটটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায়। এর আগে সকাল পৌনে ৮টার দিকে প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের নিয়ে ফ্লাইটটি ভুটানের পারো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছাড়ে। সেখানে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগে ও ভুটানের নিযুক্ত বাংলা দেশের রাষ্ট্রদূত জিষ্ণু রায় চৌধুরী তাকে বিদায় জানান।

ভুটান সফরকালে দেশটির রাজা জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক, রানী জেটসান পেমা ওয়াংচুক ও প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগের সাথে গুরুত্বপূর্ণ দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পাশাপাশি তিনি আন্তর্জাতিক অটিজম সম্মেলনে অংশ নেন। দ্বৈত কর প্রত্যাহার, পণ্যের মান নিয়ন্ত্রণ, কৃষি, বাংলাদেশের নৌপথ ভুটানকে ব্যবহার করতে দেয়া ও সাংস্কৃতিক বিনিময় এবং ভুটানের বাংলাদেশের দূতাবাস ভবন নির্মাণে ভুমি বিষয়ে একটিসহ মোট ছয়টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই করে দুই দেশ।

এর আগে মঙ্গলবার সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে ড্রুক এয়ারের একটি ফ্লাইটে প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীরা ভুটানের উদ্দেশে ঢাকা থেকে রওয়ানা হন। ভারত সফর করে আসার এক সপ্তাহের মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ার আরেকটি দেশ সফরে গেলেন শেখ হাসিনা। ভুটানের রাজধানীতে প্যারো ইন্টারন্যাশনাল বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানান ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ও থিম্পুতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জিষ্ণু রায় চৌধুরী। এসময় তাকে আনুষ্ঠানিক খাদার (স্কার্ফ) উপহার দেয়া হয়। পরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার দেয়া হয় এবং তিনি গার্ড পরিদর্শন করেন।

বিমানবন্দরে অভ্যর্থনা শেষে মোটর শোভাযাত্রা করে প্রধানমন্ত্রীকে থিম্পুর লো মেরিডিয়ান হোটেলে নিয়ে যাওয়া হয়। সফরের পুরোটা সময় সেই হোটেলেই ছিলেন তিনি। বিকালে প্রধানমন্ত্রীকে ভুটানে রাজকীয় প্রাসাদে আনুষ্ঠানিকভাবে বরণ করে নেয়া হয়। সেখানে ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগিল ও রানি জেটসান পেমার সাথে দেখা করেন শেখ হাসিনা।

ভুটান সফরে প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হন তার মেয়ে সায়মা হোসেন ওয়াজেদ; যিনি বাংলাদেশের জাতীয় অটিজম বিষয়ক উপদেষ্টা কমিটির চেয়ারপারসন। অটিজম নিয়ে কাজের জন্য তাকে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অঞ্চলের ‘চ্যাম্পিয়ন’ঘোষণা দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এছাড়া পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমদ আলী, প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা গওহর রিজভীও প্রধানমন্ত্রীর সাথে ছিলেন।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com