মেট্রোরেলের জন্য ৩ চুক্তি এ মাসের শেষ নাগাদ

৬৯ বার পঠিত

বহুল প্রতীক্ষিত ‘ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (এমআরটি) লাইন-৬’ বা মেট্রোরেল নির্মাণের জন্য এই মাসের শেষ নাগাদ সরকার তিনটি চুক্তি স্বাক্ষর করবে। ‘ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড’ (ডিএমটিসিএল) এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম মোফাজ্জেল হোসেন বলেন, ‘আমরা এমআরটি লাইন-৬-এর আওতায় মেট্রো রেললাইন, স্টেশন ও ডিপো সম্পর্কিত আলাদা তিনটি চুক্তি এপ্রিলের শেষে স্বাক্ষরের আশা করছি। পাশাপাশি রোলিং স্টক বিষয়ক চুক্তি সম্পর্কিত আলোচনার ৯৫ শতাংশ শেষ হয়েছে।’

মোফাজ্জেল হোসেন জানান, ওই তিনটি প্যাকেজের আনুমানিক ব্যয় ধরা হয়েছে পাঁচ হাজার থেকে ছয় হাজার কোটি টাকা। বিষয়টি বর্তমানে ভেটিংয়ের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে রয়েছে। সিপি-২, সিপি-৩, সিপি-৪সহ ডিএমটিসিএল তিনটি পৃথক চুক্তি স্বাক্ষর করবে উল্লেখ করে প্রকল্প পরিচালক বলেন, জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থার (জাইকা) সম্মতি এবং ডিএমটিসিএিল-এর বোর্ডের অনুমোদন পাওয়ার পর আমরা এ বিষয়ে নোটিফিকেশন জারি করেছি।

তিনি আরও জানান, রোলিং স্টক-এর জন্য সিপি-৮-এর প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের কাজ এ মাসেই সম্পন্ন হবে। উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৬ সালের ২৪ জুন দেশের প্রথম মেট্রো রেলের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেন। এমআরটি লাইন-৬ হচ্ছে এলিভেটেড মেট্রোরেল সিস্টেম। রাজধানীর উত্তরা থেকে মিরপুর ও ফার্মগেট হয়ে মতিঝিল পর্যন্ত এই মেট্রোরেল ১৬টি স্টেশনে থামবে। দ্রুতগামী মেট্রোরেল প্রতি চার মিনিট পর পর একটি স্টেশনে থামবে এবং প্রতি ঘণ্টায় ৬০ হাজার যাত্রী পরিবহন করতে পারবে। জানা গেছে, এমআরটি-৬ নির্মাণে প্রায় ২২ হাজার কোটি ব্যয় হবে। এর মধ্যে জাইকা দিবে ১৬ হাজার কোটি টাকা। বাকি তহবিলের যোগান দিবে বাংলাদেশ সরকার।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com