আজ বৃহস্পতিবার, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং, ২৮শে জিলহজ্জ, ১৪৩৮ হিজরী, শরৎকাল, সময়ঃ রাত ২:০০ মিনিট | Bangla Font Converter | লাইভ ক্রিকেট

সার্চ কমিটির প্রথম বৈঠক আজ

নয়া নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনের জন্য সার্চ কমিটির প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে আজ (শনিবার)। এটাই হবে ৬ সদস্যের সার্চ কমিটির প্রথম বৈঠক।
কমিটির সদস্য হিসেবে রয়েছেন আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন (আহ্বায়ক), হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান, সরকারি কর্মকমিশন চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক, মহাহিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক (সিএজি) মাসুদ আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীন আখতার।

সুপ্রিম কোর্টের জাজেজ লাউঞ্জে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন কমিশনারদের খুঁজতে ২০১২ সালের মতো এবারও সাচিবিক দায়িত্ব পালন করবে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। ১৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নতুন কমিশন গঠন সম্ভব হবে বলে আশা করছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম। সার্চ কমিটিকে ১০ কার্যদিবসের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের ১০ জনের নামের সুপারিশপত্র রাষ্ট্রপতির কাছে জমা দিতে হবে।

প্রতিটি পদের বিপরীতে একাধিক ব্যক্তির নাম সুপারিশ করতে পারবে কমিটি। এ ক্ষেত্রে ন্যূনতম একজন নারীর নাম প্রস্তাব করতে বলা হয়েছে। ফলে এই প্রথমবারের মতো নির্বাচন কমিশনে একজন নারী সদস্য অন্তর্ভুক্ত হচ্ছেন বলে আশা করা যাচ্ছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র আরো জানান, সার্চ কমিটি প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) এবং নির্বাচন কমিশনারদের (ইসি) নাম রাষ্ট্রপতির কাছে সুপারিশ করবে। রাষ্ট্রপতি সুপারিশ করা নামগুলো থেকে প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ অন্য কমিশনার নিয়োগ করবেন। এরপরই শপথ নেবে নতুন ইসি। আর রাষ্ট্রপতির কাছে নামের সুপারিশ করার মধ্য দিয়ে সার্চ কমিটি বিলুপ্ত হবে।

সার্চ কমিটির প্রথম বৈঠকের আগে বৃহস্পতিবার বিকালে সার্চ কমিটির প্রধান সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের সঙ্গে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বৈঠক করেছেন। সেখানে তারা বিস্তারিত আলোচনা করেন। মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন, আহ্বায়কের সম্মতির পর আমরা সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহায়তা করব। আশা করি, আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যেই সব কার্যক্রম শেষ করে ১৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নতুন কমিশন গঠন সম্ভব হবে।

তিনি বলেন, অনুসন্ধান কমিটিকে আমরা প্রয়োজনীয় সাচিবিক সহায়তা দেব। সে ক্ষেত্রে রাজনৈতিক দলের কাছে নাম চাওয়া কিংবা মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও সুপ্রিম কোর্টের মাধ্যমে সাবেক উচ্চপদস্থদের নাম সংগ্রহ করার বিষয়ে সহায়তা চাইলেও আমরা দেব। সার্চ কমিটির ৬ সদস্যের মধ্যে ৩ জনের উপস্থিতিতে কোরাম গঠিত হবে। আর সিদ্ধান্তের সমতার ক্ষেত্রে সভায় সভাপতিত্বকারী সদস্যের নির্ণায়ক সিদ্ধান্ত প্রদানের ক্ষমতা থাকবে। সার্চ কমিটি সভার কার্যপদ্ধতি নির্ধারণ করবে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com