‘শিগগিরই খুলছে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার’

মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানো শুরু হবে বলে আশা করছে বাংলাদেশ। প্রাথমিকভাবে নির্মাণ (কনস্ট্রাকশন), বনায়ন (প্ল্যান্টেশন) ও উৎপাদন (ম্যানুফ্যাকচারিং) খাতে এ কর্মী পাঠানো হবে। মালয়েশিয়াও তেমনি আশ্বাস দিয়েছে। মঙ্গলবার রাজধানীর লা মেরিডিয়ান হোটেলে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি এবং মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী রিচার্ড রায়ট আনাক জায়েমের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।kawsar-azamএ বছরের ১৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়া সরকারের মধ্যে কর্মী নেয়ার জন্য (জি টু জি প্লাস) সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছিল। তার ভিত্তিতেই এই কর্মী পাঠানো হবে। বৈঠকের শুরুতে মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী বলেন, খুব শিগগিরই তারা বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেবেন। কারণ মালয়েশিয়া সরকার বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেয়ার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী বলেন, মালয়েশিয়া বাংলাদেশের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ শ্রমবাজার। দক্ষ ও আধাদক্ষ কর্মী প্রেরণের জন্য বাংলাদেশ প্রস্তুত আছে। এছাড়া দেশটিতে জনশক্তি রফতানিতে দালাল চক্র নির্মূল করার জন্যও বদ্ধ পরিকর আমরা। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে নয়টায় ঢাকায় এসে পৌঁছান মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী রিচার্ড রায়ট আনাক জায়েম।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
২৭ বার পঠিত
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com