আজ পর্যন্ত দেশে যা অর্জন হয়েছে তার সবই আ’লীগ এনে দিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

১৮ বার পঠিত

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শনিবার সকালে আওয়ামী লীগের দুই দিনব্যাপী ২০তম জাতীয় সম্মেলনে সভাপতির বক্তব্য শুরু করেছেন দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ দুপুর ১টা ২০ মিনিটে বক্তব্য শুরু করেছেন শেখ হাসিনা। এর আগে সকাল ১০টায় ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতীয় সংগীতের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন তিনি। এ সময়ে দলের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন। এরপর সকাল ১০টা ১২ মিনিটে বেলুন ও শান্তির পায়রা ওড়ান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

পাশাপাশি সকল সাংগঠনিক জেলার সভাপতি জাতীয় পতাকা এবং সাধারণ সম্পাদক দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন। উদ্বোধনকালে শান্তির প্রতীক পায়রা ও বেলুন উড়ানো হয়। এর পর পরই সম্মেলনের থিম সং পরিবেশন করা হয়। এর আগে সকাল সাড়ে ৮টায় সম্মেলন উপলক্ষে গঠিত অভ্যর্থনা কমিটির আহ্বায়ক মো. নাসিম সারা দেশ থেকে আসা কাউন্সিলর ও ডেলিগেটদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আজ পর্যন্ত দেশে যা অর্জন হয়েছে তার সবই আওয়ামী লীগ এনে দিয়েছে। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাই জীবনের বিনিময়ে দেশের মুক্তি এনে দিয়েছে।’ শনিবার (২২ অক্টোবর) ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলনে দেয়া ভাষণে শেখ হাসিনা এ কথা বলেন। শুরুতেই তিনি দেশি-বিদেশি সকল অতিথিসহ বিভিন্ন জেলা ও তৃণমূল থেকে আগত নেতৃবৃন্দের প্রতি অভিনন্দন জানান।

প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণের শুরুতেই মহান মুক্তিযুদ্ধের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ একাত্তরে জীবনদানকারী সকল শহীদ ও জাতীয় চার নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানান। বঙ্গবন্ধু যখন দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন ঠিক তখনই ঘাতকরা আমার পরিবারকে নির্মমভাবে হত্যা করা হলো। আমার ছোট ভাই শিশু শেখ রাসেলও ঘাতকদের হাত থেকে রক্ষা পায়নি।

বঙ্গবন্ধুকে বাঁচাতে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কর্নেল জামিল এগিয়ে এসেছিলেন। ঘাতকরা তাকেও হত্যা করে। আমরা দুই বোন দেশের বাইরে ছিলাম বলে সেদিন বেঁচে গিয়েছিলাম। আওয়ামী লীগকে আমার তৃণমূলের নেতাকর্মীরাই আত্মত্যাগের মধ্য দিয়ে বাঁচিয়ে রেখেছে। প্রধানমন্ত্রী এ সময় আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাকালীন প্রধান হিসেবে মাওলানা ভাসানী, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীসহ জাতীয় নেতাদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com