নদীর নাব্যতা বজায় রাখার লক্ষ্যে ১৫ নদী খনন করতে সংসদে সুপারিশ

এই সংবাদ ৩১ বার পঠিত

নদীর নাব্যতা বজায় রাখার লক্ষ্যে চট্টগ্রাম ও কুড়িগ্রাম জেলার ১৫টি নদী খননের জন্য সংসদীয় কমেটিতে সুপারিশ করা হয়েছে। একইসঙ্গে ঐ জেলাগুলোতে ব্রীজ ও সড়ক রক্ষা বাঁধ নির্মাণের প্রস্তাব করা হয়। ২০ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দশম জাতীয় সংসদের পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ২২তম বৈঠক এ সুপারিশ হয়।

দেশর সকল জেলার নদীগুলোকে তার আগের চেহাড়ায় ফিরিয়ে আনতে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়কে আরো কর্যকর ভূমিকা রাখতে পারামর্শ দেওয়া হয়। বৈঠকে চট্টগ্রাম জেলায় বোয়ালখালী ও রাউজান উপজেলার কর্ণফুলী নদী, বোয়ালখালী ও রাইখালী খাল এবং বাম ও ডান তীরের বিভিন্ন অংশে প্রতিরক্ষা প্রকল্পের সার্বিক কার্যক্রমের অগ্রগতি সর্ম্পকে আলোচনা হয়।

কুড়িগ্রাম জেলার ভূরুঙ্গামারী উপজেলাধীন সোনারহাট ব্রীজের কাছে দুধকুমার নদীর ভাংগন হতে ভূরুঙ্গামারী মাদারগঞ্জ সড়ক রক্ষা ও উলিপুর উপজেলার গুনাইগাছ হয়ে বজরা সিনিয়র মাদ্রাসা পর্যন্ত তিস্তা নদীর বাম তীর সংরক্ষণ এবং কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী ও উলিপুর উপজেলাধীন বৈরাগী হাট ও চিলমারী বন্দর ব্রহ্মপুত্র নদের ডান তীরের ভাঙ্গন হতে রক্ষা প্রকল্পের সার্বিক কার্যক্রমের অগ্রগতি সর্ম্পকে আলোচনা করা হয়।

প্রকল্পগুলোতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে জনবল নিয়োগের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে সংসদীয় কমেটি। কমিটির সভাপতি রমেশ চন্দ্র সেনের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, কমিটি সদস্য পানি সম্পদ মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, এ. কে. এম ফজলুল হক, মো. ফরিদুল হক খান, রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক প্রমুখ।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com