রক্ত আর ঘামে ভেজা আধুনিক বিশ্বের সভ্যতা

৭২ বার পঠিত

বলা হয়ে থাকে, দাসদের জীবন, রক্ত আর ঘামে ভেজা মাটিতে গড়ে উঠেছে আধুনিক বিশ্বের সভ্যতা। এখন দাস যুগের অবসান হয়েছে। তবে অবসান হয়নি দাসত্বের। প্রগতি কিংবা অগ্রগতির আলো পৌঁছায়নি, এমন স্থানগুলোতে এখনও জারি আছে দাস যুগের বাস্তবতা।

পিকনিক বা প্রমদভ্রমনে যাচ্ছে না এদের কেউই। গন্তব্যও অজানা। কিছুক্ষণ আগেই নিজেদের তুলেছিল দাসের হাটে। কোনো এক ধনকুবেরের কাছে বিক্রি হয়ে এরা চলেছে দাসত্বের শৃংখলে বন্দি হতে। লিবিয়ার দাস বাজার তেমনই এক অন্ধকার দাসত্বের পীঠস্থান। আফ্রিকার শরণার্থীদেরকে লিবিয়ায় নিয়ে গিয়ে তোলা হয় দাস বাজারে। মানুষ পণ্য হয়। সম্পন্ন হয় বেচাকেনা। তারপর কিনে নেওয়া আর সব পণ্যের মতো করেই ব্যবহার করা হয় তাদের।

লিবিয়ার দাস বাজারের বিক্রি হওয়ার পর ওই দাসত্বের কবল থেকে বেঁচে ফেরা ব্যক্তিরা জাতিসংঘের অভিবাসন বিষয়ক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন অব মাইগ্রেশনকে এসব কথা জানিয়েছেন। লিবিয়ায় আইওএম-এর প্রধান ওসমান বেলবেইসি জানিয়েছেন, ওই শরণার্থীদের দুই থেকে তিন মাসের জন্য ২০০ থেকে ৫০০ ডলারে বিক্রি করা হয়। পরে আবারও তাদের হাত বদল হয়। তাদের দাম নির্ধারণ করা হয় কর্মসামর্থ্যের ওপর ভিত্তি করে।

মুক্তিপণের অর্থ না দিতে পারলে, তাদের জোরপূর্বক শ্রম ও যৌন ব্যবসায় কাজ করতে বাধ্য করা হয়। সেখানকার চোরাচালানিদের কাছে মানুষের কেনা-বেচা পরিণত হয়েছে এক সাধারণ ঘটনায়। সংস্থাটি তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, সাহারা অঞ্চলের কয়েক’শ তরুণকে তথাকথিত দাস বাজার থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার পাওয়া এই মানুষগুলোর অভিজ্ঞতা আদিম সভ্যতাকেও হার মানায়।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্টাফ রিপোর্টার

Bogra Offce

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com