সৌদি আরবে থেরেসা মে

১৪৪ বার পঠিত

ব্রেক্সিটের পর বিনিয়োগ নিশ্চিত রাখতে এবং বাণিজ্য সম্প্রসারণের তাগিদে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে সৌদি আরব সফর করছেন। মঙ্গলবার সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদ পৌঁছান থেরেসা মে। তার সফরে অর্থনৈতিক ইস্যুকে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। উল্লেখ্য, আরব বিশ্বে যুক্তরাজ্যের সবচেয়ে বড় বাণিজ্য অংশীদার সৌদি আরব।

গত মাসে ব্রেক্সিটের আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া শুরু করেন থেরেসা মে। লিবসন চুক্তির ৫০ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে যাওয়ার বিষয়ে লিখিতভাবে জানিয়েছেন তিনি। দীর্ঘ ৪৪ বছর পর এ চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে দেশটি। সৌদি শেয়ারবাজারের প্রধান সারা আল-সুহাইমি এবং সৌদি সাম্রাজ্যের সিংহাসনের প্রথম উত্তরাধিকারী ও দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফের সঙ্গে বৈঠক করেছেন থেরেসা মে। বুধবার বাদশা সালমানের সঙ্গে বৈঠকের কথা রয়েছে তার।

সৌদি সফরে থেরেসা মে বলেছেন, ব্রিটিশ অর্থনীতির অগ্রগতির জন্য তিনি সৌদি আরবের সম্ভাবনাময়ী বিনিয়োগ প্রত্যাশা করেন। ইইউ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় নতুন বাণিজ্য চুক্তির দিকে দৃষ্টি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এ ক্ষেত্রে তারা দীর্ঘদিনের বন্ধু দেশ তেলসমৃদ্ধ সৌদি আরবকে অগ্রাধিকার তালিকায় রেখেছে।

মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাজ্যের সবচেয়ে বড় ব্যবসায়ী অংশীদার সৌদি আরব। ২০১৫ সালে সৌদি আরবে যুক্তরাজ্যের পণ্য ও সেবার রপ্তানি ছিল ৮ বিলিয়ন ডলারের বেশি। এদিকে, সৌদি আরবও বিদেশি বিনিয়োগের দিকে ঝুঁকেছে। তাদের ‘ভিশন ২০৩০’ বাস্তবায়নে গুরুত্ব দিয়েছে তারা। এ সময়ের মধ্যে তেলভিত্তিক অর্থনৈতিক নির্ভরতা কমিয়ে উৎপাদনমুখী অর্থনীতি দাঁড় করাতে চায় সৌদি আরব।

<

p style=”text-align: right;”>তথ্যসূত্র : আলজাজিরা অনলাইন।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com