‘ধর্ষণ হয় ঈশ্বরের ইচ্ছেতে’, ‘ট্রাম্পের সভায়’ বিতর্কিত মন্তব্যে মুখ পুড়ল আমেরিকার

৬৫ বার পঠিত

প্রশ্ন- ধর্ষণ কেন হয়? 
উত্তর- “ঈশ্বরের ইচ্ছেতে”! 
হ্যাঁ। যা পড়ছেন, তা ভুল করে লেখা হয়নি, বা আপনিও কোনও ভুল কিছু পড়ছেন না। “ঈশ্বরের ইচ্ছেতেই ধর্ষণ হয়”, ধর্ষণের মত ন্যাক্কারজনক অপরাধের কারণ হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্পের দলের নেতা জর্জ ফটের যুক্তি এমনই! মার্কিন সিনেটে ধর্ষণ নিয়ে নিজের মতামত জানাতে গিয়ে জর্জ ফট দৃপ্ত কণ্ঠে বলেছেন,

“ঈশ্বরের ইচ্ছেতেই ধর্ষণ সংগঠিত হয়। বাইবেলেও এর উল্লেখ রয়েছে। কোনও আত্মীয়ের সঙ্গেও যৌন সম্পর্ক হলে সেটাও হয় স্বয়ং ঈশ্বরের ইচ্ছেতেই। এটা শুনে অনেকেরই দুর্ভাগ্যজনক মনে হতে পারে, তবে এটাই সত্যি, ইশ্বরের ইচ্ছতেই হয় ধর্ষণ এবং যৌন সম্পর্ক”।

জর্জ ফটের এই মন্তব্য গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তেই গোটা মার্কিন মুলুকে শুরু হয় প্রতিবাদ। নাক কাটা যায় খোদ মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে সাফাই দেন মার্কিন সিনেটের রিপাবলিক্যান সদস্য জর্জ ফোট।

“আমার বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে। ঈশ্বর কখনই চান না, কোনও জীবনের মৃত্যু ঘটুক, তা সে ধর্ষণের কারণেই সৃষ্টি হোক না কেন”, বক্তব্য জর্জ ফটের। 

মার্কিন সিনেটে গর্ভপাত বিরোধী বিল নিয়ে আলোচনায় বিলের সপক্ষে যুক্তি দিতে গিয়েই ধর্ষণ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে ফেলেন জর্জ ফট। আলোচনা চলাকালীন ডেমোক্রেট এক সভ্য হঠাৎ জর্জ ফটকে প্রশ্ন করেন, ধর্ষণের ক্ষেত্রে কী করা হবে, গর্ভপাত বিরোধী বিলে এই বিষয়ে কিছুই বলা নেই। মার্কিন ডেমোক্রেট সভ্য কোরি উইলিয়ামসের এই প্রশ্নেই রেগে যান জর্জ। তারপরই ধর্ষণ নিয়ে অভিনব ব্যাখ্যা শুনিয়ে মার্কিন সংস্কৃতির মুখে চুনকালি লেপে দেন তিনি নিজেই!

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com