আজ মঙ্গলবার, ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং, ২৭শে জিলহজ্জ, ১৪৩৮ হিজরী, শরৎকাল, সময়ঃ বিকাল ৫:৪৪ মিনিট | Bangla Font Converter | লাইভ ক্রিকেট

বিহারে উন্মত্ত জনতার পিটুনিতে পুলিশ কর্মকর্তা নিহত

বিহারের হাজিপুরের লালগঞ্জ থানা এলাকায় তীব্র সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। মঙ্গলবার পিকআপ ভ্যান দুর্ঘটনায় দু’জনের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে আজ মুসলিম সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় উন্মত্ত জনতা। খবর পেয়ে অজিত কুমার নামে এক পুলিশ কর্মকর্তার নেতৃত্বে পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। উন্মত্ত জনতাকে থামাতে পুলিশ গুলি চালালেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। কিছুক্ষণের মধ্যে উত্তেজিত জনতা মারমুখী হয়ে উঠলে জওয়ানরা পালিয়ে যায়। অজিত কুমার নামে পুলিশ কর্মকর্তা গ্রামের মধ্যে এক বাড়িতে লুকিয়ে পড়েন। জনতা তাকে তাকে সেখান থেকে বের করে পিটিয়ে আধমরা করে ফেলে। তাকে দ্রুত পাটনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই মারা যান তিনি।

 

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার সিনিয়র কর্মকর্তাদের নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করছেন। তিনি কর্মকর্তাদের দ্রুত কড়া পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুরে লালগঞ্জ থানা এলাকায় পিকআপ ভ্যানের ধাক্কায় ৬৫ বছর বয়সী রাজেন্দ্র চৌধুরী এবং তার সঙ্গে থাকা একটি শিশুর মৃত্যু হয়। এ ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই গত রাতে পিকআপ ভ্যান চালকের বাড়িতে চড়াও হয় ক্ষুব্ধ মানুষজন। পুলিশের এসপি রাকেশ কুমার উত্তেজিত জনতাকে  বুঝিয়ে-সুঝিয়ে শান্ত করেন। রাতেই পিক আপ ভ্যান চালক  রিজওয়ানকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

 

আজ সকালে এ ঘটনায় পুনরায় উত্তেজনা শুরু হলে মারমুখী জনতাকে নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশকে গুলি চালাতে হয়। ঘটনাস্থলেই ১৬ বছর বয়সী রাকেশ কুমার এবং ৮ বছর বয়সী বিকাশ কুমার নিহত হয়। আহত অন্য চার জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। অন্যদিকে, উন্মত্ত জনতা অভিযুক্ত পিকআপ ভ্যানচালকসহ পার্শ্ববর্তী চারটি বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। পুলিশ আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের লোকজনকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে গেছে। পুলিশের ডিজিপি বলছেন, লালগঞ্জে পুলিশের পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত রয়েছেন এবং বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com