নিউইয়র্কে গুলিতে ইমামসহ ২ বাংলাদেশি নিহত

২৪ বার পঠিত

নিউইয়র্কের কুইন্সে বন্দুক হামলায় যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী এক বাংলাদেশি ইমাম ও তার সহকারী নিহত হয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় শনিবার বিকেলে আছরের নামাজের পরে কুইন্সের ওজন পার্কের রাস্তা দিয়ে হেঁটে বাসায় ফেরাত পথে পেছন থেকে এক বন্দুকধারী তাদের মাথায় গুলি করে। ঘটনাস্থলে ইমাম নিহত হন এবং তার সহযোগী পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তারা দুজন ওজন পার্কে আল-ফুরকান জামে মসজিদের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

বিবিসি ও নিউ ইয়র্ক ডেইলি নিউজ অনলাইনের খবরে বলা হয়েছে, ইমাম আলাল উদ্দিন আকুঞ্জি দুই বছর আগে বাংলাদেশ থেকে নিউ ইয়র্কে আসেন এবং সেখানে একটি মসজিদের ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করেন। তার সহকারী ছিলেন থারা উদ্দিন (৬৪)। এ ছাড়া তাদের বিস্তারিত পরিচয় দেওয়া হয়নি।

নিউ ইয়র্ক ডেইলি নিউজ প্রত্যক্ষদর্শী এবং পুলিশের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, এক বন্দুকধারী ইমাম আকুঞ্জি ও তার সহকারী থারা উদ্দিনকে খুব কাছ থেকে মাথায় গুলি করে এবং পালিয়ে যায়। গুলিবিদ্ধ দুজনের পরনে ইসলামি পোশাক ছিল। ঘটনার পরপরই মসজিদের লোকজন ছুটে আসে। তাদের দাবি, ধর্মীয় বিশ্বাসের কারণে তাদের ওপর এ হামলা হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা খায়রুল ইসলাম (৩৩) বলেন, ‘এতো আমেরিকার মতো নয়। আমরা এর জন্য ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দায়ী করছি… তিনি এবং তার নাটকীয়তা ইসলামভীতি ছড়িয়েছে।’

তবে পুলিশ দাবি করেছে, এ ঘটনার সঙ্গে তারা এখনো ‘ঘৃণামূলক অপরাধের’ যোগসূত্র পায়নি। তা ছাড়া হত্যার উদ্দেশ্যও তাদের কাছে পরিষ্কার নয়। তবে স্থানীয়রা এ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে তাৎক্ষণিকভাবে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে এবং দাবি করে, এটি ঘৃণামূলক হামলা। হামলার পর বড় ধরনের বন্দুক নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেলেও হামলাকারীকে এখনো গ্রেপ্তার করা যায়নি। এ ঘটনায় অন্য কাউকে গ্রেপ্তার বা আটক করা হয়নি।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com