ভারতীয়দের ফেসবুক বা গুগলে বিজ্ঞাপনেও দিতে হবে কর!

এই সংবাদ ৫৪ বার পঠিত

আপনি কি ব্যবসা করেন? আপনি কি ফেসবুক বা গুগলে বিজ্ঞাপন দেন? তাহলে আপনাকে কর দিতে হবে সরকারকে। বাজেটে এমনটাই ঘোষণা করেছিলেন ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। গত পয়লা জুন থেকে এই নিয়ম কার্যকর হয়েছে। আসুন দেখে নেওয়া যাক। গত কয়েক বছরে ফেসবুক, গুগলে বিজ্ঞাপন দেওয়ার হার বেড়েছে। ব্যবসার জন্য ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মকে ব্যবহার করছেন অনেক ব্যবসায়ীই। একদিকে বিজ্ঞাপনের হার কম, অন্যদিকে দেশ-বিদেশের প্রচুর মানুষের কাছে পৌঁছনো যায় অনায়াসেই। এত দিন ডিজিটাল মিডিয়ার উপর নজর ছিল না কেন্দ্রের। এবার নজর পড়েছে। এ বছর বাজেটে তাই কর ঘোষণা হয়েছে। কর বসেছে ফেসবুক-গুগলের বিজ্ঞাপনের উপর।

এই করের পোশাকি নাম ইক্যুয়ালাইজেশন লেভি। অনেকেই এই নতুন করকে গুগল বা ফেসবুক ট্যাক্স বলছেন। করের পরিমাণ ৬ শতাংশ। অর্থাত্‍ ১০০ টাকার বিজ্ঞাপন দিলে সরকারকে কর দিতে হবে ৬ টাকা। সেই সব বিদেশি সংস্থার ক্ষেত্রে কর প্রযোজ্য, যাদের এ দেশে স্থায়ী বন্দোবস্ত নেই।

কীভাবে সরকারকে কর দিতে হবে?

ধরা যাক, ডিজিটাল স্পেস কেনার জন্য বছরে কোনও ব্যবসায়ী খরচ করেন ১ লাখ টাকা। সেই ব্যবসায়ীকে ৯৪ হাজার টাকা দিতে হবে বিজ্ঞাপনের খরচ বাবদ এবং ৬ লাখ টাকা তিনি দেবেন সরকারকে। যাঁরা এই কর দেবেন না, তাঁদের ক্ষেত্রে এই করের বোঝা চাপবে বছরের শেষে আয়কর দাখিলের সময়।

এবার দেখে নেওয়া যাক, কোন কোন ব্যবসায়িক পরিষেবা এই করের আওতায়-

প্রাথমিকভাবে স্থির হয়েছে ব্যবসায়িক বা অন্য কারণে ডিজিটাল অ্যাডভার্টাইজিং স্পেস ব্যবহার করছেন এমন ব্যক্তি বা সংস্থাকে এই কর দিতে হবে। তবে ভবিষ্যতে ইক্যুয়ালাইজেশন লেভির আওতায় আরও বেশ কিছু পরিষেবা আসার কথা রয়েছে। ইক্যুয়ালাইজেশন লেভি কার্যকর হওয়ায় প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ প্রভাব পড়বে অনলাইন বিজ্ঞাপনদাতাদের উপর। কারণ বণিক মহলের ধারণা, সরকার ডিজিটাল সংস্থাগুলির আয়ের উপর কোপ বসালে হাত গুটিয়ে বসে থাকবে না সংস্থাগুলিও। তারাও বিজ্ঞাপনের রেট বাড়াবে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com