ট্যাবলেট-ক্যাপসুল নয় ভিটামিনের ঘাটতি মেটাতে ভরসা রাখুন শাকসবজি, ফলমূলেই

১৬৯ বার পঠিত

প্রেসক্রিপশনে মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট? খেয়ে ভাবছেন, দারুণ কাজ দিচ্ছে। মোটেই না। আপনার শরীরে কোনও কাজেই লাগে না মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট। ভিটামিনের ঘাটতি মেটাতে পারে শাকসবজি, ফলমূলই। মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট বা ক্যাপসুল। একের মধ্যে বহু। শীত জানান দিতে শুরু করলেই টপাটপ ভিটামিন সি ট্যাবলেট খেয়ে নেওয়া। অন্যসময়ে মাল্টিভিটামিন। শরীর দুর্বল? কাজে এনার্জি নেই? বা বড় কোনও অসুখ থেকে সবে সেরে উঠেছেন? আপনার সন্তান খুব রোগা হয়ে যাচ্ছে? ডাক্তারের কাছে গেলেই খসখস করে লিখে দেন একটি মাল্টিভিটামিন। উপকার পাচ্ছেন কি? এটাই সবচেয়ে বড় প্রশ্ন। উত্তর জানতে কয়েকটি পর্যবেক্ষণ।

সদ্য হার্ট অ্যাটাক হয়েছে, ৫০ বছরের বেশি বয়সি এমন প্রায় ২০০০ রোগীকে ৩ বছর ধরে অন্যান্য ওষুধের পাশাপাশি মাল্টিভিটামিন খাওয়ানো হয়। তারপর পরীক্ষায় দেখা যায়, বাড়তি কোনও লাভ হয়নি। হৃদরোগ প্রতিরোধে মাল্টিভিটামিনের কোনও ভূমিকাই নেই। ৬৫ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সি প্রায় ৬০০০ পুরুষকে ১২ বছর ধরে বাড়তি ভিটামিন ট্যাবলেট খেতে দেওয়া হয়। তারপর তাঁদের মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা পরীক্ষা করা হয়। একযুগ ভিটামিন ওষুধ খেয়েও মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতার কোনও উল্লেখযোগ্য পার্থক্য ধরা পড়েনি।

১ লাখ ৬০ হাজারের বেশি মধ্যবয়সি মহিলাদের ওপর একটি সমীক্ষা চালানো হয়। দেখা গেছে, যাঁরা মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট খেয়েছেন, তাঁদের স্বাস্থ্য, যাঁরা ট্যাবলেট খাননি, তাঁদের চেয়ে ভাল নয়। অন্তত ক্যানসার, স্ট্রোকের মতো বড় অসুখের কথা বিবেচনা করলে। এমনকী যেসব মহিলা যথেষ্ট ভিটামিনসমৃদ্ধ খাবার খাননি, তাঁরাও মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট খেয়ে উপকার পাননি।

কয়েক দশক ধরে ঠান্ডা লাগার ধাত রয়েছে এমন প্রায় ১০ হাজার মানুষের ওপর পরীক্ষা চালানো হয়। তাতে দেখা যায়, ভিটামিন সি ট্যাবলেট ঠান্ডা প্রতিহত করতে পারেনি। এমনকী ঠান্ডা লাগার সময়কালকেও কমিয়ে দিতে পারেনি। আমেরিকার সিয়াটেলের ফ্রেড হাচিনসন ক্যানসার রিসার্চ সেন্টারের গবেষকদের দাবি, মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেটে হয়ত ২ ডজন উপাদান থাকতে পারে। কিন্তু টাটকা শাকসবজি আর ফলে রয়েছে অন্য আরও শতাধিক উপকারি যৌগ। তার মানে, একখানা মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট খেলে বহু উপকারি যৌগ থেকে বঞ্চিত হবে শরীর। শুধু তাই নয়, মাত্রাতিরিক্ত ভিটামিন এ শরীরে গেলে চুল রুক্ষ, ত্বক খসখসে ও লিভার বড় হয়ে যেতে পারে।

চিকিত্সকদের দাবি, মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট বা ক্যাপসুলের পিছনে অযথা পয়সা খরচ করার কোনও প্রয়োজনই নেই। পাকা ফল ও শাকসবজি যথেষ্ট পরিমাণে খেলে ভিটামিন এ-র ঘাটতি পূরণ হয়। পাতাওয়ালা সবজি, বিভিন্ন ধরনের বাদাম এবং ভোজ্য তেলে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন ই। বিভিন্ন প্রকারের লেবুতে রয়েছে যথেষ্ট ভিটামিন সি। সলমন, টুনার মতো সামুদ্রিক মাছে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন ডি। তাই মাল্টিভিটামিন নয়, প্রচুর শাকসবজি, ফলই যথেষ্ট। শরীরে ভিটামিনের অভাবই হবে না।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com