নতুন বছর ও আমাদের আচরনের প্রভাব : মাহমুদুল এইচ

৭১ বার পঠিত

যখন ফটকা ও আতসবাজির শব্দে সারা পৃথিবী ভূমিকম্পের মতো কেঁপে উঠছে। ফাইব স্টার – থ্রী স্টার হোটেল, কমিউনিটি সেন্টার , কিংবা ক্লাবে যখন রাতভর ইংরেজি নতুন বছরকে স্বাগত জানানর ছলে চলছে নষ্টামি, নোংরামি আর ভণ্ডামি। সমুদ্র সৈকত কিংবা উন্মুক্ত আকাশের নিছে যখন পপ আর ফোঁক গানের নামে উঠতি বয়সের ছেলে মেয়ে। দোলা দে দোলা দে গানে ছেলে কিংবা মে একসাথে দলাদলি করে দোল খাচ্ছে তখন শহর কিংবা গ্রাম, মফঃস্বল কিংবা চরাঞ্চল, ধনী কিংবা গরীব, উচ্চপদস্থ কিংবা কৃষক সকলেরই চোখ মুখ কান বন্ধ করে থাকলেও না বোঝার উপায় নেই যে এতকিছুর পেছনে উপলক্ষ কিছু একটা আছে।

আর তা হল “নিউ ইয়ার” অর্থাৎ আবার একটি ইংরেজি নতুন বছর। কিন্তু এভাবে নতুন বছর পালনে আমাদের জীবনে নেতিবাচক প্রভাব ছাড়া ইতিবাচক প্রাভাব পড়ার সম্ভাবনার ছিটে ফোটা নেই বললে ভূল হবে না। নতুন বছর মানে নিজেকে নতুন উদ্যমে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়া। সাথে সাধ আর সাধ্যের মধ্যে ছোট বড় পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন করা। নতুন বছর মানে এই নয় যে পুড়ন বছরকে ভুলে যাওয়া বরং নতুন বছর মানে পুড়ন কাজের সাথে নতুন কিছু যুক্ত করা।

কিন্তু আমাদের প্রত্যেকের কাছে নতুন বছর উৎযাপন প্রশ্নবিদ্ধ। এত রমরমা পরিবেশের মধ্যে রাত জেগে এত টাকা খরচ করে যে আমরা আজ নতুন বছর উৎযাপনে মত্ত। তা আমাদের বাস্তব জীবনে কতটুকু ফলদায়ক ভুমিকা রাখছে?

আজকে নতুন বছর আগমন উপলক্ষে তো আপনার আমার নিজেকে পুরাতনের সাথে নতুন পরিকল্পনা যুক্ত করে নতুন উদ্যমে সফলতার জন্য শপথ নেয়া উচিৎ। কিন্তু আমরা কতজন তা করেছি। হয়ত অনেকেই পুড়নকে সঙ্গে নিয়ে নতুন পরিকল্পনাগুলো সাজিয়েছি। কিন্তু অনেকেই কোন রকম পরিকল্পনার তোয়াক্কাই করিনি। অথচ নাচ গান ফুর্তির কমতি রাখছি না। তাহলে আমাদের বেক্তি জীবনে কীভাবে উন্নতি আসবে?

আজকে যখন আমরা মনে করছি কোনরকম চেষ্টা ছাড়াই নাচ গানে নতুন বছরকে স্বাগত জানালেই আমাদের বেক্তি ও সামাজিক জীবনে উন্নতি সম্ভব তখন দেশের উঠতি বয়সের ছেলে কিংবা যুবক কার কাছ থেকে দেশ ও জাতি কি আশা করবে? দেশ জাতির কথা না হয় আড়াল করলাম বাবা মায়েরা আমাদের কাছ থেকে কি আশা করবে।

দেশে দিনকে দিন যখন বেকার সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করছে। তখন আমাদের বেকার সমস্যা দূরীকরণে আমলাদের আশায় না থেকে নিজেদের কর্ম পরিকল্পনা গ্রহন করা উচিৎ। অথচ শহর কিংবা গ্রামের ছোট বড় মহল্লা কিংবা বাজারগুলো ঘুরে দেখা যায় আগামি দিনে যারা নিজেদের, পরিবারের, ও দেশের উন্নতি আনবে তারা সকল কাজ-কর্ম ফেলে ক্রাইম লিপ্ত ও তাস খেলে সিগারেট সহ নানা ধরনের নেশায় মত্ত হয়ে সময় পার করে দিচ্ছে। তাহলে নতুন বছর আমাদের কি দেবে ?

আপনি আমি আজ যখন ছাত্র তখন নিশ্চয়ই আপনাকে আমাকে ভাল রেজাল্টের পরিকল্পনা করতে হবে। যদিও চারদিকে ভাল রেজাল্ট নিয়ে বিতর্কের শেষ নেই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মত দেশের শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয় যখন ইংরেজিতে মাত্র ২ জন শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় উত্তিন্য হয়। তখন কতজন শিক্ষার্থী এর থেকে শিক্ষা নিয়েছি? হয়ত কেউ কেউ নিয়েছি কিন্তু অধিকাংশই এর তোয়াক্কা করেনি। তাহলে নতুন বছর আমাদের শিক্ষার্থীদের কি দেবে?

আপনি আমি যখন রাজনৈতিক বেক্তিত্য তখন জনগণের স্বার্থ রক্ষা কল্পে আপনাকে পরিকল্পনা করতে হবে। নতুন বছর উপলখ্যে যখন জ্বালাও পোরাও ও হিংসার রাজনৈতিক পরিকল্পনা করা হয়। আগুনে যখন কার দেহ ঝলসে যায় বা বাড়ি ঘর পুড়িয়ে দেয়া হয়। দুর্বলদের যখন প্রান দিতে হয়। তখন নতুন বছরে রাজনীতি আপনাকে আমাকে কি দেবে? আর তখন সাধারণ জনগণ আশা হারিয়ে ফেলে। স্বপ্ন দেখতে ভুলে যায়।

সর্বপরি আমাদের নিজেদের উন্নত মন-মানসিকতার, উন্নত ও বাস্তব চিন্তাশীল হতে হবে। সমালোচনা থেকে বেড়িয়ে আসতে হবে। একই সঙ্গে আমাদের অপসংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে এসে নতুন বছরকে নতুন কাজ আর পরিকল্পনার মাধ্যমে স্বাগত জানাতে হবে। ঘরের দেয়াল, বাসা কিংবা অফিসের টেবিলে রাখা পুরাতন ক্যালেন্ডারটি সরিয়ে নতুন ক্যালেন্ডার রাখতে হবে।নিজেকে নতুন একটি বছরের জন্য নতুন একটি ক্যালেন্ডারের পাতার জন্য প্রস্তুত করতে হবে। প্রতেকেই নিজের কাছে সৎ থেকে নিজের জীবন, নিজের পরিবার, নিজের দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য চেষ্টা করতে হবে। তবেই হবে নতুন বছরের সার্থকতা।

মাহমুদুল এইচ, ঢাকা।
writer.mahamudul.h@gmail.com

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com