সম্মাননা শিল্পীর মর্যাদা বাড়ায় : ফেরদৌসী রহমান

৭৪ বার পঠিত

দেশবরেণ্য কণ্ঠশিল্পী ফেরদৌসী রহমান। তিনি পল্লীগীতি, নজরুল, রবীন্দ্রসংগীত ছাড়াও সব ধরনের গানে শ্রেষ্ঠত্বের প্রমাণ দিয়েছেন। সম্প্রতি গুণী এই শিল্পী শিশুসাহিত্যিক নাসির আলী সম্মাননা পুরস্কার পেয়েছেন। ব্রিটিশ ভারতের কোচবিহারে জন্মগ্রহণ তিনি। পল্লীগীতি সম্রাট আব্বাস উদ্দিনের মেয়ে তিনি। প্রায় পাঁচ দশক ধরে তার সঙ্গীত জগতে পদচারণা চলছে। পল্লীগীতি, রবীন্দ্রসঙ্গীত, নজরুল সঙ্গীত, আধুনিক এবং প্লে ব্যাক সব ধরনের গানই তিনি করেছেন। জন্ম থেকেই গানের সঙ্গে সখ্য তার। বাবা শিল্পী আব্বাসউদ্দিন স্বপ্ন দেখতেন তার মেয়েও তার মত গান গাইবে। বাবার কাছেই গানের হাতেখড়ি ফেরদৌসী রহমানের। সম্মাননা, গান ও সমসাময়িক নানা বিষয়ে কথা হলো তার সঙ্গে।

জনপ্রিয় গানের সংকলন
দীর্ঘদিন আগে আমার জনপ্রিয় গান নিয়ে একটি সংকলন প্রকাশের পরিকল্পনা করি। এরপর বেশকিছু গানও নির্বাচন করেছি। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, ‘পদ্মার ঢেউরে’, ‘মনে যে লাগে এতো রঙ’, ‘নিশি জাগা চাঁদ’, ‘যে জন প্রেমের ভাব জানে না’, ‘ওকি গাড়িয়াল ভাই’, ‘আমি রূপনগরের রাজকন্যা’, ‘ঝরা বকুলের সাথী আমি’, ‘হার কালা করলামরে’, ‘গহিন গাঙের নাইয়া’, ও ‘আমার প্রাণের ব্যথা কে বুঝে সই’ প্রভৃতি। কিন্তু এ অবধি এর কাজ ঠিকঠাক করতে পারছি না। তবে দেরিতে হলেও সংকলনটি প্রকাশ করব।

বিদেশ সফর প্রসঙ্গে
এ বিষয়ে এখনই (দেশের নাম লিখতেও বারণ) কিছু লিখো না। এ বিষয়ে এখনো আমি চূড়ান্ত মতামত দেইনি। আর সবকিছু চূড়ান্ত না হওয়া পর্যন্ত কিছু বলতে চাচ্ছি না।

সম্মাননা
গত মাসে বাংলা একাডেমির কবি শামসুর রাহমান মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত শিশুসাহিত্যিক ‘মোহাম্মদ নাসির আলী সম্মাননা ও স্বর্ণপদক প্রদান অনুষ্ঠান-২০১৭’তে আমি সম্মাননা পেয়েছি। এ পদক প্রদান অনুষ্ঠানে আমাকে নিয়ে দেশের বিশিষ্ট ১০ জন গুণী ব্যক্তিত্বকে সম্মাননা ও স্বর্ণপদক প্রদান করা হয়। আর এ সম্মাননা পেয়ে মনে হয়েছে, যে কোনো সম্মাননাই শিল্পীর মর্যাদা বাড়িয়ে দেয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংগীতশিল্পী ও কথাসাহিত্যিক মুস্তাফা জামান আব্বাসী। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সৈয়দ আজিজুল হক, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ রঞ্জিতকুমার সাহা, জনপ্রিয় কবি আবু হাসান শাহরিয়ার, শিশুসাহিত্যিক দীপু মাহমুদ প্রমুখ।

অভিভূত
আমার গাওয়া জনপ্রিয় গানগুলো বিভিন্ন রিয়েলিটি শোতে এ প্রজন্মের ছেলে-মেয়েদের গাইতে দেখে অবিভূত হই। সেই চিন্তা থেকে বাংলা গানের ঐতিহ্যকে এ প্রজন্মের কাছে তুলে ধরার জন্য জনপ্রিয় গানের সংকলনটি প্রকাশের উদ্যোগ নেই। এখন শ্রোতাদের কাছে গানগুলো পৌঁছাতে পারলেই আমার প্রচেষ্টা সার্থক হবে।

প্রায় ছয় দশকের গানের ক্যারিয়ারে ফোক, আধুনিক, উচ্চাঙ্গসংগীত, নজরুলগীতি, রবীন্দ্রসংগীত, প্লেব্যাক সব ধরনের গানই তিনি গেয়েছেন। বাংলাদেশ টেলিভিশনের সূচনালগ্ন থেকে সেখানে গাইছেন তিনি। বিটিভির জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‘এসো গান শিখি’ দিয়ে সবার কাছে ‘খালামনি’ হিসেবে পরিচিত হয়ে ওঠেন ফেরদৌসী রহমান। বাংলাদেশের প্রথম মহিলা সংগীত পরিচালক ফেরদৌসী রহমান গান গাওয়ার পাশাপাশি অনেক গান পরিচালনাও করেছেন।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মানিক ওমর বিনোদন প্রতিবেদক#

+8801766310000

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com