পরিচালককে হত্যাচেষ্টা, অভিনেত্রীর ৩ বছর জেল

৮৪ বার পঠিত

পরিচালক মধুর ভান্ডারকরকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে ভারতের মডেল প্রীতি জৈনকে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে মুম্বাইয়ের আদলত।
শুক্রবার মুম্বাইয়ের নগর দায়রা আদালত প্রীতির সাজা ঘোষণা করেন। একইসঙ্গে প্রীতির ১০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।

হত্যাচেষ্টায় সহযোগিতার অভিযোগে প্রীতির দুই সহকারী নরেশ পরদেশী এবং শিবরাম দাসকেও তিন বছরের জেলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এদিন রায় ঘোষণার পরই আদালতে শাস্তি স্থগিতের আবেদন জানিয়েছেন প্রীতি।

প্রসঙ্গত, ২০০৪ সালে মধুর ভান্ডারকরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনেন প্রীতি। তার অভিযোগ ছিল, সিনেমায় নায়িকা করবেন বলে প্রীতির সঙ্গে ১৯৯৯ সাল থেকে সহবাস করে আসছিলেন মধুর।

এমনকি ২০০৪ সালের মধ্যে নানা আছিলায় মধুর তাকে মোট ১৬ বার ধর্ষণ করেছিলেন বলেও পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন প্রীতি।  

এই নিয়ে বিবাদ সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত গড়ায়। শীর্ষ আদালত মধুরকে বেকসুর খালাস দেন।

এরপর ২০০৫ সালে মধুরকে খুন করার জন্য এক ব্যক্তিকে ৭৫ হাজার টাকা দিয়েছিলেন প্রীতি। কিন্তু কাজটা না হওয়ায় তিনি নাকি তার দেয়া টাকা ফেরত চেয়েছিলেন। সূত্র মারফত এরপর বিষয়টি পুলিশের নজরে আসে।

পরে ২০০৫ এর ১০ সেপ্টেম্বর ওই ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ। ওই দিনই তাকে গ্রেফতার করে মামলা দায়ের করে পুলিশ। সে সময় গ্রেফতার হন প্রীতিও। পরে অবশ্য তিনি জামিনে মুক্তি পান।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্টাফ রিপোর্টার

Bogra Offce

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com