শাকিবের অহংকার, অপুর অবিশ্বাস

৯৭ বার পঠিত
আবদুর রহিম: শাকিবও কাঁদলেন ও অপুও কাঁদলেন। সিনেমায় নয় বাস্তবেই। অন্তরালে নয় দেশ বিদেশের কোটিকোটি দর্শকের সামনে। একদিন আগেও এমন দৃশ্যপটের কিছু হলে দর্শক ভাবতো কোনো ছিনেমার দৃশ্য। এখন পুরোটাই তার উল্টো রথে। বের হচ্ছে চোখের জল, অসুস্থও হচ্ছেন। সবই বাস্তব! শুধু শাকিব-অপু নয় চলচ্চিত্রাঙ্গনেও এসেছে নিস্তব্ধতা। মাথায় হাত পড়ছে বহু পরিচালকের। মিডিয়া পাড়ার লোকদের মুখে মুখে একটি কথা শাকিবের কিং খান নিয়ে অহংকার ও অপুর অবিশ্বাসের কারণেই এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। যার জন্য সাময়িক হুমকির মুখে পড়ছে চলচিত্র।

এদিকে ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে নিজের অভিমত পাল্টালেন শাকিব খান। গতকাল সোমবার শাকিব খান নিজের বাচ্চাকে মেনে নিলেও স্ত্রী অপু বিশ্বাসের দায়িত্ব নেবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেন গণমাধ্যমে। মঙ্গলবার বেলা তিনটা নাগাদ গণমাধ্যমে নতুন স্টেটমেন্ট দিয়েছেন কিং খান। পাল্টেছেন তার পুরনো সিদ্ধান্ত। তিনি দ্যর্থহীন কণ্ঠে বলেছেন, ‌‌‘বাচ্চা যেহেতু আমার সেহেতু ওয়াইফ অপুও আমার স্ত্রী। গতকাল রাগের মাথায় অনেক কথাই বলেছি। সেটা ঠিক ছিল না।’

২০০৪ সালে আমজাদ হোসেনের ‘কাল সকালে’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পদার্পণ করেন অপু বিশ্বাস । এরপর এফআই মানিক পরিচালিত ‘কোটি টাকার কাবিন’ সিনেমায় প্রধান নায়িকার অভিনয় করেন শাকিব খানের বিপরীতে। সিনেমাটি ব্যবসায়িকভাবে সফল হয়। এরপর ‘পিতার আসন’, ‘চাচ্চু’, ‘দাদি মা’, ‘মিয়া বাড়ির চাকর’, ‘জন্ম তোমার জন্য’, ‘মায়ের হাতে বেহেশতের চাবি’ প্রভৃতি সুপারহিট সিনেমায় অভিনয় করেন অপু। এদিকে ‘ভালোবাসা ২০১৬’ শিরোনামের সিনেমাটি অপুর শুটিংয়ের অপেক্ষায় রয়েছে। সিনেমাটি পরিচালনা করছেন জি সরকার। এছাড়া মনতাজুর রহমান আকবর পরিচালিত ‘মাই ডার্লিং’, মান্নান সরকার পরিচালিত ‘পাঙ্কু জামাই’ ও কালাম কায়সার পরিচালিত ‘মা’ শিরোনামের সিনেমার শুটিং অপুর কারণে আটকে আছে।

অন্যদিকে বাংলাদেশি চলচ্চিত্রকে গত দুই দশক ধরেই একা কাঁধে বয়ে বেড়াচ্ছেন সাফল্যের সঙ্গে । এদেশের চলচ্চিত্রে নেতৃত্বের পাশাপাশি ছবি ব্যবসার সাফল্যের গল্পে তাই বারবার আসবে শাকিব খানের নাম। চলচ্চিত্রের বর্তমান পরিপ্রেক্ষাপট নিয়ে বিনোদন শাকিবের ছবি। বর্তমানে ব্যাবসায়িক সব ছবিই শাকিব অভিনীত। ২০১৫ তে অভিনেতাদের প্রতি ছবিতে পারিশ্রমিরে অংক নিয়ে প্রথম আলোতে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় তাতে দেখা যায় সবার উপরের নামটাও শাকিবের।

বর্তমান সময়ের একজন সফল পরিচালক এ বিষয়ে যমুনা নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বাংলাদেশে এই মুহূর্তের আলোচিত ঘটনা শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। শাকিব-অপুর বিয়ের বিষয়টা চলচিত্র পাড়ার সবাই জানতো। জানতো অনেক ছবির পরিচালকও। শুধু ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে টিকিয়ে রাখতে এতদিন তা গোপন ছিল। এ নিয়ে আমাদের জানামতে অপু সাকিবের মধ্যে একটা সমঝোতা ছিল। অপু মা হওয়ায় তার শরীরে কিছু গঠন বিকৃত হয়। যার ফলে শাকিব অপুকে কিছু সময় অভিনয় থেকে দূরে থাকতে পরামর্শ দেন। এবং অনেক ছবি এখনো অপু ছাড়া আমরা অন্য নায়িকা দিয়ে করাতে চাইলেও শাকিব তাতে রাজি হননি। গতকালের এই ঘটনার পর ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি সাময়িক ভয়াবহ হুমকির মুখেও পড়বে বলে জানান। তিনি বলেন, শাকিব –
অপু অভিনীত বর্তমানে প্রায় অর্ধশত ছবি চলমান রয়েছে। যেগুলো শুটিংয়ের কাজ চলছে। এছাড়া কিছু ছবি অন্য দেশের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ আবার কিছু আছে মুক্তির অপেক্ষায়। এ পরিচালক শাকিব-অপু দুজনের প্রতিই ক্ষোভ প্রকাশ করেন। শাকিবের এক ঘেঁয়েমি সিদ্ধান্ত ও অহংকার এবং এই সম্পর্কে শাকিবের ওপর অপুর অবিশ্বাসকেও দায়ী করেন তিনি।

গতকাল রাতে শাকিব একটি টেলিভিশনের টকশোতে যোগ দিয়ে বলেন, এ ঘটনার পুরোটা গেম, চক্রান্ত। এসব আমাকে ডোবানোর জন্য। টিভির পর্দায় আমার ছেলেকে আমি এভাবে দেখব, কোনোদিন ভাবিনি। আমার আব্রাহামকে এভাবে দেখব, ভাবিনি।’ এই বলে কাঁদতে শুরু করেন শাকিব খান। মঙ্গলবার রাতে সেই বেসরকারি টিভি চ্যানেলের টকশোতে অপু বিশ্বাসও সরাসরি কথা বলেন। এ সময় শাকিব খান ফোনো লাইভ সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘সংসারে অনেক কিছুই থাকে, যা বাইরে বলা যায় না।’শাকিব খান অপুর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন, ‘আজ সকালে ফোন দিয়ে অপু বলেছে, ‘রংবাজ’ ছবিতে তাকে নিতে হবে। তা না হলে সে প্রেস কনফারেন্স করবে। তিনি আরও অভিযোগ করেন, ‘সারা জীবন তো চাকরের মতো খেটে গেলাম। যখন যা বলেছে, তা–ই শুনেছি। যাকে বাদ দিতে বলেছে, বাদ দিয়েছি। আর কত!’ আমি তার কোন কথাটা রাখিনি। গতকালও তাকে আমি ১২ লাখ টাকা দিয়েছি।’ 

তিনি আরো বলেন, ‘অপু এখন আমার বিরোধীপক্ষের সঙ্গে হাত মিলিয়ে আমাকে ডোবানোর চক্রান্ত করছে। গতকাল সোমবার বিকালে “অপুর সংসার” নামে একটি ছবির এন্ট্রি হয়েছে। এটি আমার বিরোধীপক্ষরা অপুকে সঙ্গে নিয়ে তৈরি করছে। এই্ ছবির নায়ক কে?’ পরে অপু বলেন, ‘শাকিব আমার দায়িত্ব নেবে না, এতে আমার কোনো অভিযোগ নেই। আমি কারও ওপর নির্ভরশীল না। ও আমাদের সন্তানের দায়িত্ব নিতে চেয়েছে, স্বীকৃতি দিয়েছে, এতেই আমি খুশি।’

উল্লেখ্য, গতকাল সোমবার বিকেলে একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে ছেলে আব্রাহাম খান জয়কে সঙ্গে নিয়ে লাইভ অনুষ্ঠানে অংশ নেন অপু বিশ্বাস। সেখানে অপু বিশ্বাস বলেন, শাকিবকে বিয়ে করে নিজের নাম পাল্টে রাখেন অপু ইসলাম খান। ২০০৮ সালে ১৮ এপ্রিল তাদের বিয়ে হয়। এ বিয়ে হয় শাকিবের ঢাকার বাসায়। দুই পরিবারের কাছের লোকজন এই বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন। শাকিবের ভালো ও তার ক্যারিয়ারের কথা বিবেচনা করে এতদিন বিষয়টি গোপন রেখেছেন অপু। ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর কলকাতার এই ক্লিনিকে তাদের সন্তানের জন্ম হয়। শাকিব খান আর অপু বিশ্বাসের ছেলে আব্রাহাম খান জয়ের বয়স এখন সাড়ে ছয় মাস।

–যমুনানিউজ
ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com