‘ভারতের সেন্সর বোর্ড বন্ধ করে দেওয়া উচিত’ : রাখি সায়ন্ত

৪২ বার পঠিত

ভারতের সেন্সর বোর্ডকে একহাত নিলেন বলিউড অভিনেত্রী রাখি সায়ন্ত। তার আসন্ন ছবি ‘এক কাহানি জুলি কি’-কে ‘এ’ সার্টিফিকেট দিয়েছেন সেন্সর কর্তারা। তার প্রতিবাদেই গত শুক্রবার মুম্বাইতে সাংবাদিক সম্মেলন করেন রাখি। তার দাবি,  সেন্সর বোর্ড যে কী কাজ করে তা আমি বুঝতে পারি না। টাকা নেওয়া ছাড়া আর কোন কাজ নেই। এই ধরনের সেন্সর বোর্ড বন্ধ করে দেওয়া উচিত।

রাখী বলেন, ‘এমন অনেক ছবি আছে যেখানে অনেক খারাপ ডায়লগ থাকে। ‘ঠোক দুঙ্গা, কর দুঙ্গা’ তো অনেক ছবিতেই আছে। অশালীন ইঙ্গিতও দেখেছি। পরিবারের সকলে বসে সে সব ছবি দেখা যায় না। সেসব ছবিও সেন্সর বোর্ড অনুমোদন দেয়।’ এক সময়ের এই আইটেম গার্ল বলেন, ‘ওরা বলছে রাখি সায়ন্তর ছবি তাই ‘এ’ দিয়েছি। আরে আমি তো সানি লিওন নই, কোনও পর্নো তারকাও নই। আমি বলিউডের। অনেক স্ট্রাগল করে এ জায়গায় এসেছি।’

রাখি জানিয়েছেন, সেন্সর বোর্ড শুধু বিগ ব্যানারগুলোর কাছ থেকে টাকা নিতে পারে। আর যে সব প্রযোজকের কম টাকা আছে তাদের ছবি নিয়ে সমস্যা তৈরি করে। এর বেশি কিছু করতে পারে না সেন্সর বোর্ড। তার মতে, বোর্ডের সদস্যরা তাদের পদমর্যাদার ফায়দা তুলছে। আসলে তারা অশিক্ষিত। সেন্সর বোর্ডকে রাখির কটাক্ষ, ওরা ‘এক পহেলি লীলা’-কে ‘ইউ এ’ সার্টিফিকেট দিতে পারল। যেখানে একজন পর্নো তারকা নগ্ন হয়েছে, ছোট জামাকাপড় পরেছে। ছবির বিষয়বস্তুও অশ্লীল। অথচ আমার ছবি পেল ‘এ’। কিন্তু আমার ছবিতে কোনও অ্যাডাল্ট কনটেন্ট নেই। রাখি জানিয়েছেন, সেন্সর বোর্ডকে শিক্ষা দিতে গোটা বিষয়টি নিয়ে তিনি আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন। জানা গেছে, ‘এক কহানি জুলি কি’  ছবিটি ভারতে সাম্প্রতিক ঘটে যাওয়া শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডের অবলম্বনে তৈরি। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মানিক ওমর বিনোদন প্রতিবেদক#

+8801766310000

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com