বাংলাদেশে হামলার হুমকি দাতা জঙ্গি মডেল নায়লা নাঈমের সাবেক স্বামী

৫৫ বার পঠিত

‘হুমকি বার্তা’ সম্বলিত আইএসের কথিত ভিডিওতে তিন বাঙালি তরুণদের একজন জনপ্রিয় মডেল নায়লা নাঈমের সাবেক স্বামী তুষার রয়েছে জানা গেছে।

জানা যায়, প্রয়াত মেজর ওয়াশিকুর আজাদের ছেলে তুষারের সঙ্গে ২০১১ সালে নায়লা নাঈমের বিয়ে হয়। পরে ছাড়াছাড়ি হয় তাদের।

পেশায় দন্তচিকিৎসক তুষার গত প্রায় দুই বছর ধরে নিখোঁজ। আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল থেকে এসএসসি এবং রাজউক থেকে এইচএসসি পাস করেন তিনি। বারিধারার ডিওএইচএসে তাদের বাসা।

ভিডিও বার্তায় জিহাদিদের উদ্ধুব্ধ করে গুলশানে হামলার দিকে ইঙ্গিত করে তুষার বলেন, ‘বাংলাদেশে যে কাজটি তারা করেছেন, সেটি চমৎকার একটি কাজ।’

ভিডিওতে অপর এক যুবককে দেখা গেছে, তিনি ক্লোজআপ ওয়ান তারকা তাহমিদ রহমান শাফি। ২০০৭-০৮ সালে ক্লোজআপ ওয়ান প্রতিযোগিতায় প্রথম দিকে ছিলেন তিনি।

তাহমিদ সাবেক নির্বাচন কমিশনার সফিউর রহমানের ছেলে বলে তার সাবেক সহপাঠী ও সহকর্মীরা জানিয়েছেন।

তাহমিদ ২০০০-২০০১ সালে নটরডেম কলেজে উচ্চ মাধ্যমিকের বাণিজ্য বিভাগের ছাত্র ছিলেন। এরপর ২০০২ সালে উচ্চ মাধ্যমিক শেষে তাহমিদ ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবিএতে পড়াশোনা করেছেন। এর পর বেসরকারি মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোনে কিছুদিন চাকরিও করেন। রবীন্দ্রসঙ্গীত ভালোবাসতেন তিনি। আর এ সঙ্গীত নিয়েই পিএইচডি করার ইচ্ছা পোষণ করেছিলেন।

2016_07_06_12_40_31_zljKsishREa3ggl8g5HqGPEE8j63ZC_original

ভিডিওতে তাহমিদকে বলতে শোনা যায়, ‘শেখ আদনানির’ নির্দেশে তারা ‘খ্রিস্টান, ইহুদি ক্রুসেডার ও তাদের মিত্রদের’ বিরুদ্ধে এই যুদ্ধ করছে এবং তা কোনোভাবেই ‘কৌতুক নয়’।  

 

হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে তোমরা এখন যা দেখছো তা জিহাদের একটি ঝলক ছাড়া আর কিছু নয়…বাংলাদেশে যা দেখেছো সেটা রিপিট, রিপিট এবং রিপিট হবে, যতক্ষণ না পর্যন্ত শরিয়া প্রতিষ্ঠিত হয়… আমরা শেষ পর্যন্ত তোমাদের সাথে লড়ে যাব, হয় আমরা বিজয়ী হব, অথবা শাহাদাৎ লাভ করব।’

ভিডিওতে মুখঢাকা যুবক তৌসিফ হোসেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএর সাবেক ছাত্র। বিবিএ ১৮ ব্যাচে ভর্তি হয়ে লেখাপড়া শেষ না করেই বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়েন তিনি।

জেএমবি সম্পৃক্ততার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন তিনি। পরে তাকে পরিবারের পক্ষ থেকে অস্ট্রিয়া পাঠানো হয়। তবে সেখানে তিনি নেই বলে তার বন্ধুরা জানিয়েছেন।

গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলায় ১৭ বিদেশিসহ অন্তত ২২ জন নিহত হওয়ার চার দিনের মাথায় বুধবার আইএসের নামে নতুন ওই ভিডিও অনলাইনে আসে। এর পর তা ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

ভিডিওতে তিন তরুণকে বাংলায় কথা বলতে শোনা যায়। সাইট ইন্টেলিজেন্সের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যে বলা হচ্ছে, ওই ভিডিওবার্তা সিরিয়ার আইএস কথিত রাজধানী আর রাকা থেকে এসেছে।

এদিকে হলি আর্টিসান বেকারিতে হামলাকারীদের কয়েক মাস ধরে নিখোঁজ থাকার বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পর ১০ যুবকের সন্ধান চেয়ে তাদের ফেরার আহ্বান জানিয়েছেন অভিভাবকরা।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সুব্রত দেব নাথ

সিনিয়র নিউজরুম এডিটর

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com