নিজামীকে রায় পড়ে শুনানো হয়েছে, স্বাস্থ্য পরীক্ষাও সম্পন্ন

৪২ বার পঠিত

একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর সাজা পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আবেদন খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায়ের কপি কেন্দ্রীয় কারাগারে পৌঁছেছে। সোমবার সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের ডেপুটি রেজিস্ট্রার কেশব রায়ের নেতৃত্বে সাতজন কারাগারে যান। রায়ের অনুলিপি হাতে তাদের মধ্যে পাঁচজন কারাগারের ভেতরে ঢোকেন। এরআগে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার কিছু আগে ট্রাইব্যুনাল থেকে ঢাকা মেট্রো-চ ৫৩-৮১২১ নম্বরের একটি গাড়িতে রায়ের অনুলিপি নিয়ে কারাগারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন তারা।

দুপুরের দিকে পূর্ণাঙ্গ রায়ে বিচারকদের সইয়ের পর বিকেলে ট্রাইব্যুনালে পৌঁছায় ওই রায়। সেখানে আনুষ্ঠানিকতা শেষে রায়ের এই অনুলিপি পৌঁছে দেয়া হলো কেন্দ্রীয় কারাগারে। রায়ের অনুলিপি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, আইন মন্ত্রণালয় ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয়েও পৌঁছে দেয়া হয়। এদিকে মতিউর রহমান নিজামীর সাজা পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আবেদন খারিজের রায় তাকে পড়ে শোনানো হয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে ৮টার পরপরই সিনিয়র জেল সুপার জাহাঙ্গীর কবীর, ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি গোলাম হায়দার তাকে রায়টি পড়ে শোনান।

গেল বৃহস্পতিবার নিজামীর রিভিউ আবেদন খারিজ হয়ে যাওয়ার পর ফাঁসির দণ্ড থেকে বাঁচতে মানবতাবিরোধী এ অপরাধীর সামনে এখন খোলা একটিই মাত্র পথ- তা হলো রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা প্রার্থনা। নিজামী রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার পর, যদি ক্ষমা না পান তবে আইন অনুযায়ী সরকারের সিদ্ধান্ত অনুসারে যেকোনো সময় ফাঁসির রায় কার্যকর করতে পারবে কারা কর্তৃপক্ষ।

নিজামী হলেন পঞ্চম মানবতাবিরোধী অপরাধী, যার সর্বোচ্চ সাজার রায় কার্যকরের পর্যায়ে এসেছে। রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার বিষয়ে তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম বলেছেন, যারা ইসলামী আন্দোলন করেন তারা শহীদী তামান্না নিয়ে কাজ করে। ইসলামী আন্দোলনের সৈনিকরা ফাঁসির রশিতে ভয় পান না। নিজামী আল্লাহ ছাড়া অন্য কারো কাছে মাথা নত করবেন না, তাই রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার প্রশ্নই আসে না।

বৃহস্পতিবার নিজামীর রিভিউ আবেদন খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ। ওই রায়ের মধ্যে দিয়ে তার আইনি লড়াই শেষ হয়। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের মন্ত্রী নিজামীকে গতরাতে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে আনা হয়েছে। সোমবার বিকেলে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, নিজামীর দণ্ড কার্যকর এখন সরকারের বিষয়। সরকার নির্ধারিত সময়ে কারা কর্তৃপক্ষ তা কার্যকর করবে।

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় মৃত্যুদণ্ডপাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। সোমবার রাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের চিকিৎসক বিপ্লব কান্তি দাস স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন। বিপ্লব কান্তি দাস জানান, তিনি শারীরিকভাবে সুস্থ আছেন। তার রক্তচাপ (প্রেসার) স্বাভাবিক রয়েছে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com