কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে “ক” ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

১০২ বার পঠিত

মেহেদী জামান লিজন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিঃ জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক শ্রেণিতে বৃহস্পতিবার ‘ক’ ইউনিটের পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়। ক-ইউনিটে ২ টি বিভাগ: বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিভাগ এবং ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগ রয়েছে। সকাল ১১:০০ ঘটিকা হতে ১২:০০ ঘটিকা পর্যন্ত বিজোড় রোল নম্বরধারী এবং বেলা ০৩:০০ ঘটিকা হতে ০৪:০০ ঘটিকা পর্যন্ত জোড় রোল নম্বরধারী পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ‘ক’ ইউনিটে মোট আবেদন পড়েছিল ৫৩২৯ টি আর আসন সংখ্যা ১৩০। মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৪৩৫৩ জন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে অর্থাৎ উপস্থিতির হার শতকরা প্রায় ৮২ জন।

পরীক্ষা শুরুর পর বিশ্ববিদ্যালয়ের  উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহীত উল আলম বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র ঘুরে দেখেন। এসময় তাঁর সাথে ছিলেন  ট্রেজারার প্রফেসর এ এম এম শামসুর রহমান, কলা অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মুশাররাত শবনম, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মো: নজরুল ইসলাম, রেজিস্ট্রার মো: আমিনুল ইসলাম, হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. সুব্রত কুমার দে, অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ হাবিবুর রহমান, বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মো: মাহবুব হোসেন, ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. বিজয় ভূষণ দাস, ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ইমদাদুল হুদা, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ড. নির্মল চন্দ্র সাহা এবং প্রক্টর ড. মো: জাহিদুল কবীর।

সকাল শিফ্টে একজন ভুয়া পরীক্ষার্থীকে কলা ভবনের ৩১২ নম্বর কক্ষ হতে আটক করা হয়। তার নাম- মো: সবুজ ইসলাম (ইদ্রিস), পিতা- মো: শহিদুল ইসলাম, বাড়ী- সাভারের হেমায়েতপুর। তার স্বীকারোক্তিনুযায়ী সে ঢাকা কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সম্মান দ্বিতীয় বর্ষের একজন ছাত্র। তার এসএসসি রেজিস্ট্রেশন কার্ডের ছবির সাথে তার চেহারার মিল না থাকায় তাকে ভুয়া বলে সন্দেহ হলে জিজ্ঞাসাবাদে সে তার দোষ স্বীকার করে। ভ্রাম্যমান আদালত তাকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদ- এবং দুইশত টাকা জরিমানা করেছে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com