,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

বাপ্পি সাহা’র একগুচ্ছ কবিতা

লাইক এবং শেয়ার করুন

বঙ্গবন্ধু মানে ইতিহাস

যুদ্ধে যুদ্ধে নয় মাস মুক্তিযুদ্ধে বাঙ্গালী বিজয়ী
লক্ষ লক্ষ মুক্তি সেনা এনে দিল বিজয় নিশান।

জয় বাংলা হল জয় আমাদের স্বাধীন পতাকা
বিজয় ভাস্কর্য হল সবুজ জমিনে রক্ত লাল।

হাজারো মায়ের কান্না মুক্তিকামী মানুষের মাঝে
স্বাধীনতা জাগরণে হানাদার হার মানে হার।

বিজয়ের পতাকায় বঙ্গবন্ধু মানে ইতিহাস
ইতিহাস কথা কয় চিরঞ্জীব সাহসী বাঙ্গালী।

চেতনার সেই মনি

যুদ্ধে যুদ্ধে নয় মাস আজ বাঙ্গালীর জয়
রক্তে রক্তে জয় বাংলাতে নেই পরাজয় ক্ষয়।

আমি তুমি এক এই বাংলা নেই বাংলাতে ভয়
সব কিছু আজ এক বৃওে মুক্তিতে জ¦লময়।

মৃওিকা আজ রেখে যায় ঘ্রাণ জুড়িয়ে আমার প্রাণ
চারদিকে আজ শুধু তাই নয় কিছু ¤্রয়িমাণ।

ইতিহাসে শুধু দেখি আমি আজ মুজিবের কাল ধ্বনি
আসবে কি ফিরে আর কখনো চেতনার সেই মনি।

স্বাধীন বাংলার দেশ

লাল সবুজের রক্তে লেখা
স্বাধীন বাংলার স্বাধীন দেশ
সেতো আমার জন্মভূমি
আমার সোনার বাংলাদেশ।

ছাব্বিশে মার্চ বঙ্গবন্ধু
করলো যে ঘোষণা,
বাঙালির মনে একটি আশা
চাই বাংলার স্বাধীনতা।

সাড়া দিয়েছিল লক্ষ জনতা
রেখেছে বাংলার মান।
বাঙালির মনে ছিল কথা
যদি যাবে যাক প্রাণ।

কবিতা লিখি

কবিতা লিখি
ভালোলাগা সত্য সুন্দরের
শান্তিময় সৃষ্টিময়…।
মানবতা!
মানবতা বিবেকবান
কখনো মানবতা বিবেকহীন মিথ্যাচারে।
চরিএ এও যেন বারবার রহস্যময়।
কিছু মানুষের
লাগামহীন চরিএে ফুটে উঠে
কবিতা চিএগল্প।
কবিতার কিছু শব্দ চয়নে
কারোর ভালো লাগে,
কারোর হৃদয়ে গেঁথে যায়
খারাপের তীব্র দীর্ঘশ্বাস।
মিলে যায় জীবনের
তাল, ছন্দহীন কথামালা।
আমি কবিতা লিখি
হৃদয় রাঙা এই পৃথিবীর।
আমি কবিতা লিখি,কবিতা লিখি
হাজারো দৃশ্যপট
এঁকে চলি একের পর এক।
কবিতা লিখি আমি…
আমি কবিতা লিখি।

এঁকে দিলাম আলপনা

কিছু কাজ অমলিন, থাকে মনে
কিছু সময় হয় সুদীর্ঘ, প্রতিক্ষণে
স্বপ্নেরা ডানা মেলে, সত্য সুন্দরের
রয়ে যায় ভালবাসা, স্মৃতির অভিসারে।

তোমার মনে এঁকে দিলাম আলপনা
স্মৃতির ক্যানভাসে ভেসে উঠবে
যখন আমি থাকবো না।

মুক্তিযোদ্ধা নামে স্বাধীনতার ভাস্কর্য

স্বাধীনতা তুমি,
লাখো শহীদের রক্ত ঝরা জীবনের বিনিময়
অর্জিত আমাদের এই জয় বাংলা।

স্বাধীনতা তুমি,
শত মায়ের নির্যাতিত বনবাস
রেকর্ড গড়া ইতিহাস।

স্বাধীনতা তুমি,
ধাতব মুদ্রার এপিঠ ওপিঠ
এক পিঠেতে হাজারো রক্তে নির্মিত স্মৃতি
আরেক পিঠেতে স্বাধীনতা নামে সুখ।

স্বাধীনতা তুমি,
নিষ্ঠুর ইতিহাসে হাজারো শহীদের
রক্তে অর্জিত বাংলার স্বাধীনতার পতাকা।

স্বাধীনতা তুমি,
যার জন্য মা দিয়েছিল সন্তানকে
তোমাদেরকে বরণ করে নিবে বলে,

স্বাধীনতা তুমি,
হৃদয়ে আঁকা রং তুলি
যে তুলি দিয়ে এঁকেছিলাম
মুক্তিযোদ্ধা নামে
স্বাধীনতার ভাস্কর্য ।

চিনিবো বলে

ছুটে চলি রাত দিন ভোর
দিগন্তের পরে দিগন্তে,
মাঝ পথে ঝড়ো হাওয়া বহে চলে
তবুও চলতে হয়
তোমাকে চিনিবো বলে।

শুধু একটাই পৃথিবী
সকালের স্নিগ্ধতা ঘন কুয়াশা শিশিরের ভেজা
গোলাপের গালিচা।
হালকা রোদেলা কিরণ
মিটিমিটি হেসে চলে আপন মহিমায়।
শুধু তোমাকে চিনিবো বলে
কবিতার কাব্যময় আজ ছন্দে
পূর্ণতায় ভালবাসার মহাপ্রলয় ঘটবে।
একটি তারার একটি ফুলে
কুল হারাবে তোমার ব্যাকুলতায়,
শুধু তোমাকে চিনিবো বলে…।

গল্প তোমাকে শোনাতে চাইনি

এই গল্প তোমাকে শোনাতে
আমিও যে চাইনি কখনো,
জানি বিষন্নতা হবে
করুণ হবে মুহূর্ত।
তোমার দুচোখ তখনি
জলে ভিজে যাবে,
আমিতো চাইনি সেই গল্প তোমাকে শোনাতে
আমি সুখ তারাকে তোমার সুখের জন্য তুলে রেখেছি।
জানতে চাওনি কখনো
তুমি জানতে চেয়োনা,
বাঁধা আসবে ভেবেও পুষে রেখেছি তোমার জন্য
শিশিরের জমানো বিন্দু জল হাসি।
তোমার জন্য গান বেঁধেছিলাম,
দুঃখের কান্নায় সব ভেসে গেলেও
তোমাকে শোনাতে কখনো চাইনি।

আমি ফুল পাখিকে প্রেমের পাখি ভেবে
কখনো উড়াতে চাইনি,
গোধূলি বেলায় হঠাৎ মেঘের দেখা
রংধনুর সাত রঙে সাজিয়েছিলাম
হলির হলিতে খেলে যাই
খেলে যাই,
এই গল্প তোমাকে শোনাতে চাইনি।

ভালবাসি এক বিন্দু জল

ভালবাসি এক বিন্দু জল
ভালবাসি তোমাকে
সাগর যত হোক উত্তাল,মহাসাগর ও দেব পাড়ি।
রাত যত আধার হোক হবে জোছনা বিলাস
তোমাকে  ভালবাসি।
মায়া ভরা এই পৃথিবী
ময়ূরী পেখম মেলে
মায়াবী মায়া আজ বিছিয়েছি হৃদয়ে
আসবে যত আসুক দুঃখ
আসবে ঘুড়ে ফিরে সামনে তোমার মুখ
তোমাকে ভালবাসি হবে সুখের স্বর্গ সুখ।
ফুলের সুরভি ছড়াবে ভালবাসার পবিত্র বাগানে।
আমার ভালবাসা নয় তোমার কাছে সংগোপনে।
তুলির অপূর্ব আঁচরের মত এঁকে চলি
আমার ভাললাগার প্রতিচ্ছবি
আমি অনুভব করি
তোমার অস্তিত্ব।
আমি টের পাই তোমার হৃদয়ে আতœার বন্ধন।
ভালবাসি ভালবাসি।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ