,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

বাপ্পি সাহা-এর একগুচ্ছ কবিতা

লাইক এবং শেয়ার করুন

পথ চেয়ে

আমি অনন্তকাল তোমার পথ
চেয়ে থাকবো।
আমার বিশ্বাস
তুমি আবার আমার কাছে ফিরে আসবে।
ভালোবাসার
বৃষ্টিতে আমাকে ভেজাবে। কোন এক
দুপুরে তুমি আমার হাত ছুঁয়ে বলেছিলে “সারা জীবন
তুমি আমার হয়ে থাকবে”।
সেদিনের কথা ভেবে আজো আমার
চোখের পানি নীরবে ঝরে , আর সেই
চোখের পানি বৃষ্টির
সাথে মিশে একাকার হয়ে যায়।
কেন চলে গেলে
আমায় একা রেখে
তুমি ছাড়া আমি হায় বড় একেলা।

ডিজিটাল কবি

বন্ধু তোমার নাম লিখেছি
হৃদয় মাঝে,
তোমায় নিয়ে ভাবনা আমার
সকল কাজে।
তুমি আমার নয়ন তারা
স্বপ্নে আঁকা ছবি
তোমার প্রেমে অন্ধ আমি
ডিজিটাল এক কবি।
স্বপ্ন আঁকি স্বপ্ন দেখি
শুধু তোমায় নিয়ে
করবো প্রেম ঠিক-ই
করবো নাতো বিয়ে।

মনের কথা পঙ্ক্তি

তুমি আমার আমি তোমার
ভিজবো  অথই জলে
তোমায় নিয়ে স্বপ্ন আমার
ভেড়াবো  হৃদয় কূলে।

তোমায় নিয়ে নীল প্রজাপতি
শঙ্খ ঝিনুক ডানা
ভালোবাসতে নেই
নেই কোন আজ মানা।

আমার মনের বাগানে তুমি যে
তুমিই প্রথম ফুল
মনে চেয়ে রাখবো যতনে
দেব হীরার নাকের ফুল।

আজ মনে হলো রঙিন
তাক ধি নাধিন ধিন
তোমার আমার স্বপ্ন
এতো ভালোবাসার ঋণ।

আলোকিত প্রতিটি পরতে

জানো কি আজ যত অভিমান
মেঘে ঢাকা আকাশের সমান
জানো কি আজ এই যত স্বপ্ন
সাত রংয়ের রংধনুর আকাশ
তুমি কি চাও ভালোবাসা পেতে
যদি চাও তাহলে ভালোবাসা দেবো নীল আকাশের মত
ভালোবাসার অবকাশে তোমার হৃদয়টাতে
করবো শ্বেত পাথরের মত ক্ষত।
জানো কি আজ যত ভালোবাসা
তোমার স্পন্দনে আঁকা কোটি কণিকা
মনের মাধুরীতে আলোকিত
আকাশের সব তারা
সত্যি তুমি কি চাও ভালোবাসা পেতে
যদি চাও তবে জোছনা হবো
মায়া হাসিতে ভরাবো মনাকাশ
জেগে রবে চাঁদ মেঘের ফাঁকে
জানো কি তোমার মায়া ভরা দুচোখের জল
সমুদ্রের উত্তালে প্রলয় বইছে মনের ভেতর
মনে পড়ে আজো
তোমার মায়াবতী চোখ আর দুঠোঁটের হাসি
পূর্ণিমার আলো, আলোকিত প্রতিটি পরতে পরতে।

ঈদের খুশি

ঈদের খুশি যাক ছড়িয়ে
দেশটা জুড়ে আজ
সেই খুশিতে নাচবো সবাই
নেইতো কোন লাজ।

ঈদের খুশির আনন্দেতে
হারিয়ে যাবো সবাই
কোরবানিতে গরু মুহিষ
করবো  কত জবাই।

নতুন জুতো নতুন জামা
ঈদ এসেছে বলে
খুশির মাঝে হারিয়ে যাবো
ঈদটা যাবে চলে

আজ কি যেন মায়া

আজ কি যেন মায়া উত্তাল ঢেউয়ে
পূর্ণিমার পুণ্যতায় আজ কেন যেন ক্লান্ত এই হৃদয়
মায়ার জোছনায় বারবার ফিরে পেতে ইচ্ছে করে
ইচ্ছে করে তোমাকে নিয়ে
নীলাঞ্জনার নীলে সুপ্ত ভালোবাসার প্রহর কাটাতে,
তোমায় কাছে পেতে চায়
খুব কাছে
ঠিক যেন লাবণ্যময়
আমারই মত করে,

ভাবছো কিসের এত আহ্লাদিপনা
কেন আবার মায়ার ধূম্রজাল
এইতো ভালোবাসা
ভালোবাসা বিনিদ্র রজনী
তোমাকে পাবার, কাছে রাখবার
আমার প্রচেষ্টা,
ভালোবাসতে শিখেছি
ভালোবাসতে শিখেছি
এ তো পবিত্রতা,
স্রষ্টার সৃষ্টির মাঝে মধুর সম্পর্ক।

সিক্ত করবো ওষ্ঠাধর

মাঝরাতের বৃষ্টি
স্নান করিয়ে গেল
ঘুমন্ত দিগন্তকে
দিগন্তের যত আবর্জনা কালের জীর্ণতা
বর্ষণের ফোঁটায় হয় পরাজিত
স্মৃতির স্তূপ ভাঙ্গতে গিয়ে ক্লান্ত হই।
বর্ষণে ধুয়ে যায় প্রকৃতির কষ্ট

ধুয়ে যাবে কোন জলে
হৃদয়ে জমাট ব্যথার সৌধ?
অপূর্ব বৃষ্টি হয়ে ঝরে পড়ে সাগরে
ঝুম ঝুম গাঁথা বৃষ্টির শব্দে
সাগরে ঢেউ খেলার এই সুরে
বৃষ্টির অপূর্ব ছাড়ায় ভালোবাসা আসে হৃদয়ে।

বৃষ্টিতে সদ্য স্নান করা বৃক্ষরাজি
ঝক্ ঝক্ সবুজ পাতা, তৃণের গালিচা।
হঠাৎ চোখ পড়ে গেল তোমার প্রাণে
কখনো যদি বৃষ্টি হই
সিক্ত করবো ওষ্ঠাধর
ভিজিয়ে দেব দেহের পরতে পরতে
বর্ষার নির্মল রাত্রি ছুঁয়ে দেয় ইন্দ্রনীল স্বপ্নে।

মন কেন যেন এমনটা হয়?

নিঠুর পৃথিবীতে এখন আর কেন যেন,
বাঁচার ইচ্ছে জাগে না
তোমাকে নিয়ে দুএকটা ছন্দ লিখবো ভাবি
তাও যেন আসেনা,
অনেক স্বপ্ন অনেক আশা ছিল
ভেঙ্গে চুড়মার করে দিতে চাচ্ছে মন
তোমাকেই শুধু ভালোবেসেছিলাম?
না-
শুধু ভালোবাসা এই মনকে নিয়েই!

মন যেন আর তোমার কথাগুলো ভাবায় না
দুচোখের কোনে না পাবার ব্যদনায় জলও আসে না।
খুব যেন দূরে ঠেলে দিচ্ছে মন
ভালোবাসার জন্য মন বলে কি কিছু নেই আমার?


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ