,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

ঢাকা-খুলনা-কলকাতা রুটে বাস ছুটবে ২২ মে : টিকিট বিক্রি শুরু

লাইক এবং শেয়ার করুন

মোহাম্মদ রাহাদ রাজা,খুলনা বিভাগীয় স্টাফ রিপোর্টারঃ ঢাকা-খুলনা-কলকাতা রুটের জন্য প্রস্তুত যাত্রীবাহী বাস। আগামী ২২ মে থেকে বাস চলাচল শুরুর সম্ভাবনা রয়েছে। সব ঠিক থাকলে এদিন ঢাকা থেকে মাওয়া ঘাট দিয়ে খুলনা হয়ে সরাসরি কলকাতার উদ্দেশ্যে ছুটবে বাস। আজ রবিবার (১৪ এপ্রিল/১৭)থেকে গ্রীন লাইন পরিবহন খুলনা কাউন্টার থেকে টিকিট বিক্রি শুরু হচ্ছে। এ রুটে নির্ধারণ করা হয়েছে বাস ভাড়া ও সময়সূচি।           

বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট করপোরেশনের (বিআরটিসি) ও বেসরকারি গ্রীনলাইন পরিবহনের যৌথ উদ্যোগে ঢাকা থেকে বাস সার্ভিস চালু হচ্ছে। সপ্তাহে তিন দিন বাসটি ঢাকা থেকে মাওয়া দিয়ে খুলনা হয়ে কলকাতা যাবে। বাকি তিন দিন কলকাতা থেকে খুলনা হয়ে ঢাকায় যাবে।  

গ্রীনলাইন পরিবহনের খুলনা ব্রাঞ্চ ইনচার্জ মীর শহীদুজ্জামান জানান, খুলনা-কলকাতা রুটের যাত্রীবাহী বাস চলাচলের তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে। বাংলাদেশে বাস চলাচলের সকল প্রস্তুতি থাকলেও কলকাতায় জটিলতার কারণে ১৫ মে এর পরিবর্তে ২২ মে বাসের যাত্রা শুরু হচ্ছে। বিআরটিসি’র উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বিষয়টি নিশ্চিত করার পর এ রুটে টিকিট বিক্রির কাজ শুরু হয়েছে। ২২ মে’র বাস যাত্রার টিকিট এখন থেকেই পাওয়া যাচ্ছে। খুলনা থেকে কলকাতা পর্যন্ত টিকিটের মূল্য ১ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।  

পরিবহনের স্থানীয় কাউন্টারে গিয়ে জানা যায়, ঢাকা থেকে বাসটি সপ্তাহে তিন দিনের মধ্যে সোমবার, বুধবার ও শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টায় কলকাতার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে। আগামী ২২ মে সকাল সাড়ে ৭টায় কমলাপুর বিআরটিসির আন্তর্জাতিক বাস টার্মিনাল থেকে বাসটি ছেড়ে মাওয়া হয়ে দুপুরে খুলনায় আসবে। মধ্যহ্নভোজের বিরতির পর দুপুর দেড়টায় বাসটি খুলনা থেকে কলকাতার সল্ট লেক করুণাময়ী সেন্ট্রাল বাস টার্মিনালের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে। ঢাকা থেকে আসন প্রতিটি দেড় হাজার এবং খুলনা থেকে এক হাজার টাকা ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। অপরদিকে মঙ্গলবার, বৃহস্পতিবার ও শনিবার কলকাতা থেকে ছেড়ে আসবে। দুপুরে খুলনায় বিরতির পর ফের ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হবে। বিলাসবহুল বাসটিতে মোট আসন থাকবে ৪০টি।

স্থানীয় কাউন্টারের ম্যানেজার এম এ খায়ের মিয়া ও মোঃ আইয়ুব হোসেন বলেন, এখন থেকে খুলনা-কলকাতা রুটে সরাসরি যাত্রা করতে পারবে যাত্রীরা। বিলাসবহুল বাসটিতে যাত্রীদের ভ্রমণ খুবই ভালো হবে। যাত্রার ক্ষেত্রে যাত্রীদের পাসপোর্ট ও ভিসা অবশ্যই থাকতে হবে। ব্যাপক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। টিকিটসহ যাত্রার বিষয়ে নানা তথ্য জানতে খুলনার যাত্রীরা কাউন্টারে আসছেন যাত্রীরা ।   

অন্যদিকে জানা গেছে, খুলনা-কলকাতার রুটে বাস চলাচলের জন্য নগরীর সাত রাস্তার মোড়ে শ্যামলী পরিবহনের একটি কাউন্টারও বসিয়েছেন। খুব শিগগিরই এটি উদ্বোধন করা হবে বলে জানিয়েছেন পরিবহণের কর্মকর্তারা ।    
খুলনা থেকে বেনাপোলে সরাসরি কোনো বাস সার্ভিস না থাকায় দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীরা। সরাসরি বাস সার্ভিস চালু হলে ভ্রমণ ভোগান্তি কমার সঙ্গে বাস সার্ভিসের চাহিদা বাড়বে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

উল্লেখ্য যে, ১৯৯৮ সালে প্রথম কলকাতা-ঢাকার মধ্যে যাত্রীবাহী বাস চলাচল শুরু হয়েছিল। এরপর ২০১৫ সালে কলকাতা-ঢাকা আগরতলার মধ্যে চালু করা হয় যাত্রীবাহী বাস। সর্বশেষ গত ৮ এপ্রিল নয়া দিল্লী থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে খুলনা-কলকাতা রুটে বাস ও ট্রেন চলাচলের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।  

 

 


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ