,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

দুই সন্তানের জননীকে দুই পুরুষের দাবি., স্বামী কে ?

লাইক এবং শেয়ার করুন

জেলা প্রতিনিধি (পটুয়াখালী) : পটুয়াখালীর বাউফলে দুই সন্তানের এক জননীকে ( ২২) স্ত্রী হিসাবে দাবি করেছেন দুই পুরুষ। আসলে তার প্রকৃত স্বামী কে ? আজ বৃহস্পতিবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে পুলিশ তা নিরুপনের জন্য তাদের পটুয়াখালী আদালতে প্রেরণ করছেন।

জানা গেছে, বাউফল পৌর শহরের ৭নং ওয়ার্ডের বকুলতলা এলাকার জনৈক এক কর্মকারের ( ৩৫) স্ত্রীর সাথে চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের চর ওয়ার্ডেল গ্রামের এক যুবকের ( ২০) মোবাইল ফোনে ( রং নম্বরের সূত্র ধরে ) পরিচয় হয়। এর পর তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে এবং এ সম্পর্ক চলে দীর্ঘ ৫ বছর ধরে। একপর্যায়ে তা শারিরীক সম্পর্কে গড়ায়।
গত বছর দুই সন্তানের ওই জননী তার প্রেমিককে বিয়ে করেন। কিন্তু এ বিয়ে গোপন রেখে তিনি প্রথম স্বামীর ঘরেই বসবাস করতে থাকেন। গত ১৩ এপ্রিল তিনি প্রথম স্বামীর বাড়ি ছেড়ে দ্বিতীয় স্বামীর বাড়িতে গিয়ে ওঠেন। তখন সাথে করে তার ছোট সন্তানকে নিয়ে যান। ওই সন্তানের বয়স দুই বছর।

এ ঘটনায় বুধবার প্রথম স্বামী বাউফল থানায় একটি মামলা করলে ( মামলা নং ২৫ তারিখ ২৬/৪/১৭) এএসঅই রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশ চর ওয়াডেল থেকে দুই সন্তানের ওই জননীকে তার দ্বিতীয় স্বামীসহ গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসেন। এরপর শুরু হয় নানা নাটকীয়তা। প্রথম স্বামী তার স্ত্রী ও সন্তানকে ঘরে ফিরিয়ে নিতে নানা চেষ্টা করে ব্যার্থ হন।

দুই সন্তানের ওই জননী জানান , প্রথম স্বামীর সাথে তার কোন সম্পর্ক নেই। দ্বিতীয় সন্তানটি তার দ্বিতীয় স্বামীর। তিনি নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে দ্বিতীয় বিয়ের কাগজপত্র দেখালেও প্রথম স্বামীকে তালাক দেয়ার কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেননি।

এ ব্যাপারে, বাউফল থানার ওসি আযম খান ফারুকী বলেন , বিষয়টি অসম হওয়ায় , প্রথম স্বামীর দায়েরকৃত মামলায় স্ত্রী ও দ্বিতীয় স্বামীকে গ্রেফতার দেখিয়ে পটুয়াখালী আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। আদালত সিদ্বান্ত দেবেন , তার প্রকৃত স্বামী কে?


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ