,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

টাঙ্গাইলে খারাপ চোখ বাদ দিয়ে ভালো চোখে অস্ত্রোপচার

লাইক এবং শেয়ার করুন

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি # চোখের সমস্যা নিয়ে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হয়েছিলেন মালেকা বেগম। চোখ দেখামাত্র ডাক্তারের পরামর্শ আজই অস্ত্রোপচার করতে হবে। উপায় না পেয়ে রোগীর স্বজনরা রাজি হয়ে যায়। কিন্তু অস্ত্রোচারের কক্ষে গিয়ে ঘটে যায় বিপত্তি। যে চোখে সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন সেটিতে অস্ত্রোপচার না করে, ভুল করে ভালো চোখে অস্ত্রোপচার করেন চিকিৎসক। ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইলের রোকেয়া আই সেন্টারে।

শুক্রবার সন্ধ্যার ওই ঘটনার পর থেকে হাসপাতালে উত্তেজনা বিরাজ করছে। রোগীর স্বজনরা জানান, ডান চোখের সমস্যা দেখা দেয়ায় গতকাল সকালে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ভাল্লুককান্দি এলাকার মরহুম খোরশেদ আলমের স্ত্রী মালেকা বেগমকে রোকেয়া আই কেয়ার এন্ড ফেকো সেন্টারে আনা হয়। চোখ দেখার পর চিকিৎসক মোস্তফা সরোয়ার আজই ডান চোখে অস্ত্রোপচার করার পরামর্শ দেন। রোগীর স্বজনরা রাজি হলে সন্ধ্যায় মালেকা বেগমকে অস্ত্রোপচার কক্ষে নিয়ে যাওয়া হয়। অবশ করার প্রয়োজনীয় ওষুধ দেয়ার পর চিকিৎসক ভুল করে বাম চোখে অস্ত্রোপচার শুরু করেন। ব্যথায় কাতর হয়ে রোগী চিৎকার করে বাম চোখে কেন অপারেশন করা হচ্ছে তা জানতে চান।

এ সময় চিকিৎসক তাকে ধমক দিয়ে চুপ থাকতে বলে জানান, দুই চোখেই অস্ত্রোপচার করতে হবে। অস্ত্রোপচার শেষে রোগীর স্বজনরা বিষয়টি জানতে পারলে হাসপাতালে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। স্বজনরা ক্ষতিপূরণসহ হাসপাতালের মালিক ও চিকিৎসকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। মালেকা বেগম এখন কোনো চোখেই দেখতে পারছেন না। এ ঘটনায় রোগীর ছেলে শিপন আহমেদ বাদী হয়ে টাঙ্গাইল মডেল থানায় একটি মামলা করেছেন। মামলায় তিনজনকে আসামি করা হয়েছে। প্রধান আসামি করা হয়েছে হাসপাতালের চিকিৎসক ও মালিক ডা. মোস্তফা সরোয়ারকে।

এ ব্যাপারে চিকিৎসক মোস্তফা সরোয়ার জানান, ‘রোগীর দুই চোখের অবস্থাই খারাপ ছিল। দুই চোখেরই অস্ত্রোপচার করতে হবে। তাই বাম চোখ অস্ত্রোপচার করেছি। কয়েকদিন পরেই ডান চোখ অস্ত্রোপচার করতে হবে।’ অস্ত্রোপচারের ফলে রোগী দুই চোখেই দেখতে পারছে না এমন প্রশ্নে তিনি জানান, ধীরে ধীরে চোখ স্বাভাবিক হবে।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ