,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

খুলনা বিভাগের মংলা বন্দরে খাদ্য সংকটে ৪৫ নাবিক

লাইক এবং শেয়ার করুন

মোহাম্মদ রাহাদ রাজা,স্টাফ রিপোর্টার ,খুলনা বিভাগঃ খুলনা বিভাগের মংলা বন্দরের ফেয়ারওয়ে বয়ায় বঙ্গোপসাগরে কয়লাবোঝাই একটি জাহাজে দেশি-বিদেশি ৪৫ নাবিক বিশুদ্ধ পানি ও খাদ্য সংকটে মানবেতর দিন কাটাচ্ছেন। জাহাজটির নাবিকরা অনাহারে থেকে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় সমুদ্র উত্তাল থাকায় বিদেশি ওই জাহাজটিতে খাবার পানি ও খাদ্য সামগ্রী পৌঁছানো সম্ভব হচ্ছে না। কয়লা খালাসে ও খাবার নিয়ে যাওয়া চারটি লাইটার (কার্গো) ওই জাহাজটির সঙ্গে ভিড়তে না পারায় ইতোমধ্যে সেগুলো ফেরত এসেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, পানামা পতাকাবাহী এমভি স্টার অপায়া নামের বিদেশি জাহাজটি প্রায় ২৭ হাজার ৪৫০ মেট্টিক টন কয়লা নিয়ে গত (১২ মার্চ/১৭) মংলা বন্দরের ফেয়ারওয়ের শেষ বয়া এলাকায় অবস্থান করে। গত ২৪ মার্চ জাহাজটির কয়লা খালাস কাজে শ্রমিক নিয়োগসহ দুটি লাইটার পাঠানো হয়। প্রথম পর্যায়ে ওই দুটি লাইটারে করে ২ হাজার ৫০০ মেট্টিক টন কয়লা খালস করা হয়েছে। পরে জাহাজে থাকা শ্রমিকের জন্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী ও খালাস কাজে আরও ৪টি লাইটার পাঠানো হলেও সমুদ্র উত্তাল থাকায় জাহাজের সঙ্গে ভিড়তে না পেরে সেগুলো ফেরত আসে।

মংলা থেকে ওই জাহাজে কাজ করতে যাওয়া স্থানীয় ২২ শ্রমিক-কর্মচারী খাদ্য, পানি ও প্রয়োজনীয় মালামাল গত ২৮ মার্চ ফুরিয়ে যায়। অপরদিকে দীর্ঘ সময় সমুদ্রে অবস্থান ও বন্দর চ্যানেলে না আসতে পারায় জাহাজটিতে থাকা বিদেশি ২৩ নাবিকও পানি ও খাদ্য সংকটে পড়েছেন। দেশি-বিদেশি জাহাজের ৪৫ নাবিক বর্তমানে খাদ্য সংকটে মানবেতর দিন কাটাচ্ছে।

রবিবার (২ এপ্রিল/১৭) দুপুরে ওই জাহাজের ক্রেন ড্রাইভার মাসুম মোবাইল ফোনে জানান, বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজটিতে ২৩ জন ক্রু রয়েছে। তাদেরও প্রয়োজনীয় রসদ না থাকায় শ্রমিকদের খাদ্য সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়ছে। এ অবস্থায় অনাহারে থেকে দেশীয় ৩ ক্রেন ড্রাইভার মোয়াজ্জেম, মাসুম ও বাদশা মিয়া গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছে।

খাদ্য সংকটের বিষয়টি শ্রমিক নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানকে জানানো হলেও কার্যকর ব্যবস্থা নিতে পারছেন না। এ প্রসঙ্গে শ্রমিক নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স খুলনা এজেন্সির মংলাস্থ ম্যানেজার হাবিবুর রহমান বলেন, বিদেশি জাহাজটিতে থাকা দেশীয় শ্রমিকদের জন্য বিকল্প পন্থায় বিশুদ্ধ পানি, খাদ্য এবং প্রয়োজনীয় রসদ পাঠানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

গভীর সমুদ্রে অবস্থানরত বিদেশি ওই জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট কসমস শিপিং লাইন্সের খুলনাস্থ ম্যানেজার সিরাজুল ইসলাম আমাদের স্টাফ রিপোর্টার ,খুলনা বিভাগ কে বলেন, এমভি স্টার অপায়া নামের কয়লাবোঝাই জাহাজটি গত ২০ মার্চ মংলা বন্দরের হাড়বাড়িয়ায় প্রবেশ করার কথা ছিল। কিন্তু বৈরী আবহাওয়ার কারণে পণ্য খালাস করে ড্রাফ কমাতে না পারায় বন্দর চ্যানেলে আসতে পারেনি। যে কারণে কয়লাবোঝাই জাহাজটিকে গভীর সমুদ্রে দীর্ঘ সময় অবস্থায় করতে হচ্ছে। এতে দেশীয় শ্রমিক ও বিদেশি নাবিকদের খাদ্য কিছুটা ঘাটতি দেখা দিয়েছে। তবে বর্তমানে জাহাজে যে পরিমাণ খাদ্য ও পানীয় রয়েছে তাতে আরও ৩/৪দিন চলবে বলে জানান তিনি।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ