,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

ভালুকায় ঝড়ে রোপিত কলাবাগানের ব্যাপক ক্ষতি : কৃষকের মাথায় হাত!

লাইক এবং শেয়ার করুন

সফিউল্লাহ আনসারী, ভালুকা (ময়মনসিংহ) : উপজেলা সদর থেকে প্রায় ১৫কিলোমিটার দুরে হবিরবাড়ী ইউনিয়নের পাড়াগাঁও মৌজার গাংগাটিয়া গ্রামের কৃষক ইসমাইল এর কলা বাগানে গত শনিবার সকালে বয়ে যাওয়া ঝড়ের তান্ডবে লন্ডভন্ড অবস্থা। কৃষকের মাথায় যেনো বাজ পড়েছে।
মঙ্গলবার(২৮মার্চ) সরেজমিনে ওই কলা বাগানে গিয়ে দেখা যায় শত শত কলা গাছ ছড়িসহ ভেঙ্গে উপুর হয়ে পড়ে আছে। চোখে না দেখলে এর ক্ষয়-ক্ষতি আন্দাজ করা কঠিন। ওই এলাকার কৃষক রফিকুল ইসলাম ইসমাইল ও ফজলু মিয়া ২৭২দাগের সাড়ে ৮ বিঘা নিজের ও লীজ নেওয়া জমিতে আড়াই হাজার কলার চারা রোপন করে পরিচর্যার এ পর্যায়ে সকল গাছে কলার মোছা থেকে কলা বড় হচ্ছিল। ঠিক এ সময় এ দুর্যোগ যেনো তাদের পথে বসার উপক্রম হয়েছে।

কলাক্ষেতে দাড়িয়ে কথা হয় কৃষক ইসমাইলের সাথে তিনি বলেন- এ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৪ লক্ষাধীক টাকা খাটিয়ে কলার ছড়ি বড় করে বিক্রির পরিকল্পনা করছিলাম,এমন মুহুর্তে প্রচন্ড ঝড়ে ধুলিষ্যাৎ হয়ে গেছে আমার স্বপ্ন এবং কয়েক লক্ষ টাকার ক্ষতির সম্মোক্ষীন হলাম। সরকারী বা কোন সংস্থা তাদের ক্ষতি পূরণের আশ্বাস বা কেউ খোঁজ নেয়নি বলেও জানান ওই কৃষক। এই কৃষকের প্রায় ৬লক্ষাধীক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে তিনি জানান। বিশেষ করে ক্ষতিগ্রস্থ বাগানে চিনি চাম্পা ও সাগর কলার চাষ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাইফুল আজম খান বলেন-গত শনিবারের ঝড়ে অন্যান্য ফসলের তেমন ক্ষয়-ক্ষতি না হলেও বিভিন্ন এলাকায় কলাক্ষেতের ক্ষতির খবর পেয়েছি। এবং ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা করা হচ্ছে। এ বছর ভালুকা সাড়ে ৩শত হেক্টর জমিতে কলার আবাদ হয়েছে বলেও তিনি জানান। ভালুকা উপজেলা মল্লিকবাড়ী, উথুরা, ডাকাতিয়া, হবিরবাড়ীসহ প্রায় সকল ইউনিয়নেই কলার আবাদ হয়। যা এলাকার চাহিদা মিটিয়ে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে রপ্তানী হয়।

পাড়াগাঁও এলাকায় ঐদিনে ঝড়ে বাবুল বেপারি,রশিদ,মোর্শেদসহ অনেক বাণিজ্যিক উৎপাদনে নিয়োজিত কৃষকের কয়েক লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে জানা গেছে। উল্লেখ,এ এলাকায় ব্যাপকহারে কলার বাণিজ্যিক উৎপাদন হয়ে থাকে। এ বছরও বাম্পার ফলনের আশা করলেও অনেক কৃষক ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন। তারা সরকারি সহযোগীতার দাবী জানান।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ