,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

ভালুকায় সড়ক দূর্ঘটনার এক স্কুল শিক্ষার্থীর মৃত্যু; রাস্তা অবরোধ ও ২টি গাড়ীতে আগুন

লাইক এবং শেয়ার করুন

সফিউল্লাহ আনসারী, প্রতিনিধি: ১০মার্চ শুক্রবার বিকাল ৫টায় ভালুকা উপজেলার হবিরবাড়ী আমতলি নামক স্থানে কোকাকোলার সামনে সড়ক দূর্ঘটনায় এক স্কুল শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় এনা পরিবহন(ঢাকা মেট্রো-ব-১৪-৪১০৫) ও আলম এশিয়া পরিবহনের দুটি গাড়ীতে আগুন দিয়েছে বিক্ষোদ্ধ জনতা। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানাযায়, লবনকোঠা গ্রামের মোশারফের মেয়ে তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রী সীমু আক্তার (৮) রাস্তা পারাপারের সময় ময়মনসিংহগামী আলম এশিয়া পরিবহনের একটি বেপরোয়া বাস (ময়মনসিংহ-ব-১১-০০০৩৮) চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

এ ঘটনার জেওে স্থানীয় বিক্ষোদ্ধ জনতা ময়মনসিংহগামী অন্য একটি এনা পরিবহনের বাস কোকাকোলার সামনেই এবং সিডষ্টোর বাজারে ঘাতক আলম এশিয়া পরিবহনের বাসটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সাভির্সের লোকজন ঘটনা স্থলে পৌঁছার পুর্বেই প্রায় এক ঘন্টা সময় অতিবাহিত হয় এবং গাড়ীদ‘ুটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়।ভালুকা মডেল থানার পুলিশ এসে যান চলাচল স্বাভাবিক করে। এদিকে উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়নের জামিরদিয়া ধানের খলা মোড় এলাকায় বৃহস্পতিবার রাতে একটি মোদি দোকান ও একটি স্টুডিওতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে প্রায় ৭ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। খবর পেয়ে ভালুকা ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ফায়ার সাভির্স সূত্রে জানা যায়, রাত আনুমানিক সারে ৩টার দিকে জামিরদিয়া ধানের খলা মোড় এলাকায় কামরুল সুপার মার্কেটে রেজাউল করিমের সোহান সিয়াম স্টোর ও সুমন রানার বৈশাখী ডিজিটাল স্টুডিওতে আগুন লাগলে মুহূর্তে সারা ঘরে আগুনের লেলিহান শিখা ছড়িয়ে যায়। এতে স্থানীয় লোকজন বাদশা টেক্সটাইল এক্সটেনশন এর হৌজ পাইপের মাধ্যমে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। আগুন নেভানোর শেষ মূহুর্তে ভালুকা ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নেভানোর কাজে যোগ দেন। আগুনে দোকানের সমস্ত মালা মালামাল ভষ্মিভূত হয়ে যায়। দোকান ঘরটি বিল্ডিং হওয়ায় আগুন বাহিরে ছড়াতে পারেনি।

এ সময় আতংকগ্রস্ত হয়ে আশ পাশের কয়েক টি দোকানের মালামাল ঘর থেকে বাহির করে নেয়।মুদি দোকান মালিক রেজাউল করিম জানায়, কিভাবে আগুন লাগল সে কিছুই জানেনা তবে আগুনের তাপে তার ঘুম ভাঙ্গলে সে দ্রুত দোকানের সাটার খোলে বেরিয়ে আসে। আগুনে তার দোকানের ক্যাশে রাখা নগদ ত্রিশ হাজার টাকা সহ প্রায় সাড়ে পাঁচ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। স্টুডিও মালিক সুমন রানা জানায়, বাসা থেকে আগুনের খবর পান, আগুনে তার দোকানে রাখা নগদ আট হাজার টাকা সহ প্রায় আড়াই লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

ভালুকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুরারজী দেশাই বর্মন বলেন আমি ঘটনাটি শুনেছি। এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলেছি। ভালুকা ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ইনচার্জ রেজাউল করিম জানায়, মোদি দোকানে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত। প্রাথমিক অবস্থায় ক্ষতির পরিমাণ দুই লক্ষাধিক হতে পারে তবে তদন্ত করার পর বলা যাবে সত্যিকারের ক্ষতির পরিমাণ।মার্কেট ও আশে পাশের অন্যান্য দোকান মালিকগণ জানান, আগুনে দুটি দোকানের প্রায় সাত আট লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ