,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কুষ্টিয়া নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে মামলা দায়ের

লাইক এবং শেয়ার করুন

মোঃ রাজন আমান, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি # বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের পরিচালন ও সংরক্ষণ বিভাগের কুষ্টিয়া ডিভিশনের প্রকৌশলী (বর্তমান তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী) নৈমুল হকের বিরুদ্ধে অনিয়ম, সেচ্ছাচারিতা,ক্ষমতার অপব্যবহারসহ ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগ রয়েছে, তিনি নির্বাহী প্রকৌশলী থাকাকালীন সময়ে, গঙ্গা কপোতাক্ষ সেচ প্রকল্প বাস্তবায়নের নিমিত্তে কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারা থানাধীন ভেড়ামারার পৌর এলাকার নওদাপাড়ার ৩১ নং মৌজার ৬.২৫ একর জমি বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড অধিগ্রহন করে। তবে কোন কারনবশতঃ জমি পতিত অবস্থায় পড়ে থাকে ঐসব জমির পূর্বাপর মালিকরা বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাছ থেকে মাঝে মধ্যে লীজ/ বন্দোবস্ত নিয়ে তা ভোগ দখল করতে থাকে। বেশ কয়েক বছর পূর্বেই পানি উন্নয়ন বোর্ডের সেচাগার ও সংরক্ষণ (সেচাগার) ভেড়ামারা,কুষ্টিয়া বিভাগের কার্যক্রম সঙ্কুচিত ও ভেড়ামারা ডিভিশন উক্ত অধিগ্রহণ কৃত জমি অপব্যবহৃত ও পতিত হয়ে পড়ে। এমতাবস্থায় ভেড়ামারা পৌর এলাকার নওদা পাড়ার ৩১ নং মৌজার সি,এস ১২৩,১২৩/৪৪১ ও ১৫১ নং দাগের ২৪ শতক জমিসহ অন্যান্য অধিগৃহীত সম্পত্তির পূর্বাপর জমির মালিকরা ঐ জমির লীজ/ বন্দোবস্ত পাবার জন্য বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে একাধিকবার আবেদন করেও বন্দোবস্ত পাননি। এক্ষেত্রে নির্বাহী প্রকৌশলী বিভিন্ন কৌশলে এবং মোটা অংকের উৎকোচ গ্রহনের মাধ্যমে অন্য আবেদনকারীদের লীজ বন্দোবস্ত প্রদান করে প্রচলিত লীজ/ ইজারা আইনের শর্ত ভঙ্গ করে চলেছেন।

অভিযোগে আরো জানা যায়, এদিকে লীজ গ্রহীতা লীজ/ ইজারার ৫ নং শর্ত ভঙ্গ করে গোপনে রাতারাতি আর,সি,সি পিলার দিয়ে প্রাচীর নির্মাণ করে প্রাচীন কাঁঠাল গাছ কেটে সাবাড় করে নিয়েছেন। বিষয়টি নির্বাহী প্রকৌশলী কুষ্টিয়া দপ্তর অবহিত হলেও তাঁদের বিরুদ্ধে অজ্ঞাত কারনে কোন আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করেননি। শুধু এখানে শেষ নয়  জমি নিয়ে আদালতে মামলায় পরাজিত হয়েও সেই জমি লীজ দিয়েছেন। এ ব্যাপারে কুষ্টিয়া -২ (ভেড়ামারা-মিরপুর) আসনের সাংসদ মাননীয় তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু’র সুপারিশকেও আমলে নেননি এস,ই (তৎকালীন নির্বাহী প্রকৌশলী) নৈমুল হক। এ ব্যাপারে ভূক্তভোগী পূর্বাপর মালিকপক্ষ সংস্লিষ্ট দপ্তরে তদবির করলেও নির্বাহী প্রকৌশলী নৈমুল হকের প্রত্যক্ষ বিরোধীতার কারনে সেই তদবির সফল হয়নি । ভূক্তভোগীরা তাঁর বে-আইনী কাজকর্ম থেকে প্রতিকার পাবার জন্য ভেড়ামারা সহকারী জজ আদালত কুষ্টিয়াতে ১৩৭/১৬ দেওয়ানী মামলা রুজু করেছেন। চিহ্নিত দুর্নীতিবাজ ও প্রভাবশালী সরকারী কর্মকর্তা বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড কুষ্টিয়া প ও র বিভাগের নৈমুল হকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় আইনত ব্যবস্থা গ্রহনের পাশাপাশি ভূক্তভোগী পূর্বাপর জমির মালিক পক্ষকে লীজ বন্দোবস্তের শর্তানুযায়ী লীজ প্রদানের জন্য বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন জমির মালিক সহ এলাকার সচেতন সমাজ।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ