,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

কুষ্টিয়ার মিরপুর থানার পোড়াদহে অবাধে বিক্রি হচ্ছে মাদকদ্রব্য

লাইক এবং শেয়ার করুন

মোঃ রাজন আমান, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি#  কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার পোড়াদহে নির্বিঘ্নে অবাধে  বিক্রি হচ্ছে  বিভিন্ন প্রকার মাদক দ্রব্য। এলাকার চিহ্নিত কিছু অসাধু ব্যক্তি এ পেশা ও নেশার সাথে জড়িত। এখানে হাত বাড়ালেই পাওয়া যায় মদ, গাঁজা , ফেন্সিডিলসহ মরন নেশা  হেরোইন ও বাবা বলে খ্যাত ইয়াবার মত সব মাদক। এসব মাদক দ্রব্য সেবন করছে এলাকার উঠতি বয়সী যুবকসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ। নেশার টাকা যোগাড় করতে তারা এলাকায় ঘটাচ্ছে চুরিসহ নানা রকম অপরাধমূলক ঘটনা। মাদক নেশার নিরাপদ স্থান হওয়ায় এখানকার যুব সমাজই শুধু নয়, আশপাশ এলাকাসহ জেলা শহর থেকে আসছে মাদক সেবীরা । পোড়াদহের কয়েকটি পয়েন্টে মাদক নির্বিঘ্নে  অবাধে বিক্রি হলেও পুলিশ নিরব ভূমিকা পালন করছে। এতে অভিভাবক মহল ও এলাকাবাসী চিন্তিত রয়েছে।

 এলাকাবাসী সূত্রে জানা  গেছে, পোড়াদহের নতুন বাজারের মৃত আতিয়ার ইসলামের ছেলে পুরাতন নাম করা মদ ব্যবসায়ী তরিকুল ইসলাম সহ ছেলে রাজন বাড়ীতে ও মাছ বাজারে বিক্রি করছে  হেরোইন। দক্ষিন কাটদহ গ্রামের বাবু আলীর ছেলে শাজাহান তার বাড়ীতে বিক্রি করছে ইয়াবা। দক্ষিন কাটদহ রেলপাড়ার রব্বানীর  ছেলে মনিরুল ইসলাম ও তার স্ত্রী ফতে খাতুন তাদের বাড়ীতে এবং জোড়া সিগনালের পাশে রেলের উপর হেরোইন বিক্রি করে।  গোবিন্দপুর গ্রামের হাজরাখালী ব্রীজের পাশের ক্যানেলের বাড়ীতে আলিম হেরোইন বিক্রি করছে। বাইসাইকেলে চড়ে ভ্রাম্যমান অবস্থায় হেরোইন বিক্রি করছে স্বরুপদহ চকপাড়ার আমিরুল ইসলাম।

কুঠিপাড়ার দ্বীন আলী বিক্রি করছে তাড়ী, গ্রাম  পোড়াদহের কেরাই আলী করছে গাজার ব্যবসা, তেতুলতলার ফারুক চালাচ্ছে গাজার ব্যবসা ও গ্রাম পোড়াদহের জামাই মিঠু বিক্রি করছে গাজা। এছাড়া পোড়াদহে দুই সুইপার কলোনীতে  দেদারছে বিক্রি হচ্ছে মদ। পুরাতন বাজার সুইপার কলোনীতে এবং দক্ষিন কাটদহ সুইপার কলোনীর সব সুইপারই মদ বিক্রি করছে। বিশেষ কোন অনুষ্ঠানের জন্য এসব সুইপারদের জন্য জন প্রতি ১৬ আউন্স করে মদ সরকারীভাবে অনুমোদন থাকলেও তারা ঐসব নিয়ম নীতি মানছে না। সুইপাররা কুষ্টিয়ার ভেড়ামারাসহ বিভিন্ন জায়গা থেকে মদ নিয়ে এসে প্রতিদিন দেদারছে বিক্রি করছে। এসব মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করে পোড়াদহকে মাদকমুক্ত করার জন্য পুলিশ সুপারের দৃষ্টি আকর্ষন করেছে অভিভাবক মহল ও এলাকাবাসী।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ