,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

শেষ হলো সিলেট ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা ২০১৭

লাইক এবং শেয়ার করুন

সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার ও অতিরিক্ত সচিব মো. জামাল উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, রূপকল্প-২০২১ বাস্তবায়ন ও ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে জনগণের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছাতে সরকারের অক্লান্ত পরিশ্রম আজকে যে সফলতা লাভ করেছে তার প্রমান পাওয়া যায় এই ৩দিন ব্যাপী মেলার মানুষের উপস্থিতি। সিলেটে মেলায় যেসব উদ্ভাবনী হয় তা সরকার গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে।

সিলেটের মেলায়ই একজন তরুণ উদ্ভাবক উপবৃত্তির টাকা পেতে ভোগান্তি থেকে মুক্তি পেতে মোবাইলের মাধ্যমে টাকা পাওয়ার প্রযুক্তি আবিষ্কার করেছে তা এখন সারা দেশে বাস্তাবায়ন হচ্ছে। সিলেটের মানুষের প্রচুর মেধা রয়েছে তা কাজে লাগাতে হবে।

শুক্রবার সন্ধায় সিলেট নগরীর রিকাবীবাজারস্থ মোহাম্মদ আলী জিমনেশিয়ামে তিন দিনব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার সমাপনী ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্টানে প্রধান অথিতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা কথাগুলো বলেন।

এই সভাই সিলেটে তাঁর শেষ সভা উল্লেখ করে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, আমি সিলেট থেকে চলে যাচ্ছি। ঢাকায় অন্য একটি প্রতিষ্ঠানের দ্বায়িত্ব নিচ্ছি। আমি সিলেট থেকে চলে গেলেও সিলেটের প্রতি আমার ভালোবাসা অটুট থাকবে। আমি সিলেটকে সকল ক্ষেত্রে সেরা হেসেবে দেখতে চাই।

সিলেটের জেলা প্রশাসক মাঃ জয়নাল আবেদীনের সভাপতিত্বে অনুষ্টানের শুরুতেই বক্তব্য রাখেন সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি কবি মুহিত চৌধুরী।

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের পোগ্রামোর মধুসুদন চন্দ্রের সঞ্চালনায় অনুষ্টানে বিমেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ লেঃ কঃ ইকবালুর রহমান সৌরভ, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার ফয়সল মাহবুব। অনুষ্টানে উপস্থিত ছিলেন সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) সৈয়দ মোহাম্মদ আমিনুর রহমান, সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এক্সসেস টু ইনফরমেশন-এটুআই ও সিলেটের জেলা প্রশাসনের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এ মেলায় ৪৬টি প্রতিষ্টান অংশ নেয়।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ