,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

জমে উঠেছে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা ২০১৭

লাইক এবং শেয়ার করুন

উদ্বোধনের দ্বিতীয় দিনে জমে উঠেছে সিলেট ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা ২০১৭। মেলার প্রথম দিন বুধবারও বিকেলে মেলায় জনসমাগম ছিল চোখেপড়ার মত। যত সময় যাচ্ছে তত ভিড় বাড়ছে মেলায় আগত দর্শনার্থীদের। বিশেষ করে তরুন-তরুনীদের ভিড় ছিল। মেলার বিভিন্ন স্টলে ঘুরে ডিজিটাল সেবা সমুহ দেখছেন ও নিচ্ছেন তারা। সিলেট জেলা প্রশাসনের স্টলে অনলাইন লটারীর রেজিস্টেশন করার জন্য দীর্ঘ লাইন রয়েছে। আগত দর্শনার্থীগণ বিনামূল্যে ওয়াই-ফাই ব্যবহার করছেন, মেলায় ওয়াইফাই সেবাটি দিচ্ছে সলবিডি নামে একটি প্রতিষ্ঠান। পাশাপাশি জেলা প্রশাসন, সিলেট এর স্টলে অন-লাইনে রেজিস্ট্রেশন করে প্রতিদিন জিতে নিচ্ছেন ৩ টি মাল্টিমিডিয়া মোবাইল সেট। প্রথম দিন প্রায় ৫শত জন রেজিস্ট্রেশন করলেও আজ এর আরো বাড়বে।

মেলায় সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাব, মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের প্রদশর্নী, পুলিশ, ডাক বিভাগ, শিক্ষা বাতায়নসহ ৪৬টি স্টল প্রদর্শিত হয়। এদিকে, মেলায় সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের স্টলে রয়েছে উপচে পড়া ভিড়। উপস্থিত দর্শকরা অনলাইন গণমাধ্যম সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন স্টলে উপস্থিত সাংবাদিকদের সাথে। তারা সিলটের বিভিন্ন অনলাইন নিউজপোর্টালের লিংক সম্বলিত প্রচারপত্র নিচ্ছেন।

মেলা ঘুরে দেখা গেছে, মেলায় আসা দর্শনার্থীদের বেশির ভাগই কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। আর তাদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতেই রয়েছে নতুন নতুন আকরষন মেলায় আসা সিলেট সরকারী কলেজের ছাত্রী মাহমুদা খানম জানালেন, নতুন খোঁজখবর নিতেই তিনি মেলায় এসেছেন।

বুধবার নগরীর মোহাম্মদ আলী জিমনেসিয়ামে তিন দিনব্যাপী এ মেলার উদ্বোধন করেন গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অতিরিক্ত সচিব ও বাংলাদেশ মহাকাশ গবেষনা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্টান (স্প্রারসো)-এর চেয়ারম্যান মুহাম্মদ দিলোয়ার বখত। মেলা ঘুরে দেখা গেছে, মেলায় আসা দর্শনার্থীদের বেশির ভাগই স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তাদের আগ্রহের কেন্দ্র বিন্দু নতুন নতুন ডিজিটাল সেবাসমুহ সম্পর্কে জানা ও গ্রহন করা।

মেলায় দেওয়া ডিজিটাল সেবাসমুহের মধ্যে রয়েছে, অনলাইনে সেবাদানকারী বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান, ব্যাংক, মোবাইল অপারেটর, ইন্টারনেট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান, কম্পিউটার হার্ডওয়ার ও সফটওয়ার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানসহ ৪৬টি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করেছে। তাদের সেবা সমুহের প্রতি সাধারণ মানুষকে আর্কষিত করার জন্য ফ্রি সেবা প্রদান করে এবং প্রত্যেকটি ডিজিটাল সেবা দর্শনার্থীদের দেখার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়াও তিন দিনব্যাপী আয়োজিত এই মেলায় তরুণ প্রজন্ম ও শিক্ষার্থীদের আর্কষিত করার জন্য রয়েছে ডিজিটাল সেন্টার, মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম, ইনোভেশন, আউটসোর্সিংসহ বিভিন্ন বিষয়ে সেমিনার, স্কুল ও কলেজ পর্যায়ে কম্পিউটার কুইজের পাশাপাশি প্রতিদিন সন্ধ্যায় ডিজিটাল সেবাসমুহের প্রতি সাধারণ মানুষকে আর্কষিত করার জন্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ