,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

কোন ষড়যন্ত্রই তারেক রহমানকে ঠেকাতে পারবে না : খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির

লাইক এবং শেয়ার করুন

বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির বলেছেন- সরকার আদর্শিক মোকাবেলায় ব্যার্থ হয়ে শহীদ জিয়া পরিবারকে ধ্বংস করার সুগভীর ষড়যন্ত্র করছে। আগামীর রাষ্ট্রনায়ক বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারুন্যের অহংকার তারেক রহমানকে রাজনীতির ময়দান থেকে সরাতেই একের পর এক ষড়যন্ত্রমুলক মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করা হচ্ছে। কোন ষড়যন্ত্রই তারেক রহমানকে ঠেকাতে পারবেনা। সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে দেশনায়ক তারেক রহমান বীরের বেশে বাংলাদেশে আসবেন। গোটা জাতি আজ অবৈধ সরকারকে ক্ষমতা থেকে হঠিয়ে গনতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের সুযোগ্য নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ রয়েছে। অবিলম্বে তারেক রহমানের বিরুদ্ধে জারিকৃত গ্রেফতারী পরোয়ানা বাতিল করতে হবে। ষড়যন্ত্রমুলক মিথ্যা মামলায় কারাগারে আটক সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, হবিগঞ্জ পৌর মেয়র জি.কে গৌছ ও সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক রাহাত চৌধুরী মুন্না সহ সকল নেতাকর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।

তিনি সোমবার বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারুন্যের অহংকার তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমুলক মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারী পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। সিলেট মহানগর বিএনপি সভাপতি নাসিম হোসাইনের সভাপতিত্বে ও জেলা সাধারন সম্পাদক আলী আহমদের পরিচালনায় বিএনপি কেন্দ্র ঘোষিত দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসুচীর অংশ হিসেবে নগরীর ঐতিহাসিক রেজিষ্টারী মাঠে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিএনপি অঙ্গ, সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

সভাপতির বক্তব্যে নাসিম হোসাইন বলেন- অবৈধ সরকার তারুন্যের অহংকার দেশনায়ক তারেক রহমানের জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে এই গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করতে আদালতকে বাধ্য করেছে। জনগন প্রতিহিংসামুলক গ্রেফতারী পরোয়ানা কখনো মেনে নিবেনা। অবিলম্বে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রনোদিত এই পরোয়ানা বাতিল করতে হবে। অন্যথায় দেশপ্রেমিক জনতাকে সাথে নিয়েই দেশনায়ক তারেক রহমানের বিরুদ্ধে নেয়া সরকারের সকল ষড়যন্ত্রের সমুচিত জবাব দেয়া হবে।
বিএনপি নেতা ড. আশরাফ আলীর কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সুচীত সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- সিলেট মহানগর বিএনপির সাধারন সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম, জেলার সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, মহানগর সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক হুমায়ুন কবির শাহীন, মুক্তিযোদ্ধা দলের কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগর মুক্তিযোদ্ধা দলের আহŸায়ক সালেহ আহমদ খসরু, বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম ময়ুর, এডভোকেট ফয়জুর রহমান জাহেদ, একেএম তারেক কালাম, হাজী সাহাব উদ্দীন, ডা. নাজমুল ইসলাম, জালাল উদ্দিন চেয়ারম্যান, এডভোকেট আতিকুর রহমান সাবু, সুরমান আলী, আজির উদ্দীন চেয়ারম্যান, শামীম আহমদ, সৈয়দ রেজাউল করিম আলো, এডভোকেট মুহিবুর রহমান, আব্দুর রহিম, মুকুল মোর্শেদ, আব্দুল জব্বার তুতু, ইউনুস মিয়া, আব্দুল আলিম দীপক, আবুল কাহির, শেখ কবির হোসেন, লল্লিক আহমদ চৌধুরী, নিজাম উদ্দীন জায়গীরদার,আমিনুর রহমান খোকন, এডভোকেট আল আসলাম মুমিন, এডভোকেট ফখরুল হক, আব্দুল হান্নান, ফাত্তাহ বকশী, মামুনুর রহমান মামুন, নাহিদুল ইসলাম নাহিদ, মহানগর ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক আবু সালেহ মো: লোকমান, জেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক মকসুদ আহমদ, বিএনপি নেতা আব্দুল লতিফ খান, বজলুর রহমান ফয়েজ, জিয়াউর রহমান দীপন, আফজাল উদ্দীন, হাজী ইলিয়াস মিয়া, আব্দুস শুকুর, আবুল কালাম, আল মামুন খান, আব্দুল কাদের মালিক, ছাত্রদল নেতা ফখরুল ইসলাম চৌধুরী, চৌধুরী মো: সোহেল, সাহেদ আহমদ চমন, লুৎফুর রহমান, মামুন ইবনে রাজ্জাক, শাহেদ বখত, শেখ নুরুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম, মুরাদ হোসেন, বেলায়েত হোসেন মোহন, সোহেল মাহমুদ, আবু হানিফ, কাজী মেরাজ, দেওয়ান আরাফাত চৌধুরী জাকির, জেহিন আহমদ, লিটন আহমদ, মহানগর ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক শাহ রুমেল, ছাত্রদল নেতা মিজানুর রহমান নেছার, শাহেদ হোসেন সুজন, সৈয়দ সারোয়ার রেজা, আলী আহদ হীরা, আব্দুল ওয়াহিদ, ওলী চৌধুরী, দিলোয়ার হোসেন রানা, আলী হায়দার মজনু, আরিফ হোসেন, কাজী নাজমুল হোসেন, গোলাম মাহমুদ আজম, এনামুল হক শামীম, রেজুয়ান আহমদ, আব্দুল মালেক, ফখরুল ইসলাম রুমেল, বিএনপি নেতা নুরুল ইসলাম লিমন, বাবুল হোসেন, মহিবুর রহমান জুবেদ, শাহ মাহমুদ আলী, সায়েদুল ইসলাম বাচ্চু, আব্দুর রহিম, আশরাফ বাহার, মঈনুল ইসলাম মঞ্জু, মকসুদুল করিম নোহেল, মোশতাক আহমদ, লৎফুর রহমান, নজির হোসেন, রজব আহমদ, ইমাম উদ্দীন, মোজাহিদুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, শাহেদ মাহমুদ তুহিন, জাহেদ সিরাজ, সেলিম আহমদ সেলু, হুমায়ুন কবির সুহিন, শামসুর রহমান শামীম, আব্দুল হান্নান, মঞ্জুর ইসলাম উজ্জল, গিয়াস আহমদ, পারভেজ আহমদ, আতাউর রহমান কাছা, শফিকুর রহমান টুটুল, সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, লায়েছ আহমদ, আজির উদ্দীন, ইসলাম উদ্দীন, ফখরুল আলম, আব্দুল মুক্তাদির খান, বেলাল আহমদ, কবির আহমদ জুনু, নজরুল ইসলাম, এনাম হোসেন মেম্বার, এডভোকেট ইসরাফিল আলী, ফিরোজ আহমদ, আব্দুল মালেক মেম্বার, কয়েস আহমদ সাগর, রেজুয়ান আহমদ, জাবেদ আলম, ওলী আহমদ, শাহেদ সিরাজ, কল্লোলজ্যেতি বিশ্বাস জয়, জয়নুল ইসলাম, এম.এ সালাম, জাকির হোসেন কয়েস, আলী আব্বাস, দেওয়ান রেজুয়ান, জুবেদ আহমদ আমিরী, খন্দকার মনিরুজ্জামান, শিহাব উদ্দীন শিহাব, জামিল আহমদ তালুকদার, সজিবুর রহমান রুবেল,নজরুল ইসলাম রাজু, ফখরুল ইসলাম পান্না, বদরুল ইসলাম, এনামুল হক, দেলোয়ার হোসেন দিনার, হাবিবুর রহমান হাবিব, এস.এম সেফুল, আবুল কালাম, জুবের আহমদ, রায়হান উদ্দীন রাজু, মোবারক হোসেন তুহিন, কবির আহমদ উজ্জল, আরিফুর রহমান টিপু, আতাউর রহমান, জয়নুল ইসলাম, সমর আলী, আলী আকবর রাজন, শাহেদ আহমদ, আব্দুল হাই রাজন, এডভোকেট মোবারক হোসেন রনি ও আশরাফ উদ্দীন প্রমুখ।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ