,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

সিলেট জেলায় কনস্টবল নিয়োগের বাছাই ২৭ সেপ্টেম্বর

লাইক এবং শেয়ার করুন

বাংলাদেশ পুলিশ ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টবল (টিআরসি) পদে নিয়োগের লক্ষ্যে সাড়ে ৮ হাজার পুরুষ ও দেড় হাজার নারীসহ মোট ১০ হাজার জনবল নিয়োগ করা হবে।
এরই অংশ হিসেবে সিলেট জেলায় ১৭৫ জন পুরুষ ও ৩১ জন নারীসহ মোট ২০৬ জন প্রার্থীকে নিয়োগের লক্ষ্যে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর সকাল ৯টা থেকে সিলেট জেলা পুলিশ লাইনে বাছাই শুরু হবে।
আগ্রহী প্রার্থীদেরকে শারীরিক মাপ ও শারীরিক পরীক্ষাসহ লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য সিলেট জেলা পুলিশ লাইনসে  প্রয়োজনীয় কাগজপত্রদিসহ উপস্থিত থাকার জন্য আহবান করা হয়ছে।

জেলা পুলিশের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সাধারণ/অন্যান্য কোটার প্রার্থীদের ক্ষেত্রে ২০১৬ সালের ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বয়স হতে হবে ১৮ হতে ২০ বছর এবং মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের ক্ষেত্রে ২০১৬ সালের ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ১৮ হতে ৩২বছর বয়স হতে হবে। তবে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের সন্তানের ক্ষেত্রে ২০১৬ সালের ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ১৮ হতে ২০ বছর বয়স হতে হবে।

এসএসসি/সমমানের সার্টিফিকেটে উল্লিখিত জন্ম তারিখই চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে। প্রার্থীকে এসএসসি অথবা সমমানের পরীক্ষায় কমপক্ষে জিপিএ ২.৫/ সমমান পেয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে। প্রাথীকে বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিক ও অবিবাহিত হতে হবে।

শারীরিক মাপ ও পরীক্ষায় অংশগ্রহণেরকালে প্রার্থীদেরকে শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র/সাময়িক সনদপত্রের মূল কপি, সর্বশেষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান কর্তৃক প্রদত্ত চারিত্রিক সনদপত্রের মূল কপি, প্রাথীর স্থায়ী বাসিন্দা /জাতীয়তার প্রমাণস্বরূপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান/সিটি কর্পোরেশন বা পৌরসভার মেয়র/ওয়ার্ড কাউন্সিলর (যা প্রযোজ্য) এর নিকট হতে স্থায়ী নাগরিকত্বের সনদপত্রের মূল কপি, প্রার্থীর জাতীয় পরিচয় পত্রের মূল কপি (যদি প্রার্থীর জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকে সেক্ষেত্রে প্রার্থীর পিতা/মাতার জাতীয় পরিচয়পত্রের মূল কপি), সরকারি গেজেটেড কর্মকর্তা কর্তৃক সত্যায়িত ৩ (তিন) কপি সদ্য তোলা পাসপোর্ট সাইজের রঙ্গিন ছবি, পরীক্ষার ফি ১শত টাকা, ১-২২১১-০০০০-২০৩১ নম্বর কোডে ট্রেজারি চালানের মাধ্যমে জমাপূর্বক চালানের কপি আবেদনের সাথে যুক্ত করতে হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো উল্লেখ করা হয়, মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তান/সন্তানের ক্ষেত্রে প্রার্থীদের পিতা/মাতা/পিতামহ/মাতামহের নামে ইস্যুকৃত মুক্তিযোদ্ধা সনদপত্রের মূলকপি, যা যথাযথভাবে উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ (মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং মাননীয় মন্ত্রী/প্রতিমন্ত্রী) কর্তৃক স্বাক্ষরিত ও প্রতিস্বাক্ষরিত থাকতে হবে। মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার পুত্র-কন্যার পুত্র-কন্যা হলে প্রার্থী যে মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার পুত্র-কন্যার ঔরসজাত পুত্র-কন্যা এই মর্মে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান/সিটি কর্পোরেশন বা পৌরসভার মেয়র/ওয়ার্ড কাউন্সিলর (যা প্রযোজ্য) কর্তৃক প্রদত্ত প্রত্যয়নপত্রের মূল কপি উল্লেখ্য, মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানের সন্তানদের ক্ষেত্রে ১ম শ্রেনির ম্যাজিস্ট্রেট এর নিকট সম্পাদিত অ্যাফিডেভিট অথবা বিজ্ঞ আদালত কর্তৃক প্রদত্ত সাকসেশন সার্টিফিকেট উপস্থাপন করতে হবে। পুলিশ পোষ্য কোটার প্রার্থীদের ক্ষেত্রে প্রার্থীর পিতা/মাতার নাম, পদবী (বিপি নম্বরসহ) উল্লেখপূর্বক কর্মরত জেলা/ইউনিটের প্রধান কর্তৃক প্রত্যয়নপত্রের মূল কপি যদি পুলিশ পোষ্য কোটায় কোন প্রার্থীর পিতা/মাত অবসর/মৃত্যুবরণ করে থাকেন, তবে এমন প্রার্থীর ক্ষেত্রে পিতা/মাতার সর্বশেষ কর্মস্থলের ইউনিট প্রধান কর্তৃক প্রত্যয়নপত্রের মূল কপি।

আনসার ও ভিডিপি কোটার প্রার্থীদের জন্য ৪২ (বিয়াল্লিশ) দিন মেয়াদী প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণের সনদপত্রের মূল কপি। এতিম কোটার প্রার্থীদের ক্ষেত্রে সরকারি ও সরকারি নিবন্ধনপ্রাপ্ত এতিমখানার প্রধান কর্তৃক প্রদত্ত প্রত্যয়নপত্র/প্রশংসাপ্রত্রের মূলকপি, যাতে প্রার্থী এতিম ও প্রার্থীর পূর্বকালীন স্থায়ী ঠিকানা এবং এতিমখানা নিবাসের নিবন্ধনকৃত ব্যক্তিগত নম্বরও উল্লেখ থাকতে হবে।

উপজাতীয় কোটার প্রার্থীদের ক্ষেত্রে জেলা প্রশাসক/উপজেলা নির্বাহী অফিসার কর্তৃক প্রদত্ত সনদপত্রের মূল কপি এবং সরকারি/আধা-সরকারি/স্বায়ত্বশাসিত সংস্থায় চাকরিরত প্রার্থীদেরকে অবশ্যই যথাযথ কর্তৃকপক্ষের অনুমতিপত্রসহ পরীক্ষার নির্ধারিত দিনে উপস্থিত  খাকতে বলা হয়েছে।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ