,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

পুলিশ রেলকর্মকর্তার ধান্দায় সিলেট উপবন এক্সপ্রেসে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার্থী লাঞ্ছিত

লাইক এবং শেয়ার করুন

ট্রেনের ‍টিকেট গরমিল করে রেলওয়ে দায়িত্বরত পুলিশ নায়েক (৩২) রাসেল রেলওয়ে আজাদ (২৫) টিটি ও কন্টাটর সিনিয়র গার্ড এর সহযোগিতায় ট্রেনের টিকিটে গরমলি করে  পুলিশ ও রেলওয়ে  কর্মকর্তারা এক হয়ে সিলেট উপবন আন্তঃনগর এক্সপ্রেস ট্রেনে গতকাল শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দিতে যাওয়া শিক্ষার্থী সাবেরা বেগম (১৮)  এবং সাথে থাকা অভিবাবক তার মামা মবরুর আহমদ সাজু কে    শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার ঢাকা থেকে  ফিরার পথে ঢাকাএয়ারর্পোট এসে২ জন যাত্রী তুলে এবং তাদের সিটে বসানোর জন্য বলে উঠে ।

এ ছাড়া তারা  সিট থেকে না সড়লে তাদের কে শারিরিক ভাবে  তাদের কে  লাঞ্ছিত করে এবং ভৈরব এসে নামিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে পক্ষান্তরে রেলওয়ে যাত্রীদের অনুরোধে  তাদের কে আর নামিয়ে দেয় নি তবে ঢাকাএয়ারর্পোট থেকে সিলেট পর্যন্ত  একুশ তারিখ সংগ্রহ করা টিকেট থাকা সত্ত্বে ও দাড়িয়ে দাড়িয়ে আসেন। এ সর্ম্পকে লাঞ্ছিত কারী পুলিশ ও রেলওয়ে কর্মকর্তা জানতেছাইলে তারা এনব বিষয়ে মন্তব্য করকত নারাজ তবে ভোক্তভুগি মবরুর আহমদ সাজু বলেন  আমার বোনের মেয়েকে  নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা রজন্য সিলেট রেলষ্টেশন ২১ তারিখ যাই   প্রথমে টিকেট রেখেই তারা না বলে পরে স্টেশন ম্যানাজরের সরনাপন্ন হয়ে তিনি ২৩ তারিখের ঢাকা থেকে সিলেট সংগ্রহ করেন অনলাইনে  তবে সঠিক টিকেট সংগ্রহ তরে এমন  লাঞ্ছিত হবো জানলে আমি টিকেট  করতাম না তবে আমি মনে করি আমাকে লাঞ্ছিত করা হয়েছে পাশাপাশি আমার ভাগ্নি কে টেনেহিচরে সবার সামনে লাঞ্ছিত করেছে এসব অমার্জিত কার্যক্রমে আমি এর সুষ্ঠতদন্ত করে বিচার চাই।রেল  যাত্রী সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা এয়ারপোর্ট থেকে কয়েকজন যাত্রী বিনা টিকিটে ঢাকা থেকে উপবন  আন্তঃনগর এক্সপ্রেস ট্রেনে আসছিলেন বিনে টিকেটে। তাদেরর কাছ থেকে রেলওয়ে পুলিশ ও টিটি মোটা অংকের টিকেটের টাকা পেয়ে  চ 37.38 নম্বর সিট টি তাদের কে দিতে হবে এমন ঘটনায় বাকবিতর্কের ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে বিনাটিকিটের যাত্রীদের  তাদের দুজনকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে তারা এ সময় রেলওয়ে পুলিশের সদস্যরা মুখ্য ভুমিকায় ছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছে। সকালে ওই যাত্রীরা   সিলেট লাঞ্ছিত স্টেশনে নেমে যান। এবং বিনে টিকেটে যাত্রীরা কুলাউড়া নেমে পড়লে রেলওয়ে পুলিশের সদস্যরা তাদের নেমে যেতে সহযোগিতা করেন বলেও অভিযোগ করেছেন ট্রেনের  সাজু পরবর্তীতে ট্রেনটি সিলেটএসে পৌঁছলে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করার জন্য যান  ভোরে তাদের  দরজা বন্ধ পাওয়া যায়


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ